৭২তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

২০২২ সালে মহাকাশ জয়ের প্রত্যয় মোদির

ভারত ‘ঘুমন্ত হাতি’ জেগে উঠেছে * রাশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের পর মহাশূন্যে মানুষ পাঠানো চতুর্থ দেশ হবে ভারত * ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে চালু হচ্ছে ‘আয়ুষ্মান ভারত’ স্বাস্থ্য যোজনা

  যুগান্তর ডেস্ক ১৬ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

২০২২ সালে প্রথমবারের মতো ভারত মহাশূন্যে মানুষ পাঠাবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বুধবার দিল্লির লালকেল্লায় ভারতের ৭২তম স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে মোদি বহুল প্রতীক্ষিত এ ঘোষণা দেন। ভাষণে বিশ্বের বৃহত্তম সরকারি ফান্ডে পরিচালিত স্বাস্থ্যসেবা প্রকল্প ‘আয়ুষ্মান ভারত’ চালুর কথাও জানান তিনি। প্রায় ৮০ মিনিটের বক্তব্যে গত চার বছরে সরকারের সাফল্যের খতিয়ান পেশ করেন মোদি। লালকেল্লার মঞ্চ থেকেই যেন আসন্ন লোকসভা নির্বাচনী প্রচারের পতাকা তুলে ধরলেন প্রধানমন্ত্রী।

এনডিটিভি জানায়, মোদির ঘোষণা বাস্তবায়িত হলে রাশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের পর মহাশূন্যে মানুষ পাঠানো চতুর্থ দেশ হবে ভারত। আগামী বছর ভারতের পরবর্তী সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তার আগে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে এটাই মোদির শেষ স্বাধীনতা দিবসের ভাষণ। বক্তব্যের শুরুতেই মোদি দেশবাসীকে স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা জানান। তিনি বলেন, ‘আগামী ২০২২ এ যখন ভারত স্বাধীনতার ৭৫ বছর পূর্ণ করবে তখন ভারতের একজন পুত্র অথবা একজন কন্যা তেরঙ্গা (ভারতের জাতীয় পতাকা) হাতে নিয়ে মহাশূন্যে যাবে।’ ভারতের মহাকাশ সংস্থা আইএসআরও ২০২২ সালের ওই মহাকাশ মিশনের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

প্রধানমন্ত্রীর এ ঘোষণায় আশাবাদী আইএসআরও’র চেয়ারম্যান কে শিবন। তিনি বলেন, ‘গত এক দশক ধরেই মহাকাশচারী পাঠানোর পরিকল্পনা করছে ইসরো।’ ‘ব্যোম’ নামের ওই প্রকল্পে ‘গগনযান’ চড়ে মহাকাশে যাবেন ভারতবাসী। ওই মহাকাশচারীকে ‘ব্যোমচারী’ হিসেবে উল্লেখ করার পরিকল্পনা রয়েছে ভারত সরকারের।

ভাষণে মোদি আরও জানিয়েছেন, সরকার আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর দীনদয়াল উপাধ্যায়ের জন্ম দিবস থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে ভারতের দরিদ্র নাগরিকদের জন্য চিকিৎসা বীমা স্কিম চালু করতে যাচ্ছে। তিনি বলেন, ‘ভারতের দরিদ্রদের ভালোমানের সাশ্রয়ী স্বাস্থ্যসেবা পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করার এটিই সঠিক সময়।’ ‘আয়ুষ্মান ভারত’ নামের এই কর্মসূচিটি ভারতের ৫০ কোটি দরিদ্র মানুষকে স্বাস্থ্যসেবার আওতায় আনবে। এটি সরকারি তহবিলে বিশ্বের সবচেয়ে বড় স্বাস্থ্য কর্মসূচি হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter