ভাতিজির বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ প্রেসিডেন্টের
jugantor
প্যান্ডোরা পেপারস
ভাতিজির বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ প্রেসিডেন্টের

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৮ অক্টোবর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

‘ভাতিজি-জামাই বলে দুর্নীতির বিচার হবে না’ জনগণের এমন আশঙ্কাকে উড়িয়ে দিলেন শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট গোতাবায়ে রাজাপাকসে। প্যান্ডোরা পেপারসে মঙ্গলবার ভাতিজি নিরুপমা রাজাপাকসে ও তার স্বামী থিরুকুমার নাদেসানের বিরুদ্ধে লাখ লাখ ডলার বিদেশে জমা রাখার তথ্য ফাঁস হলে বুধবার তদের বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দেন প্রেসিডেন্ট গোতাবায়ে রাজাপাকসে। নিরুপমা রাজাপাকসে প্রেসিডেন্ট গোতাবায়ে ও প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসের চাচাত ভাই জর্জ রাজাপাকসের মেয়ে। এএফপি। মন্ত্রিপরিষদের মুখপাত্র ডুলস আলাহাপ্পারুমা বলেন, প্রেসিডেন্ট প্রধান দুর্নীতিবিরোধী সংস্থাকে নিরুপমা রাজাপাকসে এবং তার স্বামী তিরুকুমার নাদেসানের সম্পদের প্রতিবেদন এক মাসের মধ্যে জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

বামপন্থি বিরোধীদলীয় বিধায়ক অনুরা দিসানায়েকে বলেন, সর্বশেষ তদন্তের প্রতি তাদের সামান্যই বিশ্বাস আছে, এটি তিনি বলেছেন জনসাধারণের ক্ষোভ দূর করার জন্য। তিনি বলেন, ‘তদন্ত মানে হচ্ছে সত্যকে দমন এবং অপরাধীদের রক্ষা করার একটা প্রক্রিয়া।’ ৫৯ বছর বয়সি নিরুপমা তার চাচা মাহিন্দা রাজাপাকসের সরকারের সময় ২০০৪ সালে থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত এমপি ছিলেন। এ ছাড়া পাঁচ বছরের জন্য একজন জুনিয়র মন্ত্রী ছিলেন। বর্তমানে মাহিন্দা রাজাপাকসে প্রধানমন্ত্রী।

বিশ্বজুড়ে সরকারপ্রধান, রাজনীতিক, সরকারি কর্মকর্তা, সেলেব্রিটি, ব্যবসায়ীদের প্রায় এক কোটি ১০ লাখ ডকুমেন্ট ফাঁস হয়েছে, যা প্যান্ডোরা পেপারস নামে পরিচিত। তার মধ্যে রয়েছে নিরুপমা রাজাপাকসে ও তার স্বামীর নাম। এই তালিকায় যারা আছেন, তাদের বিরুদ্ধে নানা রকম অভিযোগ আছে। বলা হয়েছে, তারা দুর্নীতি থেকে অর্থ পাচার এবং আয়কর ফাঁকি দেওয়ার সঙ্গে যুক্ত। ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অব ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্টস (আইসিআইজে) নিরুপমা রাজাপাকসে ও তার স্বামী নাদেসানের আর্থিক বিবরণী বিশ্লেষণ করেছে। তাতে দেখা গেছে, তারা ২০১৭ সালে প্রায় এক কোটি ৮০ লাখ ডলার বিনিয়োগ করেছেন অফশোর হোল্ডিংসে। নাদেসানের দীর্ঘদিনের উপদেষ্টা সিঙ্গাপুরভিত্তিক আর্থিক সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান এশিয়াসিটি ট্রাস্ট।

প্যান্ডোরা পেপারস

ভাতিজির বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ প্রেসিডেন্টের

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৮ অক্টোবর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

‘ভাতিজি-জামাই বলে দুর্নীতির বিচার হবে না’ জনগণের এমন আশঙ্কাকে উড়িয়ে দিলেন শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট গোতাবায়ে রাজাপাকসে। প্যান্ডোরা পেপারসে মঙ্গলবার ভাতিজি নিরুপমা রাজাপাকসে ও তার স্বামী থিরুকুমার নাদেসানের বিরুদ্ধে লাখ লাখ ডলার বিদেশে জমা রাখার তথ্য ফাঁস হলে বুধবার তদের বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দেন প্রেসিডেন্ট গোতাবায়ে রাজাপাকসে। নিরুপমা রাজাপাকসে প্রেসিডেন্ট গোতাবায়ে ও প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসের চাচাত ভাই জর্জ রাজাপাকসের মেয়ে। এএফপি। মন্ত্রিপরিষদের মুখপাত্র ডুলস আলাহাপ্পারুমা বলেন, প্রেসিডেন্ট প্রধান দুর্নীতিবিরোধী সংস্থাকে নিরুপমা রাজাপাকসে এবং তার স্বামী তিরুকুমার নাদেসানের সম্পদের প্রতিবেদন এক মাসের মধ্যে জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

বামপন্থি বিরোধীদলীয় বিধায়ক অনুরা দিসানায়েকে বলেন, সর্বশেষ তদন্তের প্রতি তাদের সামান্যই বিশ্বাস আছে, এটি তিনি বলেছেন জনসাধারণের ক্ষোভ দূর করার জন্য। তিনি বলেন, ‘তদন্ত মানে হচ্ছে সত্যকে দমন এবং অপরাধীদের রক্ষা করার একটা প্রক্রিয়া।’ ৫৯ বছর বয়সি নিরুপমা তার চাচা মাহিন্দা রাজাপাকসের সরকারের সময় ২০০৪ সালে থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত এমপি ছিলেন। এ ছাড়া পাঁচ বছরের জন্য একজন জুনিয়র মন্ত্রী ছিলেন। বর্তমানে মাহিন্দা রাজাপাকসে প্রধানমন্ত্রী।

বিশ্বজুড়ে সরকারপ্রধান, রাজনীতিক, সরকারি কর্মকর্তা, সেলেব্রিটি, ব্যবসায়ীদের প্রায় এক কোটি ১০ লাখ ডকুমেন্ট ফাঁস হয়েছে, যা প্যান্ডোরা পেপারস নামে পরিচিত। তার মধ্যে রয়েছে নিরুপমা রাজাপাকসে ও তার স্বামীর নাম। এই তালিকায় যারা আছেন, তাদের বিরুদ্ধে নানা রকম অভিযোগ আছে। বলা হয়েছে, তারা দুর্নীতি থেকে অর্থ পাচার এবং আয়কর ফাঁকি দেওয়ার সঙ্গে যুক্ত। ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অব ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্টস (আইসিআইজে) নিরুপমা রাজাপাকসে ও তার স্বামী নাদেসানের আর্থিক বিবরণী বিশ্লেষণ করেছে। তাতে দেখা গেছে, তারা ২০১৭ সালে প্রায় এক কোটি ৮০ লাখ ডলার বিনিয়োগ করেছেন অফশোর হোল্ডিংসে। নাদেসানের দীর্ঘদিনের উপদেষ্টা সিঙ্গাপুরভিত্তিক আর্থিক সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান এশিয়াসিটি ট্রাস্ট।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন