১৫শ বছর আগের মদের কারখানা
jugantor
১৫শ বছর আগের মদের কারখানা

  অনলাইন ডেস্ক  

১২ অক্টোবর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

অসংখ্য কামরা। কোনোটা গোলাকার, কোনোটা চারকোনা। একটার সঙ্গে আরেকটা সংযুক্ত। সোমবার বিশাল স্থাপনাটির ধ্বংসাবশেষ আবিষ্কার করেছে ইসরাইলের একটি পুরাতাত্ত্বিক দল। ইসরাইলের মধ্যাঞ্চলে তেল ইয়াভনে এলাকায় অবস্থিত এই স্থাপনাটিকে একটি মদের কারখানা বলে নিশ্চিত হয়েছেন তারা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কারখানাটি প্রায় ১৫শ বছর আগের বাইজানটাইন আমলের এবং এখন পর্যন্ত খুঁজে পাওয়া সবচেয়ে বড় কারখানা। এখানে প্রতি বছর অন্তত ২০ লাখ লিটার মদ তৈরি করা হতো বলে মনে করা হচ্ছে। কারখানার মধ্যে মদ তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় পাত্রও পাওয়া গেছে। এর আগে চলতি বছরের শুরুর দিকে মিসরে পাঁচ হাজার বছরেরও বেশি সময় আগের একটি মদের কারখানার খোঁজ পাওয়ার দাবি করে একদল প্রত্নতাত্ত্বিক। নর্থ আবিডোজ শহরের সহাজ এলাকায় মিসর ও যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্নতাত্ত্বিকরা মাটির নিচে বিশালাকৃতির কারখানাটি আবিষ্কার করেন -এএফপি

১৫শ বছর আগের মদের কারখানা

 অনলাইন ডেস্ক 
১২ অক্টোবর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

অসংখ্য কামরা। কোনোটা গোলাকার, কোনোটা চারকোনা। একটার সঙ্গে আরেকটা সংযুক্ত। সোমবার বিশাল স্থাপনাটির ধ্বংসাবশেষ আবিষ্কার করেছে ইসরাইলের একটি পুরাতাত্ত্বিক দল। ইসরাইলের মধ্যাঞ্চলে তেল ইয়াভনে এলাকায় অবস্থিত এই স্থাপনাটিকে একটি মদের কারখানা বলে নিশ্চিত হয়েছেন তারা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কারখানাটি প্রায় ১৫শ বছর আগের বাইজানটাইন আমলের এবং এখন পর্যন্ত খুঁজে পাওয়া সবচেয়ে বড় কারখানা। এখানে প্রতি বছর অন্তত ২০ লাখ লিটার মদ তৈরি করা হতো বলে মনে করা হচ্ছে। কারখানার মধ্যে মদ তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় পাত্রও পাওয়া গেছে। এর আগে চলতি বছরের শুরুর দিকে মিসরে পাঁচ হাজার বছরেরও বেশি সময় আগের একটি মদের কারখানার খোঁজ পাওয়ার দাবি করে একদল প্রত্নতাত্ত্বিক। নর্থ আবিডোজ শহরের সহাজ এলাকায় মিসর ও যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্নতাত্ত্বিকরা মাটির নিচে বিশালাকৃতির কারখানাটি আবিষ্কার করেন -এএফপি

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন