আসামের তালিকা থেকে বাদ যাবে ২০ লাখ নাগরিক

প্রকাশ : ১৫ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর ডেস্ক

চাপের মুখে কিছুটা পিছু হঠল ভারত সরকার। আসামের নাগরিক তালিকার চূড়ান্ত খসড়া থেকে বাদ যেতে পারে ২০ লাখ মানুষের নাম। এই ইঙ্গিতই দিয়েছেন ন্যাশনাল রেজিস্ট্রার অফ সিটিজেনস বা এনআরসির এক কর্মকর্তা।

খসড়া এনআরসিতে ৪০ লাখ মানুষের নাম উঠেছিল। তারপরই দেশজুড়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে আন্দোলন দানা বাঁধে। সব থেকে তীব্র প্রতিবাদ করেন তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি। কংগ্রেসও প্রতিবাদ জানায়। সেই প্রতিবাদের জেরেই চূড়ান্ত তালিকা থেকে ২০ লাখ নাম ছেঁটে ফেলা হচ্ছে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল। খবর এনডিটিভির।

ওই অফিসার আরও জানান, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মানুষকে তাদের নাগরিকত্বের বৈধতাপত্র জমা দেয়ার জন্য সময়সীমা ৩০ আগস্ট থেকে বাড়িয়ে ২৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত করেছে। এই বর্ধিত সময়সীমার তালিকা অনুমোদনের জন্য সুপ্রিমকোর্টে জমা দেবে মন্ত্রণালয়।

মামলার পরবর্তী শুনানি আগামী ১৬ তারিখ। তবে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল এই সময়সীমা ডিসেম্বর পর্যন্ত করার দাবি করেছে। কারণ শুধু ওই ৪০ লাখের দাবিপত্র এবং বৈধতাপত্রই নয়, আরও নতুন অনেক দাবিপত্রও খতিয়ে দেখা হবে। সেজন্যই সময়সীমা বাড়ানোর দাবি করেছে অন্য রাজনৈতিক দলগুলো।

কীভাবে দাবিপত্র জমা দেবেন মানুষরা তা বোঝাতে অসমে সচেতনতা প্রচার চালাবে মন্ত্রণালয়। সন্দেহজনক ভোটারদের নিয়ে কী করা যাবে তা নিয়ে এখনও দ্বিধায় আছে মোদি সরকার।