তাইওয়ান ঘিরে আবার নতুন মহড়া চীনের
jugantor
তাইওয়ান ঘিরে আবার নতুন মহড়া চীনের

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৯ আগস্ট ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

তাইওয়ানের সীমানা ঘিরে আবার সামরিক মহড়া শুরু করেছে চীন। আগের সপ্তাহে, ছয় দিনব্যাপী মহড়ার শেষ দিন ছিল রোববার। কিন্তু ‘তল্পিতল্পা’ গুটিয়ে না ফিরে রাত পোহাতেই আবার হাজির চীনা সামরিক বহর। সঙ্গে যোগ হয়েছে নতুন কৌশল। সোমবার চীনের পূর্ব থিয়েটার কমান্ড জানান, এটি একটি যৌথ সামরিক মহড়া। আন্তঃসাবমেরিন এবং নৌবহর হামলা এবারের মূল লক্ষ্য। এর মধ্য দিয়ে চীনকে নিয়ে নিরাপত্তা বিশ্লেষকদের আশঙ্কা সত্যে রূপান্তরিত হলো। তাদের ধারণা ছিল, এখন থেকে প্রতিনিয়ত তাইওয়ানকে চাপের মুখে রাখবে দেশটি। বেইজিংয়ের এমন আচরণের তীব্র নিন্দা জানান তাইওয়ানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জোসেফ উ। বলেন, ‘দেশটির অবিরত প্ররোচনা এবং ইচ্ছাকৃতভাবে সমস্যা/সংকট তৈরির চেষ্টা করছে।’ চীনকে অবিলম্বে হুমকিমূলক মহড়া থামিয়ে ‘সীমান্ত থেকে সরে দাঁড়াতে’ হবে। বক্তব্যে আরও বলেন, ‘তাইওয়ান চীনের দেখানো সামরিক ভয়-ভীতিতে ভয়ও পাবে না, পিছুও হটবে না। পরিবর্তে, আরও দৃঢ়ভাবে রক্ষা করবে এর সার্বভৌমত্ব, জাতীয় নিরাপত্তা, স্বাধীন এবং গণতান্ত্রিক উপায়ে জীবনযাপন।’ তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, রোববারও তাইওয়ান প্রণালি এবং আশপাশে ৬৬টি চীনা যুদ্ধবিমান ও ১৪টি যুদ্ধ জাহাজের তৎপরতা চলেছে। এখন পর্যন্ত নতুন মহড়ার সময়কাল এবং স্থান নিয়ে কিছু জানা যায়নি।

এবার পীত ও বোহাই সাগরে চীনের সামরিক মহড়া : তাইওয়ানের পাশাপাশি এবার দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে পীত সাগর ও পাশের বোহাই সাগরে নতুন সামরিক মহড়া শুরুর ঘোষণা দিয়েছে চীন। খবর বিবিসি ও ওয়াশিংটন পোস্টের।

চীনের মেরিটাইম সেফটি প্রশাসন জানিয়েছে, চীনের পূর্বাঞ্চলীয় উপকূলে বোহাই? সাগরের চারটি অঞ্চলে সোমবার থেকে এক মাস ধরে সামরিক মহড়া চলবে। এ ছাড়া পীত সাগরের পাঁচটি অঞ্চলে মহড়া চলবে ১৫ আগস্ট পর্যন্ত। এসব মহড়ায় তাজা গুলি ব্যবহার হবে। শনিবার এই মহড়ার ঘোষণা দেয় চীন।

তাইওয়ান ঘিরে আবার নতুন মহড়া চীনের

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৯ আগস্ট ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

তাইওয়ানের সীমানা ঘিরে আবার সামরিক মহড়া শুরু করেছে চীন। আগের সপ্তাহে, ছয় দিনব্যাপী মহড়ার শেষ দিন ছিল রোববার। কিন্তু ‘তল্পিতল্পা’ গুটিয়ে না ফিরে রাত পোহাতেই আবার হাজির চীনা সামরিক বহর। সঙ্গে যোগ হয়েছে নতুন কৌশল। সোমবার চীনের পূর্ব থিয়েটার কমান্ড জানান, এটি একটি যৌথ সামরিক মহড়া। আন্তঃসাবমেরিন এবং নৌবহর হামলা এবারের মূল লক্ষ্য। এর মধ্য দিয়ে চীনকে নিয়ে নিরাপত্তা বিশ্লেষকদের আশঙ্কা সত্যে রূপান্তরিত হলো। তাদের ধারণা ছিল, এখন থেকে প্রতিনিয়ত তাইওয়ানকে চাপের মুখে রাখবে দেশটি। বেইজিংয়ের এমন আচরণের তীব্র নিন্দা জানান তাইওয়ানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জোসেফ উ। বলেন, ‘দেশটির অবিরত প্ররোচনা এবং ইচ্ছাকৃতভাবে সমস্যা/সংকট তৈরির চেষ্টা করছে।’ চীনকে অবিলম্বে হুমকিমূলক মহড়া থামিয়ে ‘সীমান্ত থেকে সরে দাঁড়াতে’ হবে। বক্তব্যে আরও বলেন, ‘তাইওয়ান চীনের দেখানো সামরিক ভয়-ভীতিতে ভয়ও পাবে না, পিছুও হটবে না। পরিবর্তে, আরও দৃঢ়ভাবে রক্ষা করবে এর সার্বভৌমত্ব, জাতীয় নিরাপত্তা, স্বাধীন এবং গণতান্ত্রিক উপায়ে জীবনযাপন।’ তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, রোববারও তাইওয়ান প্রণালি এবং আশপাশে ৬৬টি চীনা যুদ্ধবিমান ও ১৪টি যুদ্ধ জাহাজের তৎপরতা চলেছে। এখন পর্যন্ত নতুন মহড়ার সময়কাল এবং স্থান নিয়ে কিছু জানা যায়নি।

এবার পীত ও বোহাই সাগরে চীনের সামরিক মহড়া : তাইওয়ানের পাশাপাশি এবার দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে পীত সাগর ও পাশের বোহাই সাগরে নতুন সামরিক মহড়া শুরুর ঘোষণা দিয়েছে চীন। খবর বিবিসি ও ওয়াশিংটন পোস্টের।

চীনের মেরিটাইম সেফটি প্রশাসন জানিয়েছে, চীনের পূর্বাঞ্চলীয় উপকূলে বোহাই? সাগরের চারটি অঞ্চলে সোমবার থেকে এক মাস ধরে সামরিক মহড়া চলবে। এ ছাড়া পীত সাগরের পাঁচটি অঞ্চলে মহড়া চলবে ১৫ আগস্ট পর্যন্ত। এসব মহড়ায় তাজা গুলি ব্যবহার হবে। শনিবার এই মহড়ার ঘোষণা দেয় চীন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন