একজনকে হত্যার কার্বন ছাড়ে ৩ জন আমেরিকান
jugantor
ছোট খবর
একজনকে হত্যার কার্বন ছাড়ে ৩ জন আমেরিকান

   

৩০ জুলাই ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

‘তিন জন আমেরিকান তাদের দৈনন্দিন বিলাসিতায় যে পরিমাণ কার্বন নির্গমন করে তা প্রতিদিন একজন মানুষ হত্যা করতে সক্ষম যথেষ্ট পরিমাণ উষ্ণতা সৃষ্টি করে। আর দেশটির একটি কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে যে পরিমাণ কার্বন নিঃসরণ হয় তা ৯শ’রও বেশি প্রাণহানির জন্য দায়ী।’ কার্বন নিঃসরণের প্রাণহানিজনিত ক্ষতি বিশ্লেষণ করা প্রথম গবেষণায় ভয়ংকর এ তথ্য উঠে এসেছে। ‘কার্বনের সামাজিক ব্যয়’ শীর্ষক এই গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০২০ সালে নির্গমন হারের বাইরে বায়ুমণ্ডলে চার হাজার ৪৩৪ টন সিও২ প্রবেশ করেছে। এতে দেখা যায়, বিশ্বব্যাপী একজন ব্যক্তি অতিরিক্ত তামপাত্রার কারণে অকালে মৃত্যুবরণ করেন। এই বাড়তি সিও২ বর্তমানে ৩.৫ জন আমেরিকানের গড় নিঃসরণের সমতুল্য। গবেষণায় দেখা যায়, যুক্তরাষ্ট্রের কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রে গড়ে যে পরিমাণ নিঃসরণ হয় তা গত বছরের চেয়ে চার মিলিয়ন টন বেশি, যা এই শতাব্দীর শেষ নাগাদ ৯০৪ জন মানুষের প্রাণহানির জন্য দায়ী।

ছোট খবর

একজনকে হত্যার কার্বন ছাড়ে ৩ জন আমেরিকান

  
৩০ জুলাই ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

‘তিন জন আমেরিকান তাদের দৈনন্দিন বিলাসিতায় যে পরিমাণ কার্বন নির্গমন করে তা প্রতিদিন একজন মানুষ হত্যা করতে সক্ষম যথেষ্ট পরিমাণ উষ্ণতা সৃষ্টি করে। আর দেশটির একটি কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে যে পরিমাণ কার্বন নিঃসরণ হয় তা ৯শ’রও বেশি প্রাণহানির জন্য দায়ী।’ কার্বন নিঃসরণের প্রাণহানিজনিত ক্ষতি বিশ্লেষণ করা প্রথম গবেষণায় ভয়ংকর এ তথ্য উঠে এসেছে। ‘কার্বনের সামাজিক ব্যয়’ শীর্ষক এই গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০২০ সালে নির্গমন হারের বাইরে বায়ুমণ্ডলে চার হাজার ৪৩৪ টন সিও২ প্রবেশ করেছে। এতে দেখা যায়, বিশ্বব্যাপী একজন ব্যক্তি অতিরিক্ত তামপাত্রার কারণে অকালে মৃত্যুবরণ করেন। এই বাড়তি সিও২ বর্তমানে ৩.৫ জন আমেরিকানের গড় নিঃসরণের সমতুল্য। গবেষণায় দেখা যায়, যুক্তরাষ্ট্রের কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রে গড়ে যে পরিমাণ নিঃসরণ হয় তা গত বছরের চেয়ে চার মিলিয়ন টন বেশি, যা এই শতাব্দীর শেষ নাগাদ ৯০৪ জন মানুষের প্রাণহানির জন্য দায়ী।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন