ভারতে একদিনে মৃত্যুর বিশ্বরেকর্ড
jugantor
ভারতে একদিনে মৃত্যুর বিশ্বরেকর্ড

  যুগান্তর ডেস্ক  

১১ জুন ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনায় একদিনে মৃত্যুর বিশ্বরেকর্ড ভারতে সৃষ্টি হলো। বৃহস্পতিবারের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ৯৪ হাজার ৫২ জন। মারা গেছে ছয় হাজার ১৪৮ জন। এর আগে একদিনে এত সংখ্যক লোকের মৃত্যু দেখেনি বিশ্ব। যুক্তরাষ্ট্রে ১২ ফেব্রুয়ারি সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড হয়েছিল, যা ছিল ৫ হাজার ৪৪৪ জন। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস। নতুন করে এত সংখ্যক মৃত্যু নিয়ে ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে, বিহার রাজ্য সরকার তাদের মৃত্যুর প্রায় তিন হাজার ৯৫১ জনের তথ্য সংযোজন করেনি। যা তারা আজ একদিনে সংযোজন করেছে যে কারণেই মৃতের সংখ্যা এক লাফে এত বেড়েছে। অতিরিক্ত এই সংখ্যা বাদ দিলে ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় মূলত মৃত্যু হয়েছে দুই হাজার ১৬৭ জনের। হিন্দুস্তান টাইমসের তথ্য মতে, হঠাৎ করেই বিহারে কোভিডে মৃত্যুর হার বেড়ে গেছে ৭২.৮৪ শতাংশ। এত অল্প সময়ের মধ্যে এত দ্রুত মৃত্যু দেখে টনক নড়ে দেশটির স্বাস্থ্য দপ্তরের। বিহারের ৩৮টি জেলার কোভিডে মৃত্যুর হার যাচাই করে দেখা যায়, গত ১৮ মে পাটনা হাইকোর্টের নির্দেশের পরেই বিহার সরকার স্বীকার করে নেয়, তিন হাজার ৯৫১টি মৃত্যু অতিরিক্ত হয়েছে। যেগুলো হিসাবের মধ্যে ছিল না এতদিন। আগের দিন যেখানে মোট সংখ্যা ছিল পাঁচ হাজার ৪২৪ জন, সেখানে পরের দিন ভালোভাবে যাচাই করার পর মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ায় ৯ হাজার ৩৭৫ জনে। তবে বিহার সরকারের অতিরিক্ত সচিবের দাবি, বেসরকারি হাসপাতালে, হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরার পথে, হোম আইসোলেশনে ও কোভিড-পরবর্তী ক্ষেত্রে নানা জটিলতার কারণেই তাদের মৃত্যু হয়েছে। সেই হিসাবগুলো আগে ধরা হয়নি। অনন্ত চারটি জেলায় দেখা যাচ্ছে রাতারাতি হিসাব ২২২ শতাংশ বেড়ে গিয়েছে। ভারতের পাটনাতে এই হিসাব বেড়েছে ৮৭.৪৮ শতাংশ।

ভারতে একদিনে মৃত্যুর বিশ্বরেকর্ড

 যুগান্তর ডেস্ক 
১১ জুন ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনায় একদিনে মৃত্যুর বিশ্বরেকর্ড ভারতে সৃষ্টি হলো। বৃহস্পতিবারের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ৯৪ হাজার ৫২ জন। মারা গেছে ছয় হাজার ১৪৮ জন। এর আগে একদিনে এত সংখ্যক লোকের মৃত্যু দেখেনি বিশ্ব। যুক্তরাষ্ট্রে ১২ ফেব্রুয়ারি সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড হয়েছিল, যা ছিল ৫ হাজার ৪৪৪ জন। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস। নতুন করে এত সংখ্যক মৃত্যু নিয়ে ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে, বিহার রাজ্য সরকার তাদের মৃত্যুর প্রায় তিন হাজার ৯৫১ জনের তথ্য সংযোজন করেনি। যা তারা আজ একদিনে সংযোজন করেছে যে কারণেই মৃতের সংখ্যা এক লাফে এত বেড়েছে। অতিরিক্ত এই সংখ্যা বাদ দিলে ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় মূলত মৃত্যু হয়েছে দুই হাজার ১৬৭ জনের। হিন্দুস্তান টাইমসের তথ্য মতে, হঠাৎ করেই বিহারে কোভিডে মৃত্যুর হার বেড়ে গেছে ৭২.৮৪ শতাংশ। এত অল্প সময়ের মধ্যে এত দ্রুত মৃত্যু দেখে টনক নড়ে দেশটির স্বাস্থ্য দপ্তরের। বিহারের ৩৮টি জেলার কোভিডে মৃত্যুর হার যাচাই করে দেখা যায়, গত ১৮ মে পাটনা হাইকোর্টের নির্দেশের পরেই বিহার সরকার স্বীকার করে নেয়, তিন হাজার ৯৫১টি মৃত্যু অতিরিক্ত হয়েছে। যেগুলো হিসাবের মধ্যে ছিল না এতদিন। আগের দিন যেখানে মোট সংখ্যা ছিল পাঁচ হাজার ৪২৪ জন, সেখানে পরের দিন ভালোভাবে যাচাই করার পর মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ায় ৯ হাজার ৩৭৫ জনে। তবে বিহার সরকারের অতিরিক্ত সচিবের দাবি, বেসরকারি হাসপাতালে, হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরার পথে, হোম আইসোলেশনে ও কোভিড-পরবর্তী ক্ষেত্রে নানা জটিলতার কারণেই তাদের মৃত্যু হয়েছে। সেই হিসাবগুলো আগে ধরা হয়নি। অনন্ত চারটি জেলায় দেখা যাচ্ছে রাতারাতি হিসাব ২২২ শতাংশ বেড়ে গিয়েছে। ভারতের পাটনাতে এই হিসাব বেড়েছে ৮৭.৪৮ শতাংশ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন