নবম দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা

বাংলা প্রথমপত্র * বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয়

বাংলা প্রথমপত্র

  মুহম্মদ আল মাসুদ ২০ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সিনিয়র শিক্ষক,

মনিপুর উচ্চবিদ্যালয় ও কলেজ, মিরপুর, ঢাকা

পল্লিজননী

জসীমউদ্দীন

অনুচ্ছেদটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও

সন্ধ্যে বেলা, মেঘ পড়েছে ক্ষয়ে

বিজলী ভাঙার উদ্বোধনে

ঘুম আসে না ভয়ে

মায়ের পরশ ছোট্ট ছেলের বুকে

বর এঁকে দেয় সকল সময়

দুঃখ এবং সুখে

ক. মা নামাজের ঘরে কী মানত করেন?

খ. ‘শিয়রের কাছে নিবু নিবু দীপ ঘুরিয়া ঘুরিয়া জ্বলে’- ব্যাখ্যা কর।

গ. উদ্দীপকের ছেলেটির ঘুম না আসার সঙ্গে ‘পল্লিজননী’ কবিতার ছেলেটির ঘুম না আসার মধ্যে পার্থক্য কী? ব্যাখ্যা কর।

ঘ. ‘মায়ের পরশ সকল সুখে-দুঃখে ছেলের মনে প্রবল অনুভূতির জন্ম দেয়’- উক্তিটি বিশ্লেষণ কর।

উত্তর ক :

মা নামাজের ঘরে সিন্নি মানত করেছিল।

উত্তর খ :

‘শিয়রের কাছে নিবু নিবু দীপ ঘুরিয়া ঘুরিয়া জ্বলে’ চরণটিতে ছেলের প্রাণপ্রদীপ নিভে যাওয়ার ইঙ্গিত দেয়া হয়েছে। থমথমে নিঝুম অন্ধকার রাতে মা ছেলের শিয়রের পাশে বসে আছেন। কারণ ছেলে অসুস্থ আর দরিদ্র মা অর্থাভাবে ছেলের জন্য ওষুধ ও পথ্যের ব্যবস্থা করতে পারেননি। ফলে ছেলের শারীরিক অবস্থা দিন দিন অবনতি ঘটতে থাকে। মাটির প্রদীপের তেল ফুরিয়ে আসায় প্রদীপ প্রায় নিবু নিবু তাই অসুস্থ ছেলের অবস্থা বোঝাতে এখানে প্রদীপের সঙ্গে তুলনা করেছেন।

উত্তর গ :

উদ্দীপকের ছেলেটির ঘুম না আসার সঙ্গে কবিতার ছেলেটির ঘুম না আসার প্রেক্ষাপটগত পার্থক্য আছে। ‘পল্লিজননী’ কবিতায় দেখা যায়, মা গভীর অন্ধকার রাতে অসুস্থ ছেলের শিয়রে বসে আছেন। অর্থাভাবে মা ছেলেকে ওষুধ কিনে দিতে পারেননি বলে ছেলের শারীরিক অবস্থা খারাপ হতে থাকে। শারীরিক যন্ত্রণার কারণে ছেলেও সারা রাত ঘুমাতে পারে না। ঘুমানোর জন্য মা জোর করলেও ছেলে ঘুমাতে পারে না।

উদ্দীপকে দেখা যায়, খারাপ আবহাওয়ার কারণে বিদ্যুৎ চমকায় ও বজ্রপাত হয়। এসব কারণে ছেলে ভয় পায়, ফলে সে ঘুমাতে পারে না। এই ভীত অবস্থায় মা ছেলেকে বুকে জড়িয়ে নেন। ফলে ছেলে মায়ের কোলে শান্তি খুঁজে পায়। ছেলের দুঃখ-সুখে মা এভাবে তার কোলে ছেলেকে আশ্রয় দেয়। কবিতায় বর্ণিত ছেলেটি শারীরিক যন্ত্রণায় ঘুমাতে পারে না বলে মা তাকে ভালোবাসা দেয় যাতে ছেলেটি ঘুমাতে পারে। অপরদিকে উদ্দীপকের ছেলেটি প্রকৃতির বিপর্যয়কে অর্থাৎ বজ্রপাত, বিজলিকে ভয় পায় বলে ঘুমাতে পারে না বরং মা তাকে টেনে নিয়ে তার সব ভয় দূর করার চেষ্টা করে। উদ্দীপকের ছেলেটির ঘুম না আসার কারণের সঙ্গে কবিতায় বর্ণিত ছেলেটির ঘুম না আসার কারণের পার্থক্য আছে। তবে মাতৃস্নেহের মধ্যে কোনো পার্থক্য দেখা যায় না।

