ইরানের ৩৬টি ওয়েবসাইট বন্ধ করেছে যুক্তরাষ্ট্র
jugantor
ইরানের ৩৬টি ওয়েবসাইট বন্ধ করেছে যুক্তরাষ্ট্র

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৪ জুন ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ইরান সংশ্লিষ্ট ৩৬টি ওয়েবসাইট বন্ধ করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ‘বিভ্রান্তি ছড়ানো’ ও ‘সহিংস সংগঠনের’ সঙ্গে জড়িত থাকার কারণ দেখিয়ে মঙ্গলবার ওয়েবসাইটগুলোর ডোমেইন জব্দ করে মার্কিন বিচার বিভাগ। তবে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে বিকল্প ডোমেইনের মাধ্যমে সাইটগুলো আবার চালু করা হয়েছে। বন্ধ করা ওয়েবসাইটের মধ্যে আছে ইরান সরকারের ইংরেজি ভাষার প্রধান স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল- প্রেস টিভি এবং এর আরবি সংস্করণ আল আলম টিভি। ইরানি আলআলম.আইআর এবং প্রেসটিভি আইআর ডোমেইন ব্যবহার করে দুটো টিভি চ্যানেলই অনলাইনে ফিরে এসেছে। রয়টার্স।

পশ্চিমাদের কঠোর সমালোচক ইরানের কট্টরপন্থি নেতা ইব্রাহিম রাইসি ইরানের নতুন প্রেসিডেন্ট হিসাবে নির্বাচিত হওয়ার কয়েক দিনের মধ্যে এমন পদক্ষেপ নিল যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় আদালতের রায়ে যুক্তরাষ্ট্র আজ ইরানিয়ান ইসলামিক রেডিও অ্যান্ড টেলিভিশন ইউনিয়নের ব্যবহার করা ৩৩টি ওয়েবসাইট এবং কাতাইব হিজবাল্লাহ পরিচালিত ৩টি ওয়েবসাইট বন্ধ করেছে।’ কাতাইব হিজবুল্লাহকে ইরানসমর্থিত ইরাকি ‘সশস্ত্র গোষ্ঠী’ উল্লেখ করে যুক্তরাষ্ট্রের ঘোষণা করা বিদেশি সন্ত্রাসী সংগঠন হিসাবে অভিহিত করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের কোম্পানি ‘আইআরটিভিইউ’ এর মালিকানায় ৩৩টি ডোমেইন ব্যবহার করা হতে। কিন্তু ডোমেইন ব্যবহারের জন্য ‘ট্রেজারিজ অফিস অব ফরেইন অ্যাসেটস কন্ট্রোল’ থেকে নিবন্ধন করেনি আইআরটিভিইউ। বিবৃতিতে জানানো হয়, কাতাইব হিজবুল্লাহর পক্ষ থেকেও কোনো ডোমেইন নিবন্ধন নেওয়া হয়নি। মঙ্গলবার ইরানের সঙ্গে সম্পর্কিত ওয়েবসাইটগুলোকে নোটিশ দিয়ে জানানো হয়, আইনি ব্যবস্থা হিসাবে তাদের বন্ধ করেছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার। ইরানি সংবাদ সংস্থাগুলো জানিয়েছে, ইরানের বেশ কিছু গণমাধ্যমের ওয়েবসাইট এবং ইরানসমর্থিত গোষ্ঠী ইমেনের ‘হুথি মুভমেন্টের’ মতো সংগঠনগুলোর সাইট বন্ধ করেছে জো বাইডেন সরকার। হুথি পরিচালিত আরবি ভাষার মাসিরাহ টিভির ওয়েবসাইটে বলা হয়, ‘বন্ধ করার পরোয়ানা দিয়ে আলমাসিরাহডটনেট ডোমেইন জব্দ করেছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার আইনি ব্যবস্থা হিসাবে ব্যুরো অব ইন্ডাস্ট্রি অ্যান্ড সিকিউরিটি, অফিস অব এক্সপোর্ট এনফোর্সমেন্ট এবং ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন এ পদক্ষেপ নিয়েছে।’

