আফগানিস্তানে পুঁতে রাখা বোমায় উড়ে গেল বাস
jugantor
আফগানিস্তানে পুঁতে রাখা বোমায় উড়ে গেল বাস
ঈদ উপলক্ষ্যে তিন দিনের যুদ্ধবিরতি

  যুগান্তর ডেস্ক  

১১ মে ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আফগানিস্তানে রাস্তার পাশে পুঁতে রাখা বোমা বিস্ফোরণে একটি বাস উড়ে গিয়ে অন্তত ১১ যাত্রী নিহত ও ২৪ জন আহত হয়েছেন। রোববার রাতে দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশ জাবুলে ঘটনাটি ঘটেছে। আহতদের মধ্যে নারী ও শিশু আছে বলে জানিয়েছেন তিনি। তাৎক্ষণিকভাবে কোনো গোষ্ঠী হামলার দায় স্বীকার করেনি। সোমবার প্রাদেশিক গভর্নরের মুখপাত্র গুল ইসলাম সিয়াল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। পারওয়ান প্রদেশে একটি মিনিবাসে বোমা হামলায় আরও দুজন নিহত এবং অন্তত নয়জন আহত হয়েছেন। সোমবার সকালের এ ঘটনার তথ্য নিশ্চিত করেছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। খবর আলজাজিরা ও আরব নিউজের। মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের মধ্যেই আফগানিস্তানে একের পর এক প্রাণঘাতী হামলার ঘটনা ঘটে চলছে। শনিবার দেশটির রাজধানী কাবুলে একটি স্কুলের সামনে গাড়ি বোমা ও মর্টার হামলায় অন্তত ৬৮ জন নিহত ও ১৬৫ জন আহত হন। হতাহতের অধিকাংশই ওই স্কুলটির ছাত্রী। প্রায় ২০ বছর ‘শান্তিরক্ষা’র যুদ্ধ শেষে সম্প্রতি আগামী ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সব সেনা সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এরপর থেকেই এশিয়ার দেশটিতে হামলা-সহিংসতা ব্যাপকভাবে বেড়ে গেছে।

এদিকে মুসলিম সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে আফগানিস্তানের সশস্ত্র গোষ্ঠী তালেবান তিনদিনের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছে। এ ঘোষণা এমন এক সময়ে এলো যখন দুদিন আগে দেশটির শিয়া অধ্যুষিত অঞ্চলে একটি গার্লস স্কুলের কাছে বোমা হামলায় প্রায় ৬০ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের অধিকাংশই ছিলেন স্কুলছাত্রী। যদিও এই হামলার দায় অস্বীকার করেছে তালেবান। সোমবার এক বিবৃতিতে তালেবানের পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘ইসলামিক আমিরাতের মুজাহিদিনদের ঈদুল ফিতরের প্রথম দিন থেকে তৃতীয় দিন পর্যন্ত শত্রুর বিরুদ্ধে দেশব্যাপী সব আক্রমণাত্মক কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হলো।’ এতে আরও বলা হয়, ‘তবে এই দিনগুলোর মধ্যে শত্রুরা যদি আপনাদের বিরুদ্ধে কোনো হামলা চালায়, শক্তভাবে তা প্রতিহত করতে এবং নিজেদের ও নিজের এলাকা রক্ষা করতে প্রস্তুত থাকুন।’ রমজানে এক মাস সিয়াম সাধনার পর মুসলিমরা ঈদুল ফিতর উৎসব উদযাপন করেন। গত বছরও তালেবান মুসলিমদের উৎসব উপলক্ষ্যে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছিল। আফগান সরকারও সাধারণত যুদ্ধবিরতিতে সায় দিয়ে থাকে।

আফগানিস্তানে পুঁতে রাখা বোমায় উড়ে গেল বাস

ঈদ উপলক্ষ্যে তিন দিনের যুদ্ধবিরতি
 যুগান্তর ডেস্ক 
১১ মে ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আফগানিস্তানে রাস্তার পাশে পুঁতে রাখা বোমা বিস্ফোরণে একটি বাস উড়ে গিয়ে অন্তত ১১ যাত্রী নিহত ও ২৪ জন আহত হয়েছেন। রোববার রাতে দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশ জাবুলে ঘটনাটি ঘটেছে। আহতদের মধ্যে নারী ও শিশু আছে বলে জানিয়েছেন তিনি। তাৎক্ষণিকভাবে কোনো গোষ্ঠী হামলার দায় স্বীকার করেনি। সোমবার প্রাদেশিক গভর্নরের মুখপাত্র গুল ইসলাম সিয়াল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। পারওয়ান প্রদেশে একটি মিনিবাসে বোমা হামলায় আরও দুজন নিহত এবং অন্তত নয়জন আহত হয়েছেন। সোমবার সকালের এ ঘটনার তথ্য নিশ্চিত করেছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। খবর আলজাজিরা ও আরব নিউজের। মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের মধ্যেই আফগানিস্তানে একের পর এক প্রাণঘাতী হামলার ঘটনা ঘটে চলছে। শনিবার দেশটির রাজধানী কাবুলে একটি স্কুলের সামনে গাড়ি বোমা ও মর্টার হামলায় অন্তত ৬৮ জন নিহত ও ১৬৫ জন আহত হন। হতাহতের অধিকাংশই ওই স্কুলটির ছাত্রী। প্রায় ২০ বছর ‘শান্তিরক্ষা’র যুদ্ধ শেষে সম্প্রতি আগামী ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সব সেনা সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এরপর থেকেই এশিয়ার দেশটিতে হামলা-সহিংসতা ব্যাপকভাবে বেড়ে গেছে।

এদিকে মুসলিম সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে আফগানিস্তানের সশস্ত্র গোষ্ঠী তালেবান তিনদিনের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছে। এ ঘোষণা এমন এক সময়ে এলো যখন দুদিন আগে দেশটির শিয়া অধ্যুষিত অঞ্চলে একটি গার্লস স্কুলের কাছে বোমা হামলায় প্রায় ৬০ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের অধিকাংশই ছিলেন স্কুলছাত্রী। যদিও এই হামলার দায় অস্বীকার করেছে তালেবান। সোমবার এক বিবৃতিতে তালেবানের পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘ইসলামিক আমিরাতের মুজাহিদিনদের ঈদুল ফিতরের প্রথম দিন থেকে তৃতীয় দিন পর্যন্ত শত্রুর বিরুদ্ধে দেশব্যাপী সব আক্রমণাত্মক কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হলো।’ এতে আরও বলা হয়, ‘তবে এই দিনগুলোর মধ্যে শত্রুরা যদি আপনাদের বিরুদ্ধে কোনো হামলা চালায়, শক্তভাবে তা প্রতিহত করতে এবং নিজেদের ও নিজের এলাকা রক্ষা করতে প্রস্তুত থাকুন।’ রমজানে এক মাস সিয়াম সাধনার পর মুসলিমরা ঈদুল ফিতর উৎসব উদযাপন করেন। গত বছরও তালেবান মুসলিমদের উৎসব উপলক্ষ্যে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছিল। আফগান সরকারও সাধারণত যুদ্ধবিরতিতে সায় দিয়ে থাকে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন