বিচার বিভাগকে রাজনীতিতে টানা গণতন্ত্রের জন্য অশুভ

বিলাওয়াল ভুট্টোর মন্তব্য

  যুগান্তর ডেস্ক ০৩ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বিচার বিভাগকে রাজনীতিতে টানা গণতন্ত্রের জন্য অশুভ
বিলাওয়াল ভুট্টো

রাজনীতির কাজে বিচার বিভাগকে ব্যবহার গণতন্ত্রের জন্য শুভকর নয়। এতে গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলো দুর্বল হয়ে পড়ে। ভেঙে পড়ে গণতন্ত্রের শৃঙ্খল। এর মাধ্যমে নিজেদের কাজ বাদ দিয়ে অন্যের কাজে হস্তক্ষেপ বেড়ে যায়।

পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) চেয়ারম্যান বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারি রোববার এ মন্তব্য করেন। পাকিস্তানের প্রয়াত সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টোর ছেলে বিলাওয়াল বলেন, রাজনীতিতে বিচার বিভাগকে টেনে আনা শুধু পাকিস্তানেই নয়, অন্য দেশেও দেখা যাচ্ছে।

পারিবারিক সদস্য জাম সাকির মৃত্যুতে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে কাশিমাবাদের বাসভবনে যান বিলাওয়াল। সেখানে সাংবাদিকদের সঙ্গে এসব কথা বলেন তিনি। এ সময় সিন্ধুপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী মুরাদ আলী শাহ, পিপিপির সেখানকার প্রেসিডেন্ট নিসার খুহরো ও অন্যরা উপস্থিত ছিলেন। খবর ডনের।

বিলাওয়াল বলেন, রাজনীতি নিয়ে বিচার বিভাগের কার্যক্রম অবশ্যই কমিয়ে আনতে হবে। বিচার বিভাগকে তার নিজের কাজে মনোযোগ দিতে হবে। আর রাজনীতিবিদদেরকে তাদের কাজ করতে দিতে হবে।

কারণ, রাজনীতিক ব্যর্থ হলে তাকে জনগণের কাছে প্রত্যাখ্যাত হওয়ার সুযোগ তৈরি হয়। পাকিস্তান সংবিধানের অষ্টাদশ সংশোধনী ফিরিয়ে আনার যেকোনো চেষ্টা করা হলে তার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর প্রত্যয়ও ব্যক্ত করেন বিলাওয়াল।

বিলাওয়াল বলেন, ‘পিপিপি বিচার বিভাগে সংস্কার করতে চেয়েছে। তারা পার্লামেন্টে সংশোধনী আনার চেষ্টা করেছে। কিন্তু পিপিপির এ উদ্যোগের বিরোধিতা করেছে বর্তমান ক্ষমতাসীন দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-নওয়াজ)।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি মনে করি বিচার বিভাগকে রাজনীতিকীকরণ শুধু পাকিস্তানে নয়, বিশ্বের অন্যান্য দেশেও দেখা যাচ্ছে। এটি গণতন্ত্রের জন্য ভালো নয়। ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণ গণতন্ত্রের একটি অন্যতম উপাদান। রাজনীতিতে বিচার বিভাগ ঢুকে পড়লে নিজেদের কাজ বাদ দিয়ে অন্যের হস্তক্ষেপ করা শুরু হবে।’

পরিসংখ্যান তুলে ধরে পিপিপির এ নেতা বলেন, ‘পাকিস্তানের আদালতে অন্তত ১৮ লাখ মামলা ঝুলে রয়েছে। এর মধ্যে সুপ্রিমকোর্টে ও সিন্ধু হাইকোর্টে রাজনৈতিক মামলাও রয়েছে।

প্রত্যেক মামলায় তারা (বিচারকরা) শুনতে পান যে এক হত্যাকাণ্ডের শিকার পরিবার রয়েছে, সেখানে এক সন্ত্রাসীর শিকার পরিবার রয়েছে এবং এক ধর্ষণের শিকার পরিবার রয়েছে- তাদের বিচার হওয়া প্রয়োজন।

কিন্তু তারা সুযোগ পাচ্ছেন না। বিচারকরা এ সুযোগ তৈরি করে দিচ্ছেন না।’ বিলাওয়াল আরও বলেন, ‘রাজনীতিতে বিচার বিভাগকে টানা কমাতে হবে। বিচার বিভাগের কাজ তাদের করতে দিতে হবে আর রাজনীতির কাজে মনোযোগী হতে হবে রাজনীতিবিদদের। যদি রাজনীতিকরা ব্যর্থ বা ভুল করেন তাহলে জনগণ ভোটের মাধ্যমে তাদের প্রত্যাখ্যান করবেন।’

এর আগে জানুয়ারি মাসে বিচারপতিরা পাকিস্তানের রাজনীতিকদের নিয়ে খেলছেন বলে মন্তব্য করেছিলেন বিলাওয়াল। তিনি বলেন, দেশের বিচারপতিরা যতদিন রাজনীতিকদের নিয়ে খেলবেন ততদিন পর্যন্ত ভোগান্তির শিকার হবে পাকিস্তান। টুইটারে দেয়া এক বার্তায় তিনি লেখেন, ‘পাকিস্তানের প্রধান বিচারপতির তত্ত্বাবধানে এরই মধ্যে আইন সংস্কার কমিশন গঠন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×