এবার নির্বাচনের ফল নিয়েও সংশয় ট্রাম্পের
jugantor
এবার নির্বাচনের ফল নিয়েও সংশয় ট্রাম্পের
ভোটের কয়েক মাসেও জানা যাবে না জয়ী কে

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ভোট যত ঘনিয়ে আসছে, বিতর্কিত বিভিন্ন মন্তব্যও ততই বাড়ছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের। দু’দিন আগেই পরাজিত হলে ক্ষমতা ছাড়বেন কিনা তা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি করেন ট্রাম্প। এবার নির্বাচনের ফল নিয়েও সংশয় প্রকাশ করলেন তিনি।

ভোট যত ঘনিয়ে আসছে, বিতর্কিত বিভিন্ন মন্তব্যও ততই বাড়ছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের। দু’দিন আগেই পরাজিত হলে ক্ষমতা ছাড়বেন কিনা তা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি করেন ট্রাম্প। এবার নির্বাচনের ফল নিয়েও সংশয় প্রকাশ করলেন তিনি।

বললেন, ভোট শেষ হওয়ার কয়েক মাস পরও ফল জানা যাবে না। শুরু থেকেই ডাক-ভোটের ঘোরবিরোধী ট্রাম্প ডাকযোগে ভোটকে অবজ্ঞা করেই এ কথা বলেন। রয়টার্স।

শুক্রবার ভার্জিনিয়ায় এক নির্বাচনী প্রচারণায় ট্রাম্প বলেন, নির্বাচনে কে জয়ী হয়েছেন তা জানতে মার্কিন ভোটারদের হয়তো কয়েক মাস পর্যন্ত অপেক্ষা করা লাগতে পারে। ডাকে ভোট দেয়া নিয়ে নিজের সংশয়ের কথা তুলে ধরতে গিয়ে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

ট্রাম্পের মতো কয়েক মাস না বললেও নির্বাচন বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এবার ভোটের ফলাফল জানতে বেশ কয়েকদিন লেগে যাবে। কারণ, যারা ডাকযোগে ভোট দেবেন তাদের ব্যালট নানা কারণে ৩ নভেম্বরের পরেও নির্বাচন কমিশনে পৌঁছাবে।

ফলে কর্মকর্তাদের ভোট গুনে শেষ করতে আরও বেশ কিছুদিন সময় লেগে যাবে। আগামী ৩ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এবার আমেরিকার অর্ধেক ভোটার ডাকযোগে ভোট দেবেন।

ভার্জিনিয়ার নিউপোর্ট নিউজে ওই নির্বাচনী প্রচারণায় ট্রাম্প আরও বলেন, ডাকযোগে ভোটের ব্যালট পৌঁছানোর জন্য অপেক্ষা করার চেয়ে হার-জিতের বিষয়টি দ্রুত নিশ্চিত হতে পারলে খুশি হবেন তিনি।

টিভিতে যেমন বিজয়ীর নাম ঘোষণার আগে হঠাৎ থেমে গিয়ে দর্শকদের কৌতূহল সৃষ্টি করে, ঠিক তেমনটাই হবে এবার। তবে সেটা কিছুক্ষণের জন্য না- এটা শোনার জন্য কয়েক মাস অপেক্ষা করতে পারেন না আপনি। এবার ভোটের রাতেই আপনি বিজয়ীর নাম শুনতে পাবেন, এমনটা হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম।

এদিকে পরস্পরের নির্বাচনে সাইবার হামলাসহ যে কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ বন্ধে চুক্তি চান রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। শুক্রবার এক বিবৃতিতে পুতিন বলেন, নিজেদের নির্বাচনে সাইবার হামলাসহ যে কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ করা হবে- যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার মধ্যে এমন একটি চুক্তি দরকার।

মার্কিন নির্বাচন নিয়ে ট্রাম্পের সংশয়, ডাকযোগে ভোট দেয়ার কারণে ফল প্রকাশে বিলম্ব ইত্যাদি খবরের মধ্যে পুতিনের চুক্তির প্রস্তাব এলো। মার্কিন নির্বাচনকে সামনে রেখে দুই দেশের মধ্যকার বিভক্তি দূর করে সব কিছু স্বাভাবিক করে নেয়ার কথাও বলেন পুতিন।

প্রযুক্তি ব্যবহারের ক্ষেত্রে ও নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় হস্তক্ষেপ না করাসহ পরস্পরের অভ্যন্তরীণ বিষয়াবলীতে হস্তক্ষেপ না করার প্রতিশ্রুতি চান বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করেন পুতিন।

এবার নির্বাচনের ফল নিয়েও সংশয় ট্রাম্পের

ভোটের কয়েক মাসেও জানা যাবে না জয়ী কে
 যুগান্তর ডেস্ক 
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
ভোট যত ঘনিয়ে আসছে, বিতর্কিত বিভিন্ন মন্তব্যও ততই বাড়ছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের। দু’দিন আগেই পরাজিত হলে ক্ষমতা ছাড়বেন কিনা তা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি করেন ট্রাম্প। এবার নির্বাচনের ফল নিয়েও সংশয় প্রকাশ করলেন তিনি।
ছবি: সংগৃহীত

ভোট যত ঘনিয়ে আসছে, বিতর্কিত বিভিন্ন মন্তব্যও ততই বাড়ছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের। দু’দিন আগেই পরাজিত হলে ক্ষমতা ছাড়বেন কিনা তা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি করেন ট্রাম্প। এবার নির্বাচনের ফল নিয়েও সংশয় প্রকাশ করলেন তিনি।

বললেন, ভোট শেষ হওয়ার কয়েক মাস পরও ফল জানা যাবে না। শুরু থেকেই ডাক-ভোটের ঘোরবিরোধী ট্রাম্প ডাকযোগে ভোটকে অবজ্ঞা করেই এ কথা বলেন। রয়টার্স।

শুক্রবার ভার্জিনিয়ায় এক নির্বাচনী প্রচারণায় ট্রাম্প বলেন, নির্বাচনে কে জয়ী হয়েছেন তা জানতে মার্কিন ভোটারদের হয়তো কয়েক মাস পর্যন্ত অপেক্ষা করা লাগতে পারে। ডাকে ভোট দেয়া নিয়ে নিজের সংশয়ের কথা তুলে ধরতে গিয়ে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

ট্রাম্পের মতো কয়েক মাস না বললেও নির্বাচন বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এবার ভোটের ফলাফল জানতে বেশ কয়েকদিন লেগে যাবে। কারণ, যারা ডাকযোগে ভোট দেবেন তাদের ব্যালট নানা কারণে ৩ নভেম্বরের পরেও নির্বাচন কমিশনে পৌঁছাবে।

ফলে কর্মকর্তাদের ভোট গুনে শেষ করতে আরও বেশ কিছুদিন সময় লেগে যাবে। আগামী ৩ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এবার আমেরিকার অর্ধেক ভোটার ডাকযোগে ভোট দেবেন।

ভার্জিনিয়ার নিউপোর্ট নিউজে ওই নির্বাচনী প্রচারণায় ট্রাম্প আরও বলেন, ডাকযোগে ভোটের ব্যালট পৌঁছানোর জন্য অপেক্ষা করার চেয়ে হার-জিতের বিষয়টি দ্রুত নিশ্চিত হতে পারলে খুশি হবেন তিনি।

টিভিতে যেমন বিজয়ীর নাম ঘোষণার আগে হঠাৎ থেমে গিয়ে দর্শকদের কৌতূহল সৃষ্টি করে, ঠিক তেমনটাই হবে এবার। তবে সেটা কিছুক্ষণের জন্য না- এটা শোনার জন্য কয়েক মাস অপেক্ষা করতে পারেন না আপনি। এবার ভোটের রাতেই আপনি বিজয়ীর নাম শুনতে পাবেন, এমনটা হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম।

এদিকে পরস্পরের নির্বাচনে সাইবার হামলাসহ যে কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ বন্ধে চুক্তি চান রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। শুক্রবার এক বিবৃতিতে পুতিন বলেন, নিজেদের নির্বাচনে সাইবার হামলাসহ যে কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ করা হবে- যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার মধ্যে এমন একটি চুক্তি দরকার।

মার্কিন নির্বাচন নিয়ে ট্রাম্পের সংশয়, ডাকযোগে ভোট দেয়ার কারণে ফল প্রকাশে বিলম্ব ইত্যাদি খবরের মধ্যে পুতিনের চুক্তির প্রস্তাব এলো। মার্কিন নির্বাচনকে সামনে রেখে দুই দেশের মধ্যকার বিভক্তি দূর করে সব কিছু স্বাভাবিক করে নেয়ার কথাও বলেন পুতিন।

প্রযুক্তি ব্যবহারের ক্ষেত্রে ও নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় হস্তক্ষেপ না করাসহ পরস্পরের অভ্যন্তরীণ বিষয়াবলীতে হস্তক্ষেপ না করার প্রতিশ্রুতি চান বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করেন পুতিন।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস