মিয়ানমারে সেনা প্রশিক্ষণ নিচ্ছে জনগণ
jugantor
মিয়ানমারে সেনা প্রশিক্ষণ নিচ্ছে জনগণ

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৬ মে ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কয়েক ডজন সশস্ত্র যুবক। হামাগুড়ি দিচ্ছে কাদামাটিযুক্ত পথের ওপর। যতটা সম্ভব কোনো শব্দ না করে একটি টার্গেটকে লক্ষ্য করে এগিয়ে যাচ্ছে তারা। এরপর কমান্ডারের নির্দেশে রাইফেল নিয়ে এক এক করে গুলি ছুড়ছে। মিয়ানমারের সীমান্তবর্তী গহিন বনের মধ্যে একটি ছোট্ট গ্রামে এভাবেই চলছে সামরিক প্রশিক্ষণ। মূলত অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলকারী জান্তার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে অস্ত্র চালানোর মৌলিক কিছু কৌশল শেখানো হচ্ছে। অংশ নিয়েছে শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে ডাক্তার-ইঞ্জিনিয়ারহ নানা শ্রেণিপেশার মানুষ। মিয়ানমারের জান্তাবিরোধী এই সশস্ত্র যুদ্ধের নেতৃত্ব দিচ্ছে সু চি দল নিয়ন্ত্রিত দেশটির ছায়া সরকার মিয়ানমার ‘এন্টি জান্তা ইউনিটি গর্ভনমেন্ট’। বুধবার এক বিবৃতিতে তারা বলেছে, মিয়ানমারের অভ্যুত্থানবিরোধী জনগণকে সেনাবাহিনীর হাত থেকে বাঁচাতে একটি সশস্ত্র প্রতিরক্ষা বাহিনী গড়ে তোলা হয়েছে।’ সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মিয়ানমারে দ্রুতই সশস্ত্র বিদ্রোহের দিকে এগোচ্ছে অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভকারীরা। বিভিন্ন জাতিগত বিদ্রোহী গ্রুপের সহযোগিতায় জান্তাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নামতে বদ্ধপরিকর তরুণ-যুবারা। কারেন, বাগো, মিন্দাত-সীমান্তবর্তী বিভিন্ন এলাকায় গোপনে সামরিক প্রশিক্ষণ অব্যাহত রেখেছে তারা।

মিয়ানমারে সেনা প্রশিক্ষণ নিচ্ছে জনগণ

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৬ মে ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কয়েক ডজন সশস্ত্র যুবক। হামাগুড়ি দিচ্ছে কাদামাটিযুক্ত পথের ওপর। যতটা সম্ভব কোনো শব্দ না করে একটি টার্গেটকে লক্ষ্য করে এগিয়ে যাচ্ছে তারা। এরপর কমান্ডারের নির্দেশে রাইফেল নিয়ে এক এক করে গুলি ছুড়ছে। মিয়ানমারের সীমান্তবর্তী গহিন বনের মধ্যে একটি ছোট্ট গ্রামে এভাবেই চলছে সামরিক প্রশিক্ষণ। মূলত অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলকারী জান্তার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে অস্ত্র চালানোর মৌলিক কিছু কৌশল শেখানো হচ্ছে। অংশ নিয়েছে শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে ডাক্তার-ইঞ্জিনিয়ারহ নানা শ্রেণিপেশার মানুষ। মিয়ানমারের জান্তাবিরোধী এই সশস্ত্র যুদ্ধের নেতৃত্ব দিচ্ছে সু চি দল নিয়ন্ত্রিত দেশটির ছায়া সরকার মিয়ানমার ‘এন্টি জান্তা ইউনিটি গর্ভনমেন্ট’। বুধবার এক বিবৃতিতে তারা বলেছে, মিয়ানমারের অভ্যুত্থানবিরোধী জনগণকে সেনাবাহিনীর হাত থেকে বাঁচাতে একটি সশস্ত্র প্রতিরক্ষা বাহিনী গড়ে তোলা হয়েছে।’ সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মিয়ানমারে দ্রুতই সশস্ত্র বিদ্রোহের দিকে এগোচ্ছে অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভকারীরা। বিভিন্ন জাতিগত বিদ্রোহী গ্রুপের সহযোগিতায় জান্তাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নামতে বদ্ধপরিকর তরুণ-যুবারা। কারেন, বাগো, মিন্দাত-সীমান্তবর্তী বিভিন্ন এলাকায় গোপনে সামরিক প্রশিক্ষণ অব্যাহত রেখেছে তারা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন