পাকিস্তানে মুসলিম নেতা গ্রেফতারে বিক্ষোভ
jugantor
পাকিস্তানে মুসলিম নেতা গ্রেফতারে বিক্ষোভ

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৪ এপ্রিল ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

পাকিস্তানে এক মুসলিম নেতাকে গ্রেফতার করার ঘটনায় দেশজুড়ে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। ডানপন্থি রাজনৈতিক দল হিসাবে পরিচিত তেহরিকে লাব্বাইক পাকিস্তানের (টিএলপি) নেতা আল্লামা সাদ রিজভিকে সোমবার গ্রেফতার করে দেশটির পুলিশ। এর প্রতিবাদে বিভিন্ন শহরে প্রতিবাদ বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে। সোমবার বিকাল থেকে এ সহিংসতায় এখন পর্যন্ত অন্তত তিনজন নিহত হয়েছে, পুলিশসহ আহত হয়েছে আরও অনেকেই।

ডন জানায়, ফ্রান্সে ইসলামবিরোধী ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন প্রকাশের ঘটনার জেরে ইসলামাবাদে নিযুক্ত ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের দাবি জানান আল্লামা রিজভি। এরপর পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। ফ্রান্সে গত বছর ইসলামবিরোধী ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন প্রকাশের পর থেকে বিক্ষোভ করে আসছে টিএলপি। ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে ফেরত পাঠানো ও দেশটি থেকে পণ্য আমদানি নিষিদ্ধ ঘোষণার জন্য পাকিস্তান সরকারের প্রতি দাবি জানিয়ে আসছে দলটি।

গত ১৬ নভেম্বর টিএলপির সঙ্গে পাকিস্তান সরকারের চুক্তি হয়। তাদের দাবি নিয়ে পার্লামেন্টে আলোচনার জন্য তিন মাস সময় নেয় সরকার। তবে ১৬ ফেব্রুয়ারি চুক্তির সময়সীমা শেষ হওয়ার আগে সরকার জানায়, এ মুহূর্তে টিএলপির দাবি মানা সম্ভব নয় এবং এর জন্য আরও সময় দরকার। ফলে টিএলপি তাদের দাবি মানার জন্য আরও আড়াই মাস সময় দেয় সরকারকে।

পাকিস্তানে মুসলিম নেতা গ্রেফতারে বিক্ষোভ

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৪ এপ্রিল ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

পাকিস্তানে এক মুসলিম নেতাকে গ্রেফতার করার ঘটনায় দেশজুড়ে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। ডানপন্থি রাজনৈতিক দল হিসাবে পরিচিত তেহরিকে লাব্বাইক পাকিস্তানের (টিএলপি) নেতা আল্লামা সাদ রিজভিকে সোমবার গ্রেফতার করে দেশটির পুলিশ। এর প্রতিবাদে বিভিন্ন শহরে প্রতিবাদ বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে। সোমবার বিকাল থেকে এ সহিংসতায় এখন পর্যন্ত অন্তত তিনজন নিহত হয়েছে, পুলিশসহ আহত হয়েছে আরও অনেকেই।

ডন জানায়, ফ্রান্সে ইসলামবিরোধী ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন প্রকাশের ঘটনার জেরে ইসলামাবাদে নিযুক্ত ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের দাবি জানান আল্লামা রিজভি। এরপর পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। ফ্রান্সে গত বছর ইসলামবিরোধী ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন প্রকাশের পর থেকে বিক্ষোভ করে আসছে টিএলপি। ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে ফেরত পাঠানো ও দেশটি থেকে পণ্য আমদানি নিষিদ্ধ ঘোষণার জন্য পাকিস্তান সরকারের প্রতি দাবি জানিয়ে আসছে দলটি।

গত ১৬ নভেম্বর টিএলপির সঙ্গে পাকিস্তান সরকারের চুক্তি হয়। তাদের দাবি নিয়ে পার্লামেন্টে আলোচনার জন্য তিন মাস সময় নেয় সরকার। তবে ১৬ ফেব্রুয়ারি চুক্তির সময়সীমা শেষ হওয়ার আগে সরকার জানায়, এ মুহূর্তে টিএলপির দাবি মানা সম্ভব নয় এবং এর জন্য আরও সময় দরকার। ফলে টিএলপি তাদের দাবি মানার জন্য আরও আড়াই মাস সময় দেয় সরকারকে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন