পশ্চিম তীর দু’খণ্ড করবে ইসরাইল

ফিলিস্তিনি গ্রাম ধ্বংসের সবুজ সংকেত আদালতের

  যুগান্তর ডেস্ক ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

পশ্চিম তীর দু’খণ্ড করবে ইসরাইল

দখলকৃত পশ্চিম তীরে একটি বেদুইন গ্রাম নিশ্চিহ্ন করে দিতে সেনাবাহিনীকে সবুজ সংকেত দিয়েছে ইসরাইলের একটি আদালত। বেদুইন গ্রামটি নিশ্চিহ্ন করার মাধ্যমে পশ্চিম তীরকে দু’খণ্ড করতে সক্ষম হবে ইসরাইল।

পাশাপাশি সেখানকার ১৮০ জন ফিলিস্তিনি নাগরিককে জোরপূর্বক অন্যত্র সরিয়ে দেয়া হবে। আদালতের বুধবারের এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ। কিন্তু মানবাধিকার গ্র“প ও ফিলিস্তিনি নাগরিকরা এ সিদ্ধান্তের কঠোর সমালোচনা করেছেন।

আলজাজিরার খবরে বলা হয়, জেরুজালেমের বড় দুই অবৈধ বসতি মালে আদুমিম ও কাফফার আদুমিমমের কয়েক কিলোমিটারের মধ্যে খান আল আহমার গ্রামটি অবস্থিত।

ওই দুটি বসতিই সম্প্রসারণ করতে চাইছে ইসরাইল সরকার। এজন্য আল আহমার গ্রামটি ধ্বংস করবে দেশটি। খান আল আহমার গ্রামটিতে মূলত বেদুইন জাহালির উপজাতির বাস। ১৯৫০’র দশকে এই বাসিন্দাদের নিজ ভূমি নাকাব মরুভূমি থেকে বিতাড়িত করে ইসরাইলি সেনাবাহিনী। গ্রামটিতে বসতি গড়ার আগে তাদের অন্তত দু’বার নিজেদের বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করা হয়।

চারপাশে ইসরাইলি অবৈধ দখলের মধ্যে ১৯৯৩ সালের অসলো চুক্তিতে ‘এরিয়া সি’ নামে পরিচিত হয় গ্রামটি। এখানে ৪০টি ফিলিস্তিনি পরিবার তাঁবু ও খুপরি ঘরে বসবাস করে। ‘এরিয়া সি’র আওতায় পশ্চিম তীরের ৬০ শতাংশ এলাকা চিহ্নিত করা আছে। এসব এলাকা পুরোপুরিভাবে ইসরাইলি প্রশাসন ও নিরাপত্তার নিয়ন্ত্রণে।

ওই গ্রাম নিশ্চিহ্ন করার বিরুদ্ধে বুধবার একটি আবেদন বাতিল করে দিয়েছে ইসরাইলি আদালত। রায় ঘোষণার পর এক বিবৃতিতে রামাল্লাহভিত্তিক ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ বলেছে, খান আল আহমার গ্রামটি নিশ্চিহ্ন করা ইসরাইলি ঔপনিবেশিক প্রজেক্টকে সংহত করবে। যে প্রজেক্টের মাধ্যমে ইসরাইল দখল সম্প্রসারণ করে পূর্ব জেরুজালেমকে বাকি পশ্চিম তীর থেকে কার্যকরভাবে আলাদা করে ফেলবে।

ইসরাইলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী অ্যাভিগডর লাইবারম্যান বিচারকের এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে টুইটারে একে সাহসী সিদ্ধান্ত বলে মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ‘খান আল আহমার খালি করা হবে। তাদের সাহসী সিদ্ধান্তের জন্য সুপ্রিমকোর্টকে আমি অভিনন্দন জানাই। আইনের বাইরে কেউ নয়। আমাদের সার্বভৌমত্বকে সংহত করা থেকে কেউ আমাদের বিরত রাখতে পারবে না।’

দূতাবাস ফের তেলআবিবে নিচ্ছে প্যারাগুয়ে : ইসরাইলে নিজেদের দূতাবাস জেরুজালেম থেকে আবার সেই তেলআবিবে সরিয়ে নিচ্ছে প্যারাগুয়ে। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী বুধবার এ ঘোষণা দিয়েছেন। নতুন প্রেসিডেন্ট মারিও আবদো বেনিতেজের মধ্যপ্রাচ্য নীতি ঢেলে সাজানোর অংশ হিসেবে এ পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে ফিলিস্তিন। তবে তাদের সিদ্ধান্তে বেজায় চটেছে ইসরাইল।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত বছরের ৬ ডিসেম্বর জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেন।

ঘটনাপ্রবাহ : ফিলিস্তিনিদের ঘরে ফেরার বিক্ষোভ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×