আগে ভ্যাকসিন পাবেন না নেতারা : মোদি
jugantor
১৬ জানুয়ারি টিকা শুরু
আগে ভ্যাকসিন পাবেন না নেতারা : মোদি

  কৃষ্ণকুমার দাস, কলকাতা থেকে  

১৩ জানুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ভারতজুড়ে আগামী শনিবার থেকে করোনা টিকাকরণ কর্মসূচি শুরু হচ্ছে। সরকারের নীতি মেনে শুরুতেই প্রথম সারির তিন কোটি করোনাযোদ্ধাদের (ফ্রন্টলাইনার) টিকা দেওয়া হবে।

চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, সাফইকর্মী থেকে শুরু করে পুলিশ কর্মীরাও প্রথম তালিকায় রয়েছেন।

টিকাকরণ নিয়ে দেশের বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করার পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানান, ‘রাজনৈতিক নেতারা টিকা দেওয়া শুরু হতেই ঝাঁপিয়ে পড়বেন না, সবার মতো আপনাদেরও অপেক্ষা করতে হবে। নেতাদের আগে টিকা দেওয়া হবে না, আগে টিকা পাবেন কোভিড যোদ্ধারা।’

দিনকয়েক আগে প্রথমে হরিয়ানা সরকার এবং তারপর ওড়িশা সরকারের পক্ষ থেকে প্রথম দফার টিকাকরণে সংসদ সদস্য ও বিধায়কদের নাম রাখার জন্য কেন্দ্রের কাছে আবেদন জানিয়েছিল।

মোদির নির্দেশে মঙ্গলবার ভোর থেকে কলকাতাসহ দেশের সব রাজ্যে পৌঁছে গিয়েছে অক্সফোর্ডের টিকা কোভিশিল্ড। আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি, শনিবার থেকে ভারতের সব রাজ্যে প্রথম দফায় প্রায় তিন কোটি করোনার ভ্যাকসিন দেওয়া হবে।

কলকাতায় এদিন বিকালে বিশেষ বিমানে ছয় লাখ ৮৯ হাজার করোনার কোভিশিল্ড টিকা এসে পৌঁছেছে। রাতেই পশ্চিমবঙ্গের সব জেলায় বিশেষ গাড়ি ও কনভয় করে রওয়ানা হয়ে গিয়েছে ভ্যাকসিনগুলো। মোদি বলেন, ‘ভারতের আর্থিক পরিস্থিতি দেখে এই টিকা তৈরি হয়েছে। দুটি টিকাই বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে সস্তা।

বিদেশ থেকে ভ্যাকসিন আমদানি করলে বড় সমস্যার মুখে পড়তে হতো।’

টিকার দাম যে খুব বেশি হবে সেবিষয়ে এদিনই সিলমোহর দিয়েছে টিকা প্রস্তুতকারী সংস্থা সেরামও। সেরাম প্রতিটি টিকার ভারতীয় দাম ২১০ রুপিতেই আটকে রাখছে বলে জানিয়েছে।

১৬ জানুয়ারি টিকা শুরু

আগে ভ্যাকসিন পাবেন না নেতারা : মোদি

 কৃষ্ণকুমার দাস, কলকাতা থেকে 
১৩ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ভারতজুড়ে আগামী শনিবার থেকে করোনা টিকাকরণ কর্মসূচি শুরু হচ্ছে। সরকারের নীতি মেনে শুরুতেই প্রথম সারির তিন কোটি করোনাযোদ্ধাদের (ফ্রন্টলাইনার) টিকা দেওয়া হবে।

চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, সাফইকর্মী থেকে শুরু করে পুলিশ কর্মীরাও প্রথম তালিকায় রয়েছেন।

টিকাকরণ নিয়ে দেশের বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করার পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানান, ‘রাজনৈতিক নেতারা টিকা দেওয়া শুরু হতেই ঝাঁপিয়ে পড়বেন না, সবার মতো আপনাদেরও অপেক্ষা করতে হবে। নেতাদের আগে টিকা দেওয়া হবে না, আগে টিকা পাবেন কোভিড যোদ্ধারা।’

দিনকয়েক আগে প্রথমে হরিয়ানা সরকার এবং তারপর ওড়িশা সরকারের পক্ষ থেকে প্রথম দফার টিকাকরণে সংসদ সদস্য ও বিধায়কদের নাম রাখার জন্য কেন্দ্রের কাছে আবেদন জানিয়েছিল।

মোদির নির্দেশে মঙ্গলবার ভোর থেকে কলকাতাসহ দেশের সব রাজ্যে পৌঁছে গিয়েছে অক্সফোর্ডের টিকা কোভিশিল্ড। আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি, শনিবার থেকে ভারতের সব রাজ্যে প্রথম দফায় প্রায় তিন কোটি করোনার ভ্যাকসিন দেওয়া হবে।

কলকাতায় এদিন বিকালে বিশেষ বিমানে ছয় লাখ ৮৯ হাজার করোনার কোভিশিল্ড টিকা এসে পৌঁছেছে। রাতেই পশ্চিমবঙ্গের সব জেলায় বিশেষ গাড়ি ও কনভয় করে রওয়ানা হয়ে গিয়েছে ভ্যাকসিনগুলো। মোদি বলেন, ‘ভারতের আর্থিক পরিস্থিতি দেখে এই টিকা তৈরি হয়েছে। দুটি টিকাই বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে সস্তা।

বিদেশ থেকে ভ্যাকসিন আমদানি করলে বড় সমস্যার মুখে পড়তে হতো।’

টিকার দাম যে খুব বেশি হবে সেবিষয়ে এদিনই সিলমোহর দিয়েছে টিকা প্রস্তুতকারী সংস্থা সেরামও। সেরাম প্রতিটি টিকার ভারতীয় দাম ২১০ রুপিতেই আটকে রাখছে বলে জানিয়েছে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস