লেবাননে টেকনোক্র্যাট সরকার চান ম্যাক্রোঁ
jugantor
লেবাননে টেকনোক্র্যাট সরকার চান ম্যাক্রোঁ

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৫ আগস্ট ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

লেবাননকে উদ্ধারে একটি টেকনোক্র্যাট সরকার চান ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। নতুন ধরনের সরকার গঠনে দেশটির রাজনৈতিক নেতাদের বারবার তাগিদ দিচ্ছেন তিনি।

শাসন ব্যবস্থায় প্রয়োজনীয় সংস্কার করা, সরকারের প্রতি জনগণের আস্থা ফিরিয়ে আনা এবং দেশের পুনর্গঠনে বিদেশি দাতাগোষ্ঠীগুলোর দেয়া সহায়তার অর্থের সুষ্ঠু ও যথার্থ ব্যবহারের লক্ষ্যে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সরকার গঠন চাচ্ছেন ম্যাক্রো।

নতুন এ সরকারের প্রধান হিসেবে সাবেক দু’বারের প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরিকে ফিরিয়ে আনার প্রস্তাব দিয়েছেন তিনি। তবে তার এ প্রস্তাব মানতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট মিশেল আউন ও খ্রিস্টান দলগুলো। ফরাসি কূটনৈতিক সূত্র ও লেবাননের সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে রয়টার্স।

চলতি মাসের শুরুর দিকে (৪ আগস্ট) লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ রাসায়নিক বিস্ফোরণে বৈরুত বন্দরনগরী ও এর আশপাশের পুরো এলাকা ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। এতে ঘরবাড়ি হারিয়ে উদ্বাস্তু হয়েছেন অন্তত ৩ লাখ অধিবাসী।

ফলে আগে থেকে নানা সংকটে ধুঁকতে থাকা লেবানন অর্থনৈতিকভাবে এখন কার্যত পঙ্গু। ওই বিস্ফোরণের দু’দিন পরই প্রথম কোনো রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে বৈরুত সফর করেন ম্যাক্রো।

ফ্রান্সের কূটনৈতিক সূত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্স বলেছে, ওই সফরেই লেবাননে পুনর্গঠনে দেশটির নেতাদের নতুন ধরনের সরকার গঠনের ব্যাপারে বার্তা দেন তিনি।

বিস্ফোরণের পেছনে সরকারের সীমাহীন দুর্নীতি ও অদক্ষতাকে দায়ী করে নতুন করে বিক্ষোভ ও জনরোষের মধ্যে চলতি সপ্তাহে পদত্যাগ করে লেবানিজ সরকার। তবে নতুন সরকার গঠন না হওয়া পর্যন্ত ওই সরকারই দায়িত্ব পালন করবে। ইতোমধ্যে নতুন সরকার গঠনে আলাপ-আলোচনা শুরু হয়েছে।

লেবানিজ সরকারের অন্তত তিনটি সূত্র জানিয়েছে, প্রধানত যুক্তরাষ্ট্র ও ফ্রান্সের নেতৃত্বে লেবাননের সংকটের সমাধানে এগিয়ে আসছে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন দাতাগোষ্ঠী। আর এই প্রচেষ্টার কেন্দ্রে রয়েছেন ম্যাক্রো। লেবাননের ব্যাপারে ম্যাক্রোর মনোভাব ও দৃষ্টিভঙ্গির ব্যাপারে অবগত ফ্রান্সের কূটনৈতিক সূত্রগুলো বলেছে, ‘প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রো লেবাননে একটা টেকনোক্র্যাট সরকার চান।

লেবাননে টেকনোক্র্যাট সরকার চান ম্যাক্রোঁ

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৫ আগস্ট ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

লেবাননকে উদ্ধারে একটি টেকনোক্র্যাট সরকার চান ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। নতুন ধরনের সরকার গঠনে দেশটির রাজনৈতিক নেতাদের বারবার তাগিদ দিচ্ছেন তিনি।

শাসন ব্যবস্থায় প্রয়োজনীয় সংস্কার করা, সরকারের প্রতি জনগণের আস্থা ফিরিয়ে আনা এবং দেশের পুনর্গঠনে বিদেশি দাতাগোষ্ঠীগুলোর দেয়া সহায়তার অর্থের সুষ্ঠু ও যথার্থ ব্যবহারের লক্ষ্যে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সরকার গঠন চাচ্ছেন ম্যাক্রো।

নতুন এ সরকারের প্রধান হিসেবে সাবেক দু’বারের প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরিকে ফিরিয়ে আনার প্রস্তাব দিয়েছেন তিনি। তবে তার এ প্রস্তাব মানতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট মিশেল আউন ও খ্রিস্টান দলগুলো। ফরাসি কূটনৈতিক সূত্র ও লেবাননের সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে রয়টার্স।

চলতি মাসের শুরুর দিকে (৪ আগস্ট) লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ রাসায়নিক বিস্ফোরণে বৈরুত বন্দরনগরী ও এর আশপাশের পুরো এলাকা ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। এতে ঘরবাড়ি হারিয়ে উদ্বাস্তু হয়েছেন অন্তত ৩ লাখ অধিবাসী।

ফলে আগে থেকে নানা সংকটে ধুঁকতে থাকা লেবানন অর্থনৈতিকভাবে এখন কার্যত পঙ্গু। ওই বিস্ফোরণের দু’দিন পরই প্রথম কোনো রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে বৈরুত সফর করেন ম্যাক্রো।

ফ্রান্সের কূটনৈতিক সূত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্স বলেছে, ওই সফরেই লেবাননে পুনর্গঠনে দেশটির নেতাদের নতুন ধরনের সরকার গঠনের ব্যাপারে বার্তা দেন তিনি।

বিস্ফোরণের পেছনে সরকারের সীমাহীন দুর্নীতি ও অদক্ষতাকে দায়ী করে নতুন করে বিক্ষোভ ও জনরোষের মধ্যে চলতি সপ্তাহে পদত্যাগ করে লেবানিজ সরকার। তবে নতুন সরকার গঠন না হওয়া পর্যন্ত ওই সরকারই দায়িত্ব পালন করবে। ইতোমধ্যে নতুন সরকার গঠনে আলাপ-আলোচনা শুরু হয়েছে।

লেবানিজ সরকারের অন্তত তিনটি সূত্র জানিয়েছে, প্রধানত যুক্তরাষ্ট্র ও ফ্রান্সের নেতৃত্বে লেবাননের সংকটের সমাধানে এগিয়ে আসছে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন দাতাগোষ্ঠী। আর এই প্রচেষ্টার কেন্দ্রে রয়েছেন ম্যাক্রো। লেবাননের ব্যাপারে ম্যাক্রোর মনোভাব ও দৃষ্টিভঙ্গির ব্যাপারে অবগত ফ্রান্সের কূটনৈতিক সূত্রগুলো বলেছে, ‘প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রো লেবাননে একটা টেকনোক্র্যাট সরকার চান।

 

ঘটনাপ্রবাহ : লেবাননে বিস্ফোরণ