চীনের কয়েক সপ্তাহ আগেই করোনা ছড়ায় যুক্তরাষ্ট্রে
jugantor
চীনের কয়েক সপ্তাহ আগেই করোনা ছড়ায় যুক্তরাষ্ট্রে

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনাভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীন এমন তথ্য অনেকটা প্রতিষ্ঠিত হলেও মার্কিন বিজ্ঞানীরা অ্যান্টিবডি পরীক্ষা করে প্রমাণ পেয়েছেন, চীনের কয়েক সপ্তাহ আগেই যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছিল। সাত হাজার ৩০০ ব্যক্তির রক্ত পরীক্ষা করে ১০৬টির মধ্যে করোনাভাইরাসের এন্টিবডি পাওয়া গেছে। এর মধ্যে গত বছরের ডিসেম্বরের ১৩ থেকে ১৬ তারিখ ক্যালিফোর্নিয়া, ওয়াশিংটন ও অরেগন থেকে নেয়া ৩৯ জনের রক্তে করোনাভাইরাস পজিটিভ এসেছে। ৩০ ডিসেম্বর থেকে ১৭ জানুয়ারি সংগ্রহ করা ৬৭টি স্যাম্পলও পজিটিভ। অথচ ৩১ ডিসেম্বরের আগে মার্কিন সেন্টার ফর ডিজেজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেন্টিভকে (সিডিসি) নতুন ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কথা জানায়নি চীন। ডেইলি মেইল, সিএনএন।

ফলে সিডিসির নতুন গবেষণা অনুযায়ী, চীনের কয়েক সপ্তাহ আগেই যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে গত ডিসেম্বরে করোনা ছড়ানোর এ তথ্য পাওয়া গেছে চীনের সংক্রমণের তথ্য লুকানো সংক্রান্ত ফাঁস হওয়া কিছু নথি থেকে। সিডিসির গবেষকরা ১৩ ডিসেম্বর থেকে ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত মার্কিন ডোনারদের দেয়া স্যাম্পলের ১ দশমিক ৪ শতাংশে করোনার অ্যান্টিবডি পেয়েছেন। রেডক্রস ওই ব্লাড সংগ্রহ করে। আর আনুষ্ঠানিকভাবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম করোনাভাইরাস আক্রান্তের খবর জানানো হয় ১৯ জানুয়ারি। এর ১২ দিন আগে ৮ জানুয়ারি চীনে নিউমোনিয়ার মতো ভাইরাস পাওয়ার ঘোষণা দেয় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস চীনের বানানো ও ইচ্ছাকৃতভাবে ছড়িয়ে দেয়া বলে দাবি করে আসছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এমনকি একে তিনি ‘চায়না ভাইরাস’ বলে উপহাসও করেছেন বহুবার।

প্রতিশ্রুত টিকা সরবরাহে তৈরি চীন : করোনাভাইরাসের তীব্র সংক্রমণের সময় বিশ্বজুড়ে ভ্যাকসিন সরবরাহ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল চীন। এখন তারা প্রতিশ্রুত সে টিকা সরবরাহের প্রস্তুতি প্রায় শেষপর্যায়ে নিয়ে এসেছে। দক্ষিণ চীনের শেনজেন বিমানবন্দরে বিদেশে পাঠানোর টিকা রাখার জন্য বড় ধরনের ওয়্যারহাউস প্রস্তুত হচ্ছে।

চীনের কয়েক সপ্তাহ আগেই করোনা ছড়ায় যুক্তরাষ্ট্রে

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনাভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীন এমন তথ্য অনেকটা প্রতিষ্ঠিত হলেও মার্কিন বিজ্ঞানীরা অ্যান্টিবডি পরীক্ষা করে প্রমাণ পেয়েছেন, চীনের কয়েক সপ্তাহ আগেই যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছিল। সাত হাজার ৩০০ ব্যক্তির রক্ত পরীক্ষা করে ১০৬টির মধ্যে করোনাভাইরাসের এন্টিবডি পাওয়া গেছে। এর মধ্যে গত বছরের ডিসেম্বরের ১৩ থেকে ১৬ তারিখ ক্যালিফোর্নিয়া, ওয়াশিংটন ও অরেগন থেকে নেয়া ৩৯ জনের রক্তে করোনাভাইরাস পজিটিভ এসেছে। ৩০ ডিসেম্বর থেকে ১৭ জানুয়ারি সংগ্রহ করা ৬৭টি স্যাম্পলও পজিটিভ। অথচ ৩১ ডিসেম্বরের আগে মার্কিন সেন্টার ফর ডিজেজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেন্টিভকে (সিডিসি) নতুন ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কথা জানায়নি চীন। ডেইলি মেইল, সিএনএন।

ফলে সিডিসির নতুন গবেষণা অনুযায়ী, চীনের কয়েক সপ্তাহ আগেই যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে গত ডিসেম্বরে করোনা ছড়ানোর এ তথ্য পাওয়া গেছে চীনের সংক্রমণের তথ্য লুকানো সংক্রান্ত ফাঁস হওয়া কিছু নথি থেকে। সিডিসির গবেষকরা ১৩ ডিসেম্বর থেকে ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত মার্কিন ডোনারদের দেয়া স্যাম্পলের ১ দশমিক ৪ শতাংশে করোনার অ্যান্টিবডি পেয়েছেন। রেডক্রস ওই ব্লাড সংগ্রহ করে। আর আনুষ্ঠানিকভাবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম করোনাভাইরাস আক্রান্তের খবর জানানো হয় ১৯ জানুয়ারি। এর ১২ দিন আগে ৮ জানুয়ারি চীনে নিউমোনিয়ার মতো ভাইরাস পাওয়ার ঘোষণা দেয় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস চীনের বানানো ও ইচ্ছাকৃতভাবে ছড়িয়ে দেয়া বলে দাবি করে আসছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এমনকি একে তিনি ‘চায়না ভাইরাস’ বলে উপহাসও করেছেন বহুবার।

প্রতিশ্রুত টিকা সরবরাহে তৈরি চীন : করোনাভাইরাসের তীব্র সংক্রমণের সময় বিশ্বজুড়ে ভ্যাকসিন সরবরাহ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল চীন। এখন তারা প্রতিশ্রুত সে টিকা সরবরাহের প্রস্তুতি প্রায় শেষপর্যায়ে নিয়ে এসেছে। দক্ষিণ চীনের শেনজেন বিমানবন্দরে বিদেশে পাঠানোর টিকা রাখার জন্য বড় ধরনের ওয়্যারহাউস প্রস্তুত হচ্ছে।