ইরানের ৩৬টি ওয়েবসাইট বন্ধ করেছে যুক্তরাষ্ট্র

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৪ জুন ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ইরান সংশ্লিষ্ট ৩৬টি ওয়েবসাইট বন্ধ করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ‘বিভ্রান্তি ছড়ানো’ ও ‘সহিংস সংগঠনের’ সঙ্গে জড়িত থাকার কারণ দেখিয়ে মঙ্গলবার ওয়েবসাইটগুলোর ডোমেইন জব্দ করে মার্কিন বিচার বিভাগ। তবে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে বিকল্প ডোমেইনের মাধ্যমে সাইটগুলো আবার চালু করা হয়েছে। বন্ধ করা ওয়েবসাইটের মধ্যে আছে ইরান সরকারের ইংরেজি ভাষার প্রধান স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল- প্রেস টিভি এবং এর আরবি সংস্করণ আল আলম টিভি। ইরানি আলআলম.আইআর এবং প্রেসটিভি আইআর ডোমেইন ব্যবহার করে দুটো টিভি চ্যানেলই অনলাইনে ফিরে এসেছে। রয়টার্স।

পশ্চিমাদের কঠোর সমালোচক ইরানের কট্টরপন্থি নেতা ইব্রাহিম রাইসি ইরানের নতুন প্রেসিডেন্ট হিসাবে নির্বাচিত হওয়ার কয়েক দিনের মধ্যে এমন পদক্ষেপ নিল যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় আদালতের রায়ে যুক্তরাষ্ট্র আজ ইরানিয়ান ইসলামিক রেডিও অ্যান্ড টেলিভিশন ইউনিয়নের ব্যবহার করা ৩৩টি ওয়েবসাইট এবং কাতাইব হিজবাল্লাহ পরিচালিত ৩টি ওয়েবসাইট বন্ধ করেছে।’ কাতাইব হিজবুল্লাহকে ইরানসমর্থিত ইরাকি ‘সশস্ত্র গোষ্ঠী’ উল্লেখ করে যুক্তরাষ্ট্রের ঘোষণা করা বিদেশি সন্ত্রাসী সংগঠন হিসাবে অভিহিত করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের কোম্পানি ‘আইআরটিভিইউ’ এর মালিকানায় ৩৩টি ডোমেইন ব্যবহার করা হতে। কিন্তু ডোমেইন ব্যবহারের জন্য ‘ট্রেজারিজ অফিস অব ফরেইন অ্যাসেটস কন্ট্রোল’ থেকে নিবন্ধন করেনি আইআরটিভিইউ। বিবৃতিতে জানানো হয়, কাতাইব হিজবুল্লাহর পক্ষ থেকেও কোনো ডোমেইন নিবন্ধন নেওয়া হয়নি। মঙ্গলবার ইরানের সঙ্গে সম্পর্কিত ওয়েবসাইটগুলোকে নোটিশ দিয়ে জানানো হয়, আইনি ব্যবস্থা হিসাবে তাদের বন্ধ করেছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার। ইরানি সংবাদ সংস্থাগুলো জানিয়েছে, ইরানের বেশ কিছু গণমাধ্যমের ওয়েবসাইট এবং ইরানসমর্থিত গোষ্ঠী ইমেনের ‘হুথি মুভমেন্টের’ মতো সংগঠনগুলোর সাইট বন্ধ করেছে জো বাইডেন সরকার। হুথি পরিচালিত আরবি ভাষার মাসিরাহ টিভির ওয়েবসাইটে বলা হয়, ‘বন্ধ করার পরোয়ানা দিয়ে আলমাসিরাহডটনেট ডোমেইন জব্দ করেছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার আইনি ব্যবস্থা হিসাবে ব্যুরো অব ইন্ডাস্ট্রি অ্যান্ড সিকিউরিটি, অফিস অব এক্সপোর্ট এনফোর্সমেন্ট এবং ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন এ পদক্ষেপ নিয়েছে।’

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন