নবম দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা

বাংলা দ্বিতীয়পত্র * ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং * ইংরেজি দ্বিতীয়পত্র

বাংলা দ্বিতীয়পত্র

  উজ্জ্বল কুমার সাহা ১৭ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

প্রভাষক, সেন্ট যোসেফ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মোহাম্মদপুর, ঢাকা

পদ প্রকরণ

[পূর্বে প্রকাশিত অংশের পর]

২৭৪. কোনটি ভাববাচক বিশেষ্য?

√ক. গমন খ. মধুরতা

গ. লবণ ঘ. মানুষ

২৭৫. কোনটি ভাববাচক বিশেষ্য?

ক. মাইকেল খ. খণ্ডন

গ. তারল্য √ঘ. দর্শন

২৭৬. কোনটি রূপবাচক নাম বিশেষণ?

ক. ঠাণ্ডা হাওয়া √খ. সবুজ পাতা

গ. মাটির থালা ঘ. ভরা নদী

২৭৭. গুণবাচক বিশেষণ ব্যবহৃত হয়েছে কোন স্থলে?

ক. শস্য সবুজ √খ. নিপুণ কারিগর

গ. প্রথমা কন্যা ঘ. কবেকার কথা

২৭৮. ভাব বিশেষণ কয় প্রকার?

ক. তিন প্রকার √খ. চার প্রকার

গ. পাঁচ প্রকার ঘ. ছয় প্রকার

২৭৯. “ধিক্ তারে, শত ধিক্ নির্লজ্জ যে জন”- এ বাক্যে ‘নির্লজ্জ’ কোন বিশেষণের উদাহরণ?

ক. ক্রিয়া বিশেষণ খ. বাক্যের বিশেষণ

√গ. অব্যয়ের বিশেষণ

ঘ. বিশেষণীয় বিশেষণ

২৮০. বাংলা ব্যাকরণে পুরুষ কত প্রকার?

√ক. তিন খ. চার গ. পাঁচ ঘ. ছয়

২৮১. মধ্যম পুরুষের উদাহরণ কোনটি?

ক. তারা খ. আমরা

গ. আমি √ঘ. তোমরা

২৮২. যে কোনো বিশেষ্য পদ কোন পুরুষ?

ক. উত্তম পুরুষ খ. মধ্যম পুরুষ

গ. মধ্যম ও নাম পুরুষ √ঘ. নাম পুরুষ

২৮৩. “তিনি সৎ, তাই সকলেই তাকে শ্রদ্ধা করে”- এখানে ‘তাই’ অব্যয়টি-

√ক. সংযোজক অব্যয় খ. বিয়োজক অব্যয়

গ. সমুচ্চয়ী অব্যয় ঘ. সংকোচক অব্যয়

২৮৪. “মরি মরি, কী সুন্দর প্রভাতের রূপ!”- এখানে অনন্বয়ী অব্যয়ে কী প্রকাশ পেয়েছে?

ক. যন্ত্রণা খ. বিরক্তি

গ. সম্মতি √ঘ. উচ্ছ্বাস

২৮৫. কোন অব্যয় বিশেষ্য ও সর্বনাম পদের পরে যুক্ত হয়ে বিভক্তির ন্যায় কাজ করে?

ক. বাক্যালঙ্কার অব্যয় খ. অনন্বয়ী অব্যয়

গ. অনুকার অব্যয় √ঘ. অনুসর্গ অব্যয়

২৮৬. অনুসর্গ অব্যয় কোন নামে পরিচিত?

ক. অনুকার অব্যয় খ. অনন্বয়ী অব্যয়

গ. নিত্যসম্বন্ধীয় অব্যয় √ঘ. পদান্বয়ী অব্যয়

২৮৭. “দুঃখ বিনা সুখ লাভ হয় কি মহীতে”- এই বাক্যের অব্যয়টির নাম কী?

√ক. অনুসর্গ অব্যয় খ. অনুকার অব্যয়

গ. অনন্বয়ী অব্যয় ঘ. সমুচ্চয়ী অব্যয়

২৮৮. “ছেলেটি ভেউ ভেউ করে কাঁদছে”- ‘ভেউ ভেউ’ কোন জাতীয় অব্যয়?

ক. প্রশ্নবোধক খ. উপসর্গ

√গ. অনুকার ঘ. সম্বোধনবাচক

২৮৯. যেমন কর্ম তেমন ফল।- বাক্যে কোন ধরনের অব্যয় ব্যবহৃত হয়েছে?

√ক. নিত্য সম্বন্ধীয় খ. অনুকার গ. অনন্বয়ী ঘ. বাক্যালঙ্কার

২৯০. ‘যথা ধর্ম তথা জয়’- এটি কোন অব্যয়ের উদাহরণ?

√ক. নিত্য সম্বন্ধীয় অব্যয়

খ. অনুকার অব্যয়

গ. বাক্যালঙ্কার অব্যয় ঘ. বিয়োজক অব্যয়

ক্রিয়া পদ

২৯১. প্রভাতে সূর্য উঠলে অন্ধকার দূর হয়- উঠলে ক্রিয়াটি কোন ক্রিয়া?

ক. সমাপিকা √খ. অসমাপিকা

গ. প্রযোজক ক্রিয়া ঘ. যৌগিক ক্রিয়া

২৯২. ‘সাপেক্ষতা’ অর্থে অসমাপিকা ক্রিয়া ব্যবহারের সঠিক উদাহরণ কোনটি?

ক. আজ গেলেও যা, কাল গেলেও তা √খ. তিনি গেলে কাজ হবে

গ. চারটা বাজলে স্কুল ছুটি হবে

ঘ. বৃষ্টিতে ভিজলে সর্দি হবে

২৯৩. পূর্ণাঙ্গ বাক্য গঠন করতে হলে কোন ক্রিয়া অবশ্যই ব্যবহার করতে হয়?

ক. যৌগিক ক্রিয়া খ. অসমাপিকা ক্রিয়া

√গ. সমাপিকা ক্রিয়া ঘ. কোনোটিই নয়

২৯৪. দার্শনিক সত্য প্রকাশে ‘ইলে’ বিভক্তিযুক্ত অসমাপিকা ক্রিয়ার ব্যবহার হয়েছে কোন বাক্যটিতে?

ক. বৃষ্টিতে ভিজলে সর্দি হবে খ. একবার মরলে কি কেউ আর মরে

গ. দুইটা বাজলে স্কুল ছুটি হবে √ঘ. জন্মিলে মরিতে হবে, অমর কে কোথা কবে

২৯৫. ক্রিয়াপদকে ‘কী’ বা ‘কাকে’ দ্বারা প্রশ্ন করলে যে উত্তর পাওয়া যায়, তাকে কী বলে?

√ক. কর্মপদ খ. অব্যয় পদ গ. সর্বনাম পদ ঘ. ক্রিয়া বিশেষণ

২৯৬. সকর্মক ক্রিয়ার অকর্মক রূপ কোন্টি?

√ক. লোকটি চোখে দেখে না

খ. ছেলেটি কথা বোঝে না

গ. পাখি উড়ে ঘ. সে পথে ভিক্ষা করে

২৯৭. ব্যক্তিবাচক কর্মপদটিকে কোন কর্ম বলে?

ক. মুখ্য কর্ম √খ. গৌণ কর্ম

গ. সমধাতুজ কর্ম ঘ. ধাত্বর্থক কর্ম

ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং

মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান সরকার

সিনিয়র শিক্ষক, মনিপুর উচ্চবিদ্যালয় ও কলেজ, মিরপুর, ঢাকা

ঝুঁকি ও অনিশ্চয়তা

১. ঝুঁকি ও অনিশ্চয়তা কোন কোন ক্ষেত্রে লক্ষ্য অর্জনে বাধা দেয়?

-ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে বিনিয়োগকারী পর্যন্ত সবাইকে বাধা দেয়।

২. ঝুঁকি কী নয়? -সকল অনিশ্চয়তা।

৩. মুনাফা বৃদ্ধির সাথে অর্থায়ন কোনটি বাড়ে?

-ঝুঁকি।

৪. খারাপ কোনো ঘটনার আশঙ্কাকে কী বলে?

-ঝুঁকি।

৫. ট্রেজারি বন্ড থেকে প্রাপ্ত আয়কে ঝুঁকিমুক্ত আয় হিসেবে গণ্য করা হয় কেন?

-নির্দিষ্ট আয় থাকায়।

৬. তারল্য ঝুঁকি কিসের উপর নির্ভর করে।

-বাজারের আয় ও কাঠামোর ওপর।

৭. ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের দৃষ্টিকোন থেকে ঝুঁকি কত প্রকার। -২ প্রকার।

৮. কোনটি পরিমাপ করা যায় না? -অনিশ্চয়তা।

৯. ঝুঁকি বেশি হলে মুনাফা কীরূপ হয়?

-বেশি হয়।

১০. ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে ঝুঁকির সৃষ্টি হয় কোথা থেকে? -বিচ্যুতি থেকে।

১১. প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন সিদ্ধান্তের প্রকৃত ফলাফল প্রত্যাশিত ফলাফলের চেয়ে কম বা বেশি হয় কেন?

-ঝুঁকির কারণে।

১২. প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন সিদ্ধান্তের প্রকৃত ফলাফল প্রত্যাশিত ফলাফল থেকে ভিন্ন হওয়ার সম্ভাবনাকে কী বলে? -ঝুঁকি।

১৩. অনিশ্চয়তা থেকে কীসের সৃষ্টি হয়।

-ঝুঁকির।

১৪. ঝুঁকির ব্যবস্থাপনার জন্য কোনটি খুঁজে বের করা জরুরি? -ঝুঁকির শ্রেণী ও উৎস।

১৫. ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান সফলভাবে চালানোর জন্য কোন ধরনের ব্যয়ের সৃষ্টি হয়?

-পরিচালনা ব্যয়।

১৬. বহিস্থ উৎস থেকে অর্থায়ন করা হলে কোন ঝুঁকির সৃষ্টি হয়? -আর্থিক ঝুঁকির।

১৭. যে প্রতিষ্ঠানের ঋণ মূলধন বেশি সে প্রতিষ্ঠানের আর্থিক ঝুঁকি বেশি হওয়ার কারণ কী?

-ঋণ মূলধনের সুদ প্রদান করা বাধ্যতামূলক।

১৮. অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে তহবিল সংগৃহিত হলে কোন কাজটি ঐচ্ছিক হয়? -মোনাফাবণ্টন

১৯. কোন ঝুঁকির কারণে কোম্পানির দ্রুত বিলোপসাধন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে?

-আর্থিক ঝুঁকি

২০. কিভাবে আর্থিক ঝুঁকির সৃষ্টি হয়?

-দায় পরিশোধের অক্ষমতা থেকে।

২১. সুদের হারের পরিবর্তনের কারণে বিনিয়োগের মূল্য কমার সম্ভাবনাকে কী বলে?

-সুদ হার ঝুঁকি।

২২. সুদের হার পরিবর্তনের কারণে কোনটির মূল্য ওঠা-নামা করে? -সুদের হার বাড়লে।

২৩. কোন অবস্থায় বিনিয়োগের বাজার মূল্য কমে?

-সুদের হার বাড়লে।

২৪. সুদের হার কমলে বিনিয়োগের বাজার মূল্যে কীরূপ প্রভাব পড়ে?

-বাজারমূল্য স্থিতিশীল থাকে।

২৫. শেয়ার বাজারে কোনটির ক্রেতা সহজে পাওয়া যায়? -সাধারণ শেয়ারের।

২৬. কাঁচামাল ক্রয় কোন জাতীয় লেনদেন?

-পরিচালন ব্যয়।

২৭. ব্যবসায় শুরু করার আগে কোনটি করা আবশ্যক? -বাজার চাহিদা নিরুপণ।

২৮. কীসের উপর ব্যবসায় মুনাফা অর্জন নির্ভর করে? -পণ্যের বাজার চাহিদার ওপর।

২৯. অনিশ্চয়তা কোন কালের ঘটনা?

-ভবিষ্যৎ।

৩০. কোনটি পরিমাপ করা যায় না কিন্তু অনুমান করা যায়? -অনিশ্চয়তা।

৩১. আদর্শ বিচ্যুতির ছোট মান কী নির্দেশ করে?

-কম ঝুঁকি।

৩২. মূলধন জাতীয় আয় ব্যয় থেকে জানা যায়- -প্রকৃত লাভ-ক্ষতি।

৩৩. কোন আয়কে ঝুঁকিমুক্ত আয় হিসেবে গণ্য হয়? -সঞ্চয়পত্রে বিনিয়োগ থেকে প্রাপ্ত আয়কে।

৩৪. প্রকৃত আয় ও প্রত্যাশিত আয় সবসময় সমান হওয়াকে কী বলে? -ঝুঁকিমুক্ত আয়।

৩৫. যেসব আয়ের সাথে ঝুঁকি জড়িত সেসব আয়কে কোন ধরনের আয় বলে? -ঝুঁকিব√ল

৩৬. শেয়ার বিক্রির মাধ্যমে অর্থায়ন শুরু হয়-

- ১৯৩০-এর দশকে।

৩৭. তারল্যের প্রয়োজনীয়তা বিশেষভাবে দেখা দেয় - ১৯৪০-এর দশকে।

৩৮. বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার আত্মপ্রকাশ ঘটে-

- ১৯৯০-এর দশকে।

৩৯. অফিস ভাড়া ব্যয়কে কী বলা হয়?

উত্তর : পরিচালনা ব্যয়।

৪০. ফ্রানসাইজিং বা লাইসেনসিং-এর মাধ্যমে ব্যবসায়ের অসুবিধা কোনগুলো? - কড়া মনিটরিং।

৪১. আর্থিক অবস্থার বিবরণী থেকে জানা যায় - সম্পদ ও দায় দেনার পরিমাণ।

৪২. মুনাফা জাতীয় আয় ও ব্যয়ের ভিত্তিতে তৈরি হয় - বিশদ আয় বিবরণী।

৪৩. মূলধন জাতীয় প্রাপ্তি ও মূলধন জাতীয় ব্যয়ের ভিত্তিতে তৈরি হয় -আর্থিক অবস্থার বিবরণী।

৪৪. মূলধন ও মুনাফা জাতীয় লেনদেন পরস্পর অবস্থান পরিবর্তন করলে জানা যাবে না -প্রকৃত লাভ-ক্ষতি এবং সম্পদ, দায় ও মালিকানা স্বত্ব।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×