কিউবার বিরুদ্ধে নতুন মার্কিন নিষেধাজ্ঞা
jugantor
কিউবার বিরুদ্ধে নতুন মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

প্রতিবেশী কমিউনিস্ট দেশ কিউবার বিরুদ্ধে নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ট্রাম্প প্রশাসন। এমন একটা সময় নতুন নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দেয়া হয়, যখন ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যস্ত।

প্রতিবেশী কমিউনিস্ট দেশ কিউবার বিরুদ্ধে নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ট্রাম্প প্রশাসন। এমন একটা সময় নতুন নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দেয়া হয়, যখন ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যস্ত।

ট্রাম্প চেষ্টা করছেন ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে ফ্লোরিডার কিউবান-আমেরিকানদের যাতে ভোটদান থেকে বিরত রাখা যায়। আলজাজিরা।

নতুন নিষেধাজ্ঞায় কিউবা থেকে সিগারেট ও অ্যালকোহল আমদানির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে এবং আমেরিকানরা কিউবা সরকারের মালিকানাধীন যে কোনো সম্পত্তি ব্যবহার ও তাতে অবস্থান করতে পারবেন না বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

স্থানীয় সময় বুধবার নিষেধাজ্ঞা ঘোষণাতে গিয়ে হোয়াইট হাউসে ট্রাম্প বলেন, ‘কমিউনিটি নিপীড়নের বিরুদ্ধে আমাদের লড়াইয়ের অংশ হিসেবে আজ আমি ঘোষণা করছি যে, অর্থ বিভাগ মার্কিন ভ্রমণকারীদের কিউবা সরকারের মালিকানাধীন সম্পত্তিতে অবস্থানের বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা ঘোষণা করবে।

এছাড়া কিউবার অ্যালকোহল ও সিগারেট আমদানির ওপরও আমরা বিধিনিষেধ আরোপ করব।’

ট্রাম্প এসব কথা বলেন ১৯৮০ সালের ম্যারিয়েল বোটলিফটের ঘটনার ৪০তম বার্ষিকীতে বে অব পিগসের প্রখ্যাত ব্যক্তিদের স্মরণানুষ্ঠানে। ওই ঘটনায় ১ লাখ ২০ হাজার কিউবান আমেরিকার মিয়ামিতে চলে এসেছিলেন।

১৯৫৯ সালে কিউবায় কমিউনিস্ট বিপ্লবের পর থেকে যুক্তরাষ্ট্র্রের সঙ্গে প্রতিবেশী দেশটির স্বাভাবিক কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিল না। সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা তার তার দ্বিতীয় মেয়াদে কিউবার সঙ্গে স্বাভাবিক সম্পর্ক স্থাপন করেন।

কিন্তু তার বিদায়ের পর ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে ক্ষমতা নিয়ে ট্রাম্প সে উদ্যোগ থেকে সরে আসার ঘোষণা দেন এবং কিউবার সঙ্গে বৈরিতা চালিয়ে যান। গত বছর ট্রাম্প প্রশাসন কিউবা ভ্রমণের ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।

ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর দোদুল্যমান সরকারকে সমর্থন দেয়া থেকে বিরত থাকতে কিউবাকে চাপ দেয়ার জন্য ওই নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছিল। সর্বশেষ নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে মার্কিন অর্থ বিভাগ জানিয়েছে ‘তথাকথিত ব্যক্তি থেকে ব্যক্তি পর্যায়ে

দলীয় শিক্ষা ভ্রমণ’র অনুমতি আর দেয়া হবে না। কিউবায় সামগ্রিক ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার বাইরে এই বিশেষ ভ্রমণের অনুমতি ছিল দুই দেশের নাগরিকদের জন্য। ফ্লোরিডায় জয়ের জন্য রিপাবলিকান ট্রাম্প ও ডেমোক্রেট জো বাইডেন সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাচ্ছেন।

১৯২৪ সালে ক্যালভিন কুলিজের পর থেকে ফ্লোরিডায় জয়ী না হয়ে কোনো রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট হতে পারেননি। এটি মার্কিন নির্বাচনে অন্যতম ব্যাটলগ্রাউন্ড রাজ্য।

কিউবার বিরুদ্ধে নতুন মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
প্রতিবেশী কমিউনিস্ট দেশ কিউবার বিরুদ্ধে নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ট্রাম্প প্রশাসন। এমন একটা সময় নতুন নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দেয়া হয়, যখন ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যস্ত।
ছবি: সংগৃহীত

প্রতিবেশী কমিউনিস্ট দেশ কিউবার বিরুদ্ধে নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ট্রাম্প প্রশাসন। এমন একটা সময় নতুন নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দেয়া হয়, যখন ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যস্ত।

ট্রাম্প চেষ্টা করছেন ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে ফ্লোরিডার কিউবান-আমেরিকানদের যাতে ভোটদান থেকে বিরত রাখা যায়। আলজাজিরা।

নতুন নিষেধাজ্ঞায় কিউবা থেকে সিগারেট ও অ্যালকোহল আমদানির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে এবং আমেরিকানরা কিউবা সরকারের মালিকানাধীন যে কোনো সম্পত্তি ব্যবহার ও তাতে অবস্থান করতে পারবেন না বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

স্থানীয় সময় বুধবার নিষেধাজ্ঞা ঘোষণাতে গিয়ে হোয়াইট হাউসে ট্রাম্প বলেন, ‘কমিউনিটি নিপীড়নের বিরুদ্ধে আমাদের লড়াইয়ের অংশ হিসেবে আজ আমি ঘোষণা করছি যে, অর্থ বিভাগ মার্কিন ভ্রমণকারীদের কিউবা সরকারের মালিকানাধীন সম্পত্তিতে অবস্থানের বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা ঘোষণা করবে।

এছাড়া কিউবার অ্যালকোহল ও সিগারেট আমদানির ওপরও আমরা বিধিনিষেধ আরোপ করব।’

ট্রাম্প এসব কথা বলেন ১৯৮০ সালের ম্যারিয়েল বোটলিফটের ঘটনার ৪০তম বার্ষিকীতে বে অব পিগসের প্রখ্যাত ব্যক্তিদের স্মরণানুষ্ঠানে। ওই ঘটনায় ১ লাখ ২০ হাজার কিউবান আমেরিকার মিয়ামিতে চলে এসেছিলেন।

১৯৫৯ সালে কিউবায় কমিউনিস্ট বিপ্লবের পর থেকে যুক্তরাষ্ট্র্রের সঙ্গে প্রতিবেশী দেশটির স্বাভাবিক কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিল না। সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা তার তার দ্বিতীয় মেয়াদে কিউবার সঙ্গে স্বাভাবিক সম্পর্ক স্থাপন করেন।

কিন্তু তার বিদায়ের পর ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে ক্ষমতা নিয়ে ট্রাম্প সে উদ্যোগ থেকে সরে আসার ঘোষণা দেন এবং কিউবার সঙ্গে বৈরিতা চালিয়ে যান। গত বছর ট্রাম্প প্রশাসন কিউবা ভ্রমণের ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।

ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর দোদুল্যমান সরকারকে সমর্থন দেয়া থেকে বিরত থাকতে কিউবাকে চাপ দেয়ার জন্য ওই নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছিল। সর্বশেষ নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে মার্কিন অর্থ বিভাগ জানিয়েছে ‘তথাকথিত ব্যক্তি থেকে ব্যক্তি পর্যায়ে

দলীয় শিক্ষা ভ্রমণ’র অনুমতি আর দেয়া হবে না। কিউবায় সামগ্রিক ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার বাইরে এই বিশেষ ভ্রমণের অনুমতি ছিল দুই দেশের নাগরিকদের জন্য। ফ্লোরিডায় জয়ের জন্য রিপাবলিকান ট্রাম্প ও ডেমোক্রেট জো বাইডেন সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাচ্ছেন।

১৯২৪ সালে ক্যালভিন কুলিজের পর থেকে ফ্লোরিডায় জয়ী না হয়ে কোনো রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট হতে পারেননি। এটি মার্কিন নির্বাচনে অন্যতম ব্যাটলগ্রাউন্ড রাজ্য।