জাপানের সিংহাসনের প্রথম উত্তরাধিকারী আকিশিনো
jugantor
জাপানের সিংহাসনের প্রথম উত্তরাধিকারী আকিশিনো

  যুগান্তর ডেস্ক  

১০ নভেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

জাপান ‘সাম্রাজ্যে’র পরবর্তী উত্তরাধিকারী মনোনীত করা হয়েছে। রোববার আনুষ্ঠানিকভাবে উত্তরাধিকারী ঘোষণা করা হয়েছে ক্রাউন প্রিন্স আকিশিনোকে।

ছেলে সন্তান না থাকায় ছোট ভাই আকিশিনোকে সিংহাসন ছাড়লেন সম্রাট নারুহিতো। কোনো নারী সম্রাটের আসনে বসতে পারবেন না।

কিন্তু সম্রাট নারুহিতোর কোনো ছেলে হয়নি। তাই সিংহাসনে বসার এক বছরের মধ্যেই ভাই আকিশিনোকে সেই জায়গা ছেড়ে দিলেন তিনি। টোকিওতে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে নিজের ওপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের শপথও নিয়েছেন আকিশিনো।

সাত মাস আগেই এ অনুষ্ঠান হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনভাইরাসের কারণে তা পিছিয়ে দেয়া হয়। খবর জাপান টাইমসের।

গত বছরের মে মাসে আকিশিনোর বড় ভাই নারুহিতো জাপানের সম্রাটের পদে আসীন হন। নারুহিতোর বাবা ৮৬ বছরের আকিহিতো দায়িত্ব পালনে অপারগতা জানিয়ে স্বেচ্ছায় সরে দাঁড়ান। পরে তার স্থলাভিষিক্ত হন নারুহিতো।

আকিহিতো স্বেচ্ছায় জাপানি রাজার দায়িত্ব ছেড়ে দেয়ার ঘোষণা দিলে অনেকেই বিস্মিত হয়েছিলেন। কারণ দেশটির ২০০ বছরের ইতিহাসে স্বেচ্ছায় সিংহাসন ছেড়ে দেয়া ঘটনা সেটিই ছিল প্রথম। তখন থেকেই তিনি কতদিন সিংহাসনে থাকবেন তা নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছিল।

কারণ জাপানের রাজপরিবারের নিয়ম অনুযায়ী, কোনো নারীকে সম্রাটের আসনে বসানো হয় না। ফলে নারুহিতোর পরে তার কন্যাসন্তানের সিংহাসনে বসার কোনো সুযোগ ছিল না। অন্যদিকে ৬০ বছরের নারুহিতোর থেকে ৬ বছরের ছোট আকিশিনোর পুত্রসন্তান হয়েছিল।

জাপানের সিংহাসনের প্রথম উত্তরাধিকারী আকিশিনো

 যুগান্তর ডেস্ক 
১০ নভেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

জাপান ‘সাম্রাজ্যে’র পরবর্তী উত্তরাধিকারী মনোনীত করা হয়েছে। রোববার আনুষ্ঠানিকভাবে উত্তরাধিকারী ঘোষণা করা হয়েছে ক্রাউন প্রিন্স আকিশিনোকে।

ছেলে সন্তান না থাকায় ছোট ভাই আকিশিনোকে সিংহাসন ছাড়লেন সম্রাট নারুহিতো। কোনো নারী সম্রাটের আসনে বসতে পারবেন না।

কিন্তু সম্রাট নারুহিতোর কোনো ছেলে হয়নি। তাই সিংহাসনে বসার এক বছরের মধ্যেই ভাই আকিশিনোকে সেই জায়গা ছেড়ে দিলেন তিনি। টোকিওতে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে নিজের ওপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের শপথও নিয়েছেন আকিশিনো।

সাত মাস আগেই এ অনুষ্ঠান হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনভাইরাসের কারণে তা পিছিয়ে দেয়া হয়। খবর জাপান টাইমসের।

গত বছরের মে মাসে আকিশিনোর বড় ভাই নারুহিতো জাপানের সম্রাটের পদে আসীন হন। নারুহিতোর বাবা ৮৬ বছরের আকিহিতো দায়িত্ব পালনে অপারগতা জানিয়ে স্বেচ্ছায় সরে দাঁড়ান। পরে তার স্থলাভিষিক্ত হন নারুহিতো।

আকিহিতো স্বেচ্ছায় জাপানি রাজার দায়িত্ব ছেড়ে দেয়ার ঘোষণা দিলে অনেকেই বিস্মিত হয়েছিলেন। কারণ দেশটির ২০০ বছরের ইতিহাসে স্বেচ্ছায় সিংহাসন ছেড়ে দেয়া ঘটনা সেটিই ছিল প্রথম। তখন থেকেই তিনি কতদিন সিংহাসনে থাকবেন তা নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছিল।

কারণ জাপানের রাজপরিবারের নিয়ম অনুযায়ী, কোনো নারীকে সম্রাটের আসনে বসানো হয় না। ফলে নারুহিতোর পরে তার কন্যাসন্তানের সিংহাসনে বসার কোনো সুযোগ ছিল না। অন্যদিকে ৬০ বছরের নারুহিতোর থেকে ৬ বছরের ছোট আকিশিনোর পুত্রসন্তান হয়েছিল।