ট্রাম্পের জন্য কিমের দুয়ার খোলা

প্রকাশ : ২৬ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর ডেস্ক

ছবি: এএফপি

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জন্য দুয়ার খোলা রেখেছেন উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতা কিম জং উন। দুই নেতার মধ্যে প্রস্তাবিত বৈঠক ট্রাম্প বাতিল করে দিলেও পিয়ংইয়ং বলছে, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ‘যে কোনো সময়, যে কোনো আকারে’ আলোচনায় বসতে এখনও ইচ্ছুক উত্তর কোরিয়া। খবর বিবিসির।

বৃহস্পতিবার কিমের কাছে লেখা এক চিঠিতে ট্রাম্প বৈঠকটি বাতিলের সিদ্ধান্তের কথা জানান। কারণ হিসেবে তিনি উত্তর কোরীয় নেতার সাম্প্রতিক বিবৃতিতে ‘তীব্র ক্ষোভ ও প্রকাশ্য শত্র“তা’ থাকার কথা উল্লেখ করেন।

তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় উত্তর কোরিয়ার উপ-পররাষ্ট্র মন্ত্রী কিম ক্যায়া-গোয়ান মার্কিন প্রেসিডেন্টের এ ঘোষণাকে ‘অত্যন্ত দুঃখজনক’ হিসেবে অভিহিত করেন। তিনি বলেন, উত্তেজনা নিরসন ও ওয়াশিংটনের সঙ্গে বিদ্যমান দূরত্ব কমাতে ওয়াশিংটনের সঙ্গে ‘যে কোনো সময়’ কথা বলতে প্রস্তুত পিয়ংইয়ং।

উপ-পররাষ্ট্র মন্ত্রীকে উদ্ধৃত করে দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম কেসিএনএ জানায়, ‘শীর্ষ বৈঠক বাতিলে তার হঠাৎ ও একতরফা এ সিদ্ধান্ত আমাদের জন্য অনেকটাই অপ্রত্যাশিত, আমরা অত্যন্ত দুঃখিত।’ কয়েক দশক ধরে মুখোমুখি অবস্থানে থাকা দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইনের সঙ্গে উত্তরের শীর্ষ নেতা কিম জং উনের বৈঠকের পর কোরীয় উপদ্বীপে শান্তি ফেরার আশা করা হচ্ছিল।

বৈরিতার অবসান ঘটিয়ে কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করতে একসঙ্গে কাজ করারও ঘোষণা দিয়েছিলেন দুই নেতা। এ মাসের শুরুতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর উত্তর কোরিয়া সফরের পরপরই কিমের সঙ্গে বৈঠকের তারিখ ও স্থান নির্ধারিত হওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন ট্রাম্প।

জুনে সিঙ্গাপুরে প্রস্তাবিত ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হলে, তা হতো দায়িত্বপ্রাপ্ত কোনো মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে উত্তরের কোনো শীর্ষ নেতার প্রথম মুখোমুখি বৈঠক।মে মাসের মাঝামাঝি দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের যৌথ সামরিক মহড়া নিয়ে পিয়ংইয়ং তীব্র প্রতিক্রিয়া জানায়।

এরপর ট্রাম্পের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের ক্ষেত্রে ‘লিবিয়া মডেল’ অনুসরণ করা হতে পারে এমনটা বললে বৈঠক নিয়ে অনিশ্চয়তা শুরু হয়।