পরমাণু স্থাপনা তালিকা বিনিময় ভারত পাকিস্তানের
jugantor
পরমাণু স্থাপনা তালিকা বিনিময় ভারত পাকিস্তানের

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৩ জানুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

একে অপরের সঙ্গে পরমাণু স্থাপনা ও বন্দি তালিকা বিনিময় করল ভারত ও পাকিস্তান। শনিবার নিজ নিজ দেশের হেফাজতে থাকা বেসামরিক বন্দি, জেলে এবং তাদের পারমাণবিক স্থাপনার তালিকা বিনিময় করেছে প্রতিবেশী দেশ দুটি।

ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ২০০৮ সালের চুক্তির বিধান অনুযায়ী কূটনীতিক চ্যানেলের মাধ্যমে এই বেসামরিক বন্দি ও জেলেদের তালিকা বিনিময় হয়।

দ্বিপাক্ষিক চুক্তির অধীনে ২৬৩ জন পাকিস্তানি বেসামরিক বন্দি ও সে দেশের হেফাজতে থাকা ৭৭ জন জেলের তালিকা পাকিস্তানের কাছে হস্তান্তর করেছে ভারত।

অন্য দিকে, পাকিস্তান তার হেফাজতে থাকা ৪৯ জন বেসামরিক বন্দি ও ২৭০ জন জেলের তালিকা ভারতের কাছে হস্তান্তর করেছে। উভয় দেশ তাদের বেসামরিক বন্দি ও জেলেদের নৌকাসহ অবিলম্বে মুক্তি ও প্রত্যাবাসনের জন্য নিজ নিজ পক্ষের সংশ্লিষ্টদের এখানে ডেকেছিল।

তবে ভারত ও পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক চুক্তির অধীনে পারমাণবিক স্থাপনার তালিকা বিনিময় করেছে, যা উভয় দেশকে পরস্পরের পারমাণবিক স্থাপনায় আক্রমণ নিষিদ্ধ করেছে। ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আজ এক পৃথক বিবৃতিতে জানিয়েছে, নয়াদিল্লি ও ইসলামাবাদ কূটনৈতিক চ্যানেলের মাধ্যমে একই সঙ্গে এই বিনিময় করে।

এতে বলা হয়, ‘চুক্তি অনুযায়ী ভারত ও পাকিস্তান পরমাণু স্থাপনাগুলো সম্পর্কে একে অপরকে প্রত্যেক বছরের জানুয়ারির প্রথম দিনে জানানোর কথা রয়েছে। ১৯৮৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর স্বাক্ষরিত এই চুক্তিটি ১৯৯১ সালের ২৭ জানুয়ারিতে কার্যকর হয়েছিল।’

এটি দুই দেশের মধ্যে এ ধরনের তালিকার পর ৩০তম মতবিনিময়, যেটি প্রথমবারের মতো ১৯৯২ সালের ১ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়েছিল। কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে উভয় দেশের মধ্যে শীতল সম্পর্ক ও সীমান্ত সন্ত্রাসবাদের মধ্যেও পারমাণবিক স্থাপনার তালিকার এই বিনিময় করা হয়। দুই দেশের সীমান্তে প্রায়ই প্রতিপক্ষের হামলার ঘটনা ঘটে থাকে।

এতে সম্প্রতি উভয় দেশের সামরিক বাহিনীর বহু সদস্য প্রাণ হারিয়েছেন। দ্বিপাক্ষিক চুক্তি অনুযায়ী, পারমাণবিক স্থাপনা তালিকা ও বন্দি বিনিময়ের মধ্য দিয়ে নতুন বছরে উভয় দেশের সম্পর্কের বরফ গললে সেটি হবে ইতিবাচক।

কাশ্মীর ও নানা ইস্যুতে পরস্পর বিপরীত মেরুতে থাকা দেশ দুটির সম্পর্ক অম্লমধুর থাকে সব সময়। দ্য হিন্দু

পরমাণু স্থাপনা তালিকা বিনিময় ভারত পাকিস্তানের

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৩ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

একে অপরের সঙ্গে পরমাণু স্থাপনা ও বন্দি তালিকা বিনিময় করল ভারত ও পাকিস্তান। শনিবার নিজ নিজ দেশের হেফাজতে থাকা বেসামরিক বন্দি, জেলে এবং তাদের পারমাণবিক স্থাপনার তালিকা বিনিময় করেছে প্রতিবেশী দেশ দুটি।

ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ২০০৮ সালের চুক্তির বিধান অনুযায়ী কূটনীতিক চ্যানেলের মাধ্যমে এই বেসামরিক বন্দি ও জেলেদের তালিকা বিনিময় হয়।

দ্বিপাক্ষিক চুক্তির অধীনে ২৬৩ জন পাকিস্তানি বেসামরিক বন্দি ও সে দেশের হেফাজতে থাকা ৭৭ জন জেলের তালিকা পাকিস্তানের কাছে হস্তান্তর করেছে ভারত।

অন্য দিকে, পাকিস্তান তার হেফাজতে থাকা ৪৯ জন বেসামরিক বন্দি ও ২৭০ জন জেলের তালিকা ভারতের কাছে হস্তান্তর করেছে। উভয় দেশ তাদের বেসামরিক বন্দি ও জেলেদের নৌকাসহ অবিলম্বে মুক্তি ও প্রত্যাবাসনের জন্য নিজ নিজ পক্ষের সংশ্লিষ্টদের এখানে ডেকেছিল।

তবে ভারত ও পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক চুক্তির অধীনে পারমাণবিক স্থাপনার তালিকা বিনিময় করেছে, যা উভয় দেশকে পরস্পরের পারমাণবিক স্থাপনায় আক্রমণ নিষিদ্ধ করেছে। ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আজ এক পৃথক বিবৃতিতে জানিয়েছে, নয়াদিল্লি ও ইসলামাবাদ কূটনৈতিক চ্যানেলের মাধ্যমে একই সঙ্গে এই বিনিময় করে।

এতে বলা হয়, ‘চুক্তি অনুযায়ী ভারত ও পাকিস্তান পরমাণু স্থাপনাগুলো সম্পর্কে একে অপরকে প্রত্যেক বছরের জানুয়ারির প্রথম দিনে জানানোর কথা রয়েছে। ১৯৮৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর স্বাক্ষরিত এই চুক্তিটি ১৯৯১ সালের ২৭ জানুয়ারিতে কার্যকর হয়েছিল।’

এটি দুই দেশের মধ্যে এ ধরনের তালিকার পর ৩০তম মতবিনিময়, যেটি প্রথমবারের মতো ১৯৯২ সালের ১ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়েছিল। কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে উভয় দেশের মধ্যে শীতল সম্পর্ক ও সীমান্ত সন্ত্রাসবাদের মধ্যেও পারমাণবিক স্থাপনার তালিকার এই বিনিময় করা হয়। দুই দেশের সীমান্তে প্রায়ই প্রতিপক্ষের হামলার ঘটনা ঘটে থাকে।

এতে সম্প্রতি উভয় দেশের সামরিক বাহিনীর বহু সদস্য প্রাণ হারিয়েছেন। দ্বিপাক্ষিক চুক্তি অনুযায়ী, পারমাণবিক স্থাপনা তালিকা ও বন্দি বিনিময়ের মধ্য দিয়ে নতুন বছরে উভয় দেশের সম্পর্কের বরফ গললে সেটি হবে ইতিবাচক।

কাশ্মীর ও নানা ইস্যুতে পরস্পর বিপরীত মেরুতে থাকা দেশ দুটির সম্পর্ক অম্লমধুর থাকে সব সময়। দ্য হিন্দু

 

ঘটনাপ্রবাহ : কাশ্মীর সংকট