মঙ্গলগ্রহে প্রথমবার অক্সিজেন তৈরি করল নাসার রোভার
jugantor
মঙ্গলগ্রহে প্রথমবার অক্সিজেন তৈরি করল নাসার রোভার

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৩ এপ্রিল ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

একের পর এক তৈরি হচ্ছে ইতিহাস। এবার মঙ্গলের বুকে অক্সিজেন তৈরি করল নাসার রোভার পারসিভেরান্স। বুধবার এই সফল প্রয়াসের কথা জানাল মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা। খবর বিবিসির। ‘মঙ্গলগ্রহে বিদ্যমান কার্বন ডাই-অক্সাইড থেকে অক্সিজেন তৈরির ক্ষেত্রে এটি প্রথম ও বড় পদক্ষেপ’ বলে জানালেন নাসার স্পেস টেকনোলজি মিশনের কর্মকর্তা জিম রয়টার। ২০ এপ্রিল সফলভাবে অক্সিজেন তৈরি করে পারসিভেরান্স। ভবিষ্যতে মঙ্গলে মানুষ পাঠানোই এখন নাসা, স্পেসএক্স সংস্থাগুলোর কাছে চ্যালেঞ্জ। কিন্তু মঙ্গলে দীর্ঘ সময় নভোচারীদের থাকার জন্য প্রয়োজন অক্সিজেনযুক্ত বাতাস। সেই কারণেই এই চেষ্টায় সফল হওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

এছাড়া রকেটেও জ্বালানির সুষ্ঠু দহনের জন্য অক্সিজেন প্রয়োজন। মঙ্গলের মাটিতেই যদি অক্সিজেন প্রস্তুত করা যায়, সেক্ষেত্রে সুবিধা হবে। মঙ্গল থেকে ফিরতি পথে সেই অক্সিজেন ব্যবহার করা যাবে রকেটে। পৃথিবী থেকে অতিরিক্ত অক্সিজেন বয়ে

নিয়ে যাওয়ার প্রয়োজন হবে না। এটা একটি সোনালি রঙের বাক্স। পারসিভেরান্স রোভারের সামনের ডানদিকের অংশে এটি রয়েছে। এটিকে যন্ত্র উদ্ভিদ বলেও অভিহিত করা হয়।

মঙ্গলগ্রহে প্রথমবার অক্সিজেন তৈরি করল নাসার রোভার

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৩ এপ্রিল ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

একের পর এক তৈরি হচ্ছে ইতিহাস। এবার মঙ্গলের বুকে অক্সিজেন তৈরি করল নাসার রোভার পারসিভেরান্স। বুধবার এই সফল প্রয়াসের কথা জানাল মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা। খবর বিবিসির। ‘মঙ্গলগ্রহে বিদ্যমান কার্বন ডাই-অক্সাইড থেকে অক্সিজেন তৈরির ক্ষেত্রে এটি প্রথম ও বড় পদক্ষেপ’ বলে জানালেন নাসার স্পেস টেকনোলজি মিশনের কর্মকর্তা জিম রয়টার। ২০ এপ্রিল সফলভাবে অক্সিজেন তৈরি করে পারসিভেরান্স। ভবিষ্যতে মঙ্গলে মানুষ পাঠানোই এখন নাসা, স্পেসএক্স সংস্থাগুলোর কাছে চ্যালেঞ্জ। কিন্তু মঙ্গলে দীর্ঘ সময় নভোচারীদের থাকার জন্য প্রয়োজন অক্সিজেনযুক্ত বাতাস। সেই কারণেই এই চেষ্টায় সফল হওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

এছাড়া রকেটেও জ্বালানির সুষ্ঠু দহনের জন্য অক্সিজেন প্রয়োজন। মঙ্গলের মাটিতেই যদি অক্সিজেন প্রস্তুত করা যায়, সেক্ষেত্রে সুবিধা হবে। মঙ্গল থেকে ফিরতি পথে সেই অক্সিজেন ব্যবহার করা যাবে রকেটে। পৃথিবী থেকে অতিরিক্ত অক্সিজেন বয়ে

নিয়ে যাওয়ার প্রয়োজন হবে না। এটা একটি সোনালি রঙের বাক্স। পারসিভেরান্স রোভারের সামনের ডানদিকের অংশে এটি রয়েছে। এটিকে যন্ত্র উদ্ভিদ বলেও অভিহিত করা হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন