এইচএসসির তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি

প্রকাশ : ১৬ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  জিএম গোলাম রব্বানী

প্রভাষক

কদমতলা পূর্ব বাসাবো স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ঢাকা

কমিউনিকেশন সিস্টেম ও

কম্পিউটার নেটওয়ার্কিং

১. নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও

ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ উক্ত কলেজের সব বিভাগকে কম্পিউটার নেটওয়ার্কের আওতায় এনে যাবতীয় অফিসের কার্যক্রম এবং শিক্ষা/পাঠদান পদ্ধতি অনলাইনে করার পদক্ষেপ গ্রহণ করার আগ্রহ দেখালেন। এ বিষয়ে একজন অভিজ্ঞ পরামর্শক তাকে নেটওয়ার্কের টপোলজি ও অন্যান্য কারিগরি বিষয় ব্যাখ্যা করাতে অধ্যক্ষ আরও আগ্রহী হয়ে তা বাস্তবায়নের উদ্যোগ নিলেন।

ক. কম্পিউটার নেটওয়ার্ক কী?

খ. চারটি জনপ্রিয় নেটওয়ার্ক টপোলজির নাম লিখ।

গ. উক্ত নেটওয়ার্কের জন্য যেসব হার্ডওয়্যার লাগতে পারে তার মধ্য থেকে যে কোনো ৩টির নাম ও কাজ লিখ।

ঘ. উক্ত কলেজের নেটওয়ার্কের জন্য কোন টপোলজি উপযুক্ত বলে তুমি মনে কর এবং তোমার মতামতের সপক্ষে ব্যাখ্যা দাও।

১ নং প্রশ্নের উত্তর (ক)

একাধিক কম্পিউটারের মধ্যে ডেটা আদান-প্রদানের উদ্দেশ্যে যে সংযোগ তৈরি করা হয় তাকে কম্পিউটার নেটওয়ার্ক বলে।

১ নং প্রশ্নের উত্তর (খ)

৪টি জনপ্রিয় নেটওয়ার্ক টপোলজি হল : ১। স্টার টপোলজি

২। রিং টপোলজি

৩। বাস টপোলজি

৪। ট্রি টপোলজি

১ নং প্রশ্নের উত্তর (গ)

উক্ত নেটওয়ার্কটি হচ্ছে স্টার টপোলজি নেটওয়ার্ক। এই টপোলজিতে ব্যবহৃত হার্ডওয়্যার হচ্ছে-

মডেম : মডেম একটি ডেটা কমিউনিকেশন ডিভাইস যা ডেটাকে এক কম্পিউটার থেকে অন্য কম্পিউটারে মাধ্যমের সাহায্যে পৌঁছে দেয়। মডেম কম্পিউটার মাদার বোর্ডের পেছনে কমিউনিকেশন পোর্টের সঙ্গে যুক্ত করতে হয়। কাজ-

ক. ডেটা কমিউনিকেশনে প্রেরক এবং গ্রাহক উভয় অংশেই ব্যবহৃত হয়ে থাকে।

খ. ডেটাকে মডুলেশন এবং ডিমডুলেশন করে থাকে।

ঘওঈ কার্ড : ঘওঈ মূলত মডেমের কাজটি করে দেয়।

ক. নেটওয়ার্ক থেকে ডেটা প্যাকেট গ্রহণ করে।

খ. ডেটা প্যাকেটে ম্যাক এড্রেস যোগ করে।

গ. গন্তব্য ডিভাইসের ম্যাক এড্রেস এই ডেটা প্যাকেটে যোগ করে।

সুইচ : একাধিক পোর্টযুক্ত ডিভাইস, যা স্টার টপোলজিতে কেন্দ্রীয় যন্ত্র হিসেবে ব্যবহৃত হয় তাকে সুইচ বলে।

ক. ডেটা সংঘর্ষ বা কলিশন সম্ভাবনা কমায়।

খ. সুইচ প্রেরিত সিগন্যাল শুধু টার্গেট কম্পিউটারে প্রেরণ করে থাকে।

গ. ব্রডকাস্ট ডোমেইনকে সীমিত করার জন্য ভার্চুয়াল ল্যান ব্যবহার করা যেতে পারে।

১ নং প্রশ্নের উত্তর (ঘ)

উক্ত কলেজের নেটওয়ার্কের জন্য স্টার টপোলজি উপযুক্ত বলে আমি মনে করি।

সাধারণত স্কুল-কলেজ, অফিসে স্টার টপোলজি অধিক উপযোগী, কারণ :

নেটওয়ার্কের কোনো কম্পিউটার নষ্ট হলেও নেটওয়ার্কের অন্য কম্পিউটারগুলোর মধ্যে কাজের ব্যাঘাত ঘটে না।

ঘাব বা সুইচ ছাড়া নেটওয়ার্কের অন্য কোনো অংশের সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেলেও নেটওয়ার্ক সচল থাকে।

একই নেটওয়ার্কে বিভিন্ন ধরনের ক্যাবল ব্যবহার করা যায়।

স্টার নেটওয়ার্কে কোনো কাম্পউটার যোগ করা বা বাদ দেয়া যায়, এতে কাজের কোনো বিঘ্ন ঘটে না।

কেন্দ্রীয়ভাবে নেটওয়ার্ক রক্ষণাবেক্ষণ বা সমস্যা নিরূপণ সহজ। ইন্টেলিজেন্ট সুইচ ব্যবহার করলে এর সাহায্যে নেটওয়ার্কের কর্মকাণ্ড তথা ওয়ার্ক লোড মনিটরিং করা যায়।

ওপরে উল্লিখিত সুবিধাগুলোর কারণে বলা যায়, উক্ত কলেজের নেটওয়ার্কিংয়ের জন্য স্টার টপোলজি সবচেয়ে সুবিধাজনক।