চৌহালী ইউএনও অফিসে দুম্বার মাংস ভাগবাটোয়ারা

  সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি ৩০ ডিসেম্বর ২০১৭, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

যমুনার ভাঙনে বিধ্বস্ত চৌহালী উপজেলায় অসহায়-দুস্থদের জন্য সৌদি আরব থেকে আসা দুম্বার মাংস ভাগবাটোয়ারার অভিযোগ উঠেছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। তবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দাবি, গরিব-দুস্থদের মধ্যে বিতরণের জন্য জনপ্রতিনিধিদের মধ্যে বণ্টন করে দেয়া হয়েছে। এর বাইরে কাউকে দেয়া হয়েছে কিনা এ বিষয়ে মন্তব্য করতে রাজি হননি ইউএনও।ইউএনওর কার্যালয় ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতর সৌদি সরকারের কাছ থেকে পাওয়া ৭০ প্যাকেট দুম্বার মাংস জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে বরাদ্দ দেয়। বুধবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার ৭ ইউপি চেয়ারম্যানকে ৫টি করে এবং বাকিগুলো উপজেলা পরিষদ, দলীয় নেতা, মুক্তিযোদ্ধা, প্রশাসন ও ছাত্র নেতাসহ প্রভাবশালীদের মধ্যে ভাগবাটোয়ারা করে দেয়া হয়েছে। তবে, কোনো এতিমখানা বা লিল্লাহ বোর্ডিংয়ে বিতরণ করা হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের উত্তর জানতে চাইলে তথ্য অধিকার আইনে দরখাস্তের জন্য পরামর্শ দেন ইউএনও। বুধবার রাতে দুম্বার মাংস নিতে আসা খাসকাউলিয়ার মুছা শেখ অভিযোগ করে বলেন, ‘গরিবগো না দিয়া দুম্বার গোসত স্যারেরা রুমের ভিতর বইস্যা ভাগ কইর‌্যা নিয়া গেছে।’ একই অভিযোগ মুদি দোকানি জসিম ও অটোচালক আবদুল কাদেরের। এছাড়া, স্থল ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আবদুল মোন্নাফ জানান, এক কেজির মতো দুম্বার মাংস ভাগে পেয়েছি। উপজেলা কার্যালয় থেকে স্থল ইউনিয়নের জন্য বরাদ্দ দিয়েছে মাত্র ৪ প্যাকেট। এছাড়া চৌহালী উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যানদ্বয় ও স্টাফদের জন্য ইউএনও অফিস থেকে মোট ৫ প্যাকেট দুম্বার মাংস বরাদ্দ দিয়েছে বলে জানিয়েছেন পরিষদের শীর্ষ এক কর্তাব্যক্তি। এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ইউপি চেয়ারম্যান বলেন, দুম্বার মাংস গরিব-দুস্থদের জন্য সৌদি সরকার বরাদ্দ দিয়েছে। অথচ রাতে মাংসগুলো প্রতিটি ইউনিয়নে মাত্র ৫ প্যাকেট করে মোট ৩৫ প্যাকেট দিয়েছে। বাকি ৩৫ প্যাকেট কী হবে তা বুঝে নেন। দুম্বার মাংস বণ্টনের সময় উপস্থিত চৌহালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) আনিছুর রহমান বলেন, ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা পরিষদকে সঠিকভাবে গরিব-দুস্থদের মধ্যে বণ্টন করার জন্য বলা হয়েছে। অনিয়মের প্রমাণ মিললে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter