ইমরানের শপথ নিয়েও বিতর্ক

রাষ্ট্রভাষাই ঠিকমতো বলতে পারেন না প্রধানমন্ত্রী

  যুগান্তর ডেস্ক ১৯ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ইমরান খান
ফাইল ছবি

পাকিস্তানের ২২তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন দেশটির ‘২২ গজের নায়ক’ ইমরান খান। শনিবার সকালে বিশ্বের প্রথম কোনো ক্রিকেটার হিসেবে প্রধানমন্ত্রী হয়ে নজির গড়লেন তিনি। পাকিস্তানের প্লে-বয় খ্যাত এই বিশ্বসেরা ক্রিকেটার তার ব্যক্তিজীবন নিয়ে আগেও বারবার বির্তকে জড়িয়ে পড়েছেন, শপথ গ্রহণেও এড়াতে পারলেন না বিতর্ক।

শপথ নেয়ার মাঝেই ক্ষমা চাইতে হল ইমরান খানকে। তাকে ঘিরে এবারের নতুন কটাক্ষ হল- নিজের রাষ্ট্রভাই ঠিকমতো বলতে পারেন না প্রধানমন্ত্রী। দায়িত্ব নেয়ার শুরুতেই এমন বিপত্তিতে সৃষ্টি হয়েছে বিতর্ক। রাষ্ট্রীয় ভাষা উর্দু নিয়ে অপটুতায় সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠেছে কটাক্ষের ঝড়।

প্রথা অনুযায়ী, রাষ্ট্রপতি ভবনেই চলছিল নবনির্বাচিত পাক প্রধানমন্ত্রীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান। রাষ্ট্রীয় ভাষা উর্দুতে শপথবাক্য পাঠ করতে গিয়েই ঘটে বিপত্তি। প্রেসিডেন্ট মামনুন হোসেনের উচ্চারণ করা প্রতিটি শপথবাক্য উচ্চারণ করতে গিয়ে হোঁচট খান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। পুরো শপথবাক্য ঠিকঠাক উচ্চারণ করতে পারছিলেন না তিনি।

বারবার ভুল করায় এক সময় ক্ষমা চেয়ে নেন পশ্চিমা সংস্কৃতিতে বেড়ে ওঠা পাকিস্তানের অক্সফোর্ড পড়–য়া এই নতুন প্রধানমন্ত্রী। বিশেষ করে শপথবাক্যে ‘মুহাম্মদ (সা.) খাতামুন্নাবিয়ান’ বলার সময় বারবার আটকে যান। এছাড়াও ‘রোজে কেয়ামত’ শব্দটি উচ্চারণ করার সময় ভুল হয়ে যাওয়ায় তিনি বলেও দিলেন, ‘সরি’। এরপরও সমস্ত শপথবাক্য পাঠের সময়ই এমন অপ্রস্তুত পরিস্থিতির মুখে পড়েন ইমরান।

শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে ভারত থেকে উপস্থিত ছিলেন কংগ্রেস নেতা তথা ইমরানের পরম বন্ধু নভজ্যোৎ সিং সিধু। মোদি থেকে শচীন বহু মানুষের কাছেই এ অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার নিমন্ত্রণ পৌঁছালেও সিধু বাদে কেউই উৎসাহ দেখাননি। নতুন এই পাক প্রধানমন্ত্রীর জন্য উপহার হিসেবে সিধু সঙ্গে নিয়ে গেছেন ভারতের বিখ্যাত কাশ্মীরী শাল।

ঘটনাপ্রবাহ : পাকিস্তানের জাতীয় নির্বাচন ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×