খেজুর পাতায় কুরআনের পাণ্ডুলিপির সন্ধান
jugantor
ছোট খবর
খেজুর পাতায় কুরআনের পাণ্ডুলিপির সন্ধান

   

১৯ আগস্ট ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সম্প্রতি ইন্দোনেশিয়ায় ২০০ বছরের পুরোনো খেজুর পাতায় লেখা পবিত্র কুরআনের একটি পাণ্ডুলিপি পাওয়া গেছে।

ইন্দোনেশিয়ায় প্রচলিত খেজুর পাতার ঝুলন্ত পালমিরায় পাংগুটিক পদ্ধতি ব্যবহার করে পাণ্ডুলিপিটি লেখা হয়েছে। ইন্দোনেশিয়ায় অবশ্য ‘কাভি’ লিখন পদ্ধতিতে কুরআন লিপিবদ্ধ করাই ঐতিহ্য। সেই ঐতিহ্য থেকে সরে এসে ঝুলন্ত পালমিরায় পাংগুটিক পদ্ধতি ব্যবহার করে কুরআনের পাণ্ডুলিপিটি লেখা হয়েছে। খবর জিওটিভি। মূল আয়াতগুলো কালো কালি দিয়ে লেখা এবং বিরাম চিহ্নগুলো কিছুটা ভিন্ন কালো কালি দিয়ে চিহ্নিত করা হয়েছে। এতে কুরআনের মোট সাতটি সুরা লিপিবদ্ধ আছে। এর জন্য ৩৫টি খেজুর পাতা ব্যবহার করা হয়েছে। ১০৫ সেমি দৈর্ঘ্য ও ৩৭ সেমি প্রস্থ প্রতিটি খেজুর পাতায় তিনটি করে লাইন লেখা আছে। পরে পাতাগুলো মোটা সুতা দিয়ে সংযুক্ত করে মেহেগনি কাঠের বাক্সে সংরক্ষণ করা হয়েছে।

ছোট খবর

খেজুর পাতায় কুরআনের পাণ্ডুলিপির সন্ধান

  
১৯ আগস্ট ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সম্প্রতি ইন্দোনেশিয়ায় ২০০ বছরের পুরোনো খেজুর পাতায় লেখা পবিত্র কুরআনের একটি পাণ্ডুলিপি পাওয়া গেছে।

ইন্দোনেশিয়ায় প্রচলিত খেজুর পাতার ঝুলন্ত পালমিরায় পাংগুটিক পদ্ধতি ব্যবহার করে পাণ্ডুলিপিটি লেখা হয়েছে। ইন্দোনেশিয়ায় অবশ্য ‘কাভি’ লিখন পদ্ধতিতে কুরআন লিপিবদ্ধ করাই ঐতিহ্য। সেই ঐতিহ্য থেকে সরে এসে ঝুলন্ত পালমিরায় পাংগুটিক পদ্ধতি ব্যবহার করে কুরআনের পাণ্ডুলিপিটি লেখা হয়েছে। খবর জিওটিভি। মূল আয়াতগুলো কালো কালি দিয়ে লেখা এবং বিরাম চিহ্নগুলো কিছুটা ভিন্ন কালো কালি দিয়ে চিহ্নিত করা হয়েছে। এতে কুরআনের মোট সাতটি সুরা লিপিবদ্ধ আছে। এর জন্য ৩৫টি খেজুর পাতা ব্যবহার করা হয়েছে। ১০৫ সেমি দৈর্ঘ্য ও ৩৭ সেমি প্রস্থ প্রতিটি খেজুর পাতায় তিনটি করে লাইন লেখা আছে। পরে পাতাগুলো মোটা সুতা দিয়ে সংযুক্ত করে মেহেগনি কাঠের বাক্সে সংরক্ষণ করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন