বরিস : ব্রিটেনের বিশ্বপ্রেমিক মন্ত্রী

  যুগান্তর ডেস্ক ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বরিস : ব্রিটেনের বিশ্বপ্রেমিক মন্ত্রী

এলোমেলো সোনালি চুলের বরিস জনসন (৫৪)। ব্রিটেনের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী। ব্রেক্সিট ইস্যুতে দ্বন্দ্বের জেরে প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মের সঙ্গে দূরত্ব। একপর্যায়ে গত জুলাইয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পদ ত্যাগ করেন তিনি।

রাজনীতির ঝড়ো হাওয়ার মধ্যেই দীর্ঘ ২৫ বছরের দাম্পত্য জীবন ভেঙে গেছে তার। বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ায় তার ভারতীয় বংশোদ্ভূত স্ত্রী মারিনা হুইলার ছেড়ে গেছেন তাকে।

এর মধ্যেই আবার ফাঁস হয়েছে ‘ওয়ার বুক’ নামে কিছু গোপন নথি। নথি মতে, দুই স্ত্রীর বাইরে অনেকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলেছিলেন তিনি। এ সব নথি ফাঁস হওয়ার পর সবার মুখে মুখে ফিরছে ব্রিটেনের এই মন্ত্রী এক বিশ্বপ্রেমিক।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলেন বরিস। ছাত্রজীবনেও একাধিক প্রেম করেছেন। ১৯৮৭ সালে প্রথম বিয়ে করেন। স্ত্রীর নাম আলেগ্রা মসটিন ওয়েন। তিন বছর পরেই ১৯৯০ সালে মারিনা হুইলারের প্রেমে পড়েন বরিস। ওই বছরই আলেগ্রার সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায় তার। ১৯৯৩ সালে মারিনাকে বিয়ে করেন। মারিনা-বরিসের চার সন্তান।

২০০৪ সালে লেখিকা পেট্রোনেলা ওয়্যাটের সঙ্গে সম্পর্ক হয় বলে নিজেই স্বীকার করেন বরিস। ওয়্যাট অন্তঃসত্ত্বা হন ও গর্ভপাত করাতে হয়। এ সম্পর্ক চার বছর টিকে ছিল। ২০০৯-এ আবার হেলেন ম্যাকিনটায়ার নামে এক শিল্প-পরামর্শদাতার সঙ্গে নাম জড়ায়। তার সন্তানের বাবাও হন বরিস। টানাপোড়েন চললেও শেষমেশ বরিসকে মেনে নেন মারিনা। কিন্তু ফের সম্পর্কে জড়িয়েছেন বরিস। নিজের মেয়ের বয়সী অক্সফোর্ড ইউনিয়নের সাবেক প্রেসিডেন্ট রেজওয়ানা বশিরের প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছেন। এবার আর ছাড় দেননি মারিনা।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.