রাশিয়ায় পুতিনবিরোধী বিক্ষোভ
jugantor
রাশিয়ায় পুতিনবিরোধী বিক্ষোভ

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৪ জানুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

রাশিয়ায় প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে ফের বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। বিরোধীদলীয় নেতা ও জনপ্রিয় রাজনীতিক অ্যালেক্সাই নাভালনির গ্রেফতার ও কারাদণ্ডের প্রতিবাদে শনিবার দেশজুড়ে রাস্তায় নামে তার হাজারো সমর্থক। এ সময় পুতিনের বিরুদ্ধে নানা স্লোগান দেয় তারা। বিক্ষোভের শুরুতেই ব্যাপক দমনপীড়ন চালিয়েছে পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনী। আটক করা হয়েছে অন্তত দুই শতাধিক সমর্থককে। এ সময় পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে। আলজাজিরা ও রয়টার্স।

প্রেসিডেন্ট পুতিনের সবচেয়ে শক্তিশালী সমালোচক নাভালনি। সেইসঙ্গে সম্প্রতি তার একচেটিয়া ক্ষমতার প্রতি চ্যালেঞ্জও হয়ে উঠেছেন এই রাজনীতিক। গত বছরের আগস্টে তাকে রাশিয়ায় বিষপ্রয়োগে হত্যাচেষ্টা করা হয়েছিল। এরপর থেকে চিকিৎসার জন্য তিনি বার্লিনে অবস্থান করছিলেন। গত সপ্তাহে (১৭ জানুয়ারি, রোববার) বার্লিন থেকে ফিরে মস্কো বিমানবন্দরে নামার সঙ্গে সঙ্গেই তাকে আটক করা হয়। দেশটির রাজধানী মস্কোর একটি পুলিশ স্টেশনে তাকে আটকে রাখা হয়। এর ২৪ ঘণ্টা না পেরোতেই পুলিশ স্টেশনে একদিনের শুনানি আয়োজন করে বিচারকের নির্দেশে তাকে ৩০ দিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। যার বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সোচ্চার হয়েছেন নাভালনির সমর্থকরা।

প্রিয় নেতার কারাদণ্ডের প্রতিবাদে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিক্ষোভ র‌্যালির ডাক দেয় তার সমর্থকরা। নাভালনের স্ত্রী ইউলিয়া ইনস্টাগ্রামের এক পোস্টে বলেন, তিনি মস্কোর প্রতিবাদে যোগ দেবেন। তিনি বলেন, ‘নিজের জন্য, তার জন্য, আমাদের বাচ্চাদের জন্য, আমরা যে মূল্যবোধ এবং আদর্শের কথা বলি তার জন্য।’ কিন্তু বিরোধী দলের সমর্থক ও স্বাধীন সাংবাদিকদের বিক্ষোভের বিষয়ে সতর্ক করে পুলিশ। একইসঙ্গে দেশটির বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভে অংশ না নেওয়ার জন্যও সতর্ক করা হয়। অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে নিয়ম অনুযায়ী বিভিন্ন ব্যবস্থাসহ বহিষ্কার পর্যন্ত করা হতে পারে। নগরীর মেয়র সের্গেই সোবায়ানিন বলেন, মহামারিকালে সমাবেশের ডাক দেওয়া ‘অগ্রহণযোগ্য’। কর্তৃপক্ষের প্রতিরোধ সত্ত্বেও শনিবার সকালে দেশটির রাজধানী মস্কোসহ ৬০টি শহরে এই বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।

রাশিয়ায় পুতিনবিরোধী বিক্ষোভ

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৪ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

রাশিয়ায় প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে ফের বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। বিরোধীদলীয় নেতা ও জনপ্রিয় রাজনীতিক অ্যালেক্সাই নাভালনির গ্রেফতার ও কারাদণ্ডের প্রতিবাদে শনিবার দেশজুড়ে রাস্তায় নামে তার হাজারো সমর্থক। এ সময় পুতিনের বিরুদ্ধে নানা স্লোগান দেয় তারা। বিক্ষোভের শুরুতেই ব্যাপক দমনপীড়ন চালিয়েছে পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনী। আটক করা হয়েছে অন্তত দুই শতাধিক সমর্থককে। এ সময় পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে। আলজাজিরা ও রয়টার্স।

প্রেসিডেন্ট পুতিনের সবচেয়ে শক্তিশালী সমালোচক নাভালনি। সেইসঙ্গে সম্প্রতি তার একচেটিয়া ক্ষমতার প্রতি চ্যালেঞ্জও হয়ে উঠেছেন এই রাজনীতিক। গত বছরের আগস্টে তাকে রাশিয়ায় বিষপ্রয়োগে হত্যাচেষ্টা করা হয়েছিল। এরপর থেকে চিকিৎসার জন্য তিনি বার্লিনে অবস্থান করছিলেন। গত সপ্তাহে (১৭ জানুয়ারি, রোববার) বার্লিন থেকে ফিরে মস্কো বিমানবন্দরে নামার সঙ্গে সঙ্গেই তাকে আটক করা হয়। দেশটির রাজধানী মস্কোর একটি পুলিশ স্টেশনে তাকে আটকে রাখা হয়। এর ২৪ ঘণ্টা না পেরোতেই পুলিশ স্টেশনে একদিনের শুনানি আয়োজন করে বিচারকের নির্দেশে তাকে ৩০ দিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। যার বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সোচ্চার হয়েছেন নাভালনির সমর্থকরা।

প্রিয় নেতার কারাদণ্ডের প্রতিবাদে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিক্ষোভ র‌্যালির ডাক দেয় তার সমর্থকরা। নাভালনের স্ত্রী ইউলিয়া ইনস্টাগ্রামের এক পোস্টে বলেন, তিনি মস্কোর প্রতিবাদে যোগ দেবেন। তিনি বলেন, ‘নিজের জন্য, তার জন্য, আমাদের বাচ্চাদের জন্য, আমরা যে মূল্যবোধ এবং আদর্শের কথা বলি তার জন্য।’ কিন্তু বিরোধী দলের সমর্থক ও স্বাধীন সাংবাদিকদের বিক্ষোভের বিষয়ে সতর্ক করে পুলিশ। একইসঙ্গে দেশটির বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভে অংশ না নেওয়ার জন্যও সতর্ক করা হয়। অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে নিয়ম অনুযায়ী বিভিন্ন ব্যবস্থাসহ বহিষ্কার পর্যন্ত করা হতে পারে। নগরীর মেয়র সের্গেই সোবায়ানিন বলেন, মহামারিকালে সমাবেশের ডাক দেওয়া ‘অগ্রহণযোগ্য’। কর্তৃপক্ষের প্রতিরোধ সত্ত্বেও শনিবার সকালে দেশটির রাজধানী মস্কোসহ ৬০টি শহরে এই বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।