উত্তর ঘ :

মায়ের পরশ ছেলের সকল সুখে-দুঃখে প্রশান্তি বয়ে নিয়ে আসে। ‘পল্লিজননী’ কবিতায় দেখা যায়, ছেলেটি অসুস্থ হওয়া সত্ত্বেও দারিদ্র্যের জন্য মা তাকে ওষুধ এনে দিতে পারেননি। আর্থিক দিক থেকে দরিদ্র হলে কী হবে মায়ের হৃদয়ে ছেলের প্রতি ভালোবাসার কোনো কমতি নেই। মা সেই ভালোবাসার শক্তি দিয়ে ছেলেকে বুকে আঁকড়ে ধরে রাখতে চান।

ছেলে শারীরিক পীড়নে কাতর হলে মা যখন ছেলের শরীরে হাত বুলিয়ে দেন তখন ছেলে শান্তি পায়। এভাবে শারীরিক পীড়ন সত্ত্বেও মা ছেলের দেহে প্রশান্তি নিয়ে আসেন। উদ্দীপকের ছেলেটি বজ্রপাতের কারণে ভয় পেলে মা তাকে তার বুকে আশ্রয় দেন। মায়ের বুকে জড়িয়ে ধরলে ছেলের সব ভয় দূর হয়ে যায়।

এভাবে মায়ের স্পর্শ সন্তানের সব দুঃখে ও সুখে প্রশান্তি এনে দেয়। ‘পল্লিজননী’ কবিতাতেও একই ঘটনা ঘটে, মায়ের স্পর্শে ছেলে মৃত্যুভয় কাটিয়ে উঠে সুস্থ হয়ে কী কী করবে সেই পরিকল্পনা করতে থাকে।

মা কথাটি যেমন মধুর মায়ের স্পর্শও তেমনি মধুর। তাই মায়ের স্পর্শে ছেলে রোগমুক্তির স্বপ্ন দেখে। উদ্দীপকের মায়ের কোলে চেপে ছেলেটিও ভয়মুক্ত হয়। এজন্য বলা যায় মায়ের স্নেহের পরশে সব ভয় দুঃখ, কষ্ট দূর হয়ে যায়।

বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয়

জান্নাতুল ফেরদৌস

সিনিয়র শিক্ষক, ভিক্টোরি স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ঢাকা

পূর্ব বাংলার আন্দোলন ও জাতীয়তাবাদের উত্থান (১৯৪৭-১৯৭০)

[পূর্বে প্রকাশিত অংশের পর]

৩৮। ১৯৭০ সালের নির্বানে পূর্ব পাকিস্তানের ভোটার ছিল কত জন?

√ক) ৩ কোটি ২২ লাখ খ) ৩ কোটি ২৫ লাখ গ) ৩ কেটি ৩০ লাখ ঘ) কোটি ৩৫ লাখ

৩৯। ১৯৭০ সালের নির্বাচনে পূর্ব পাকিস্তানের জন্য কতটি আসন নির্ধারিত ছিল?

ক) ১৬৬টি খ) ১৬৭টি গ) ১৬৮টি √ঘ) ১৬৯টি

৪০। ১৯৭০ সালের ১৭ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত প্রাদেশিক পরিষদ নির্বাচনে মোট আসন ছিল কতটি?

√ক) ৩০০টি খ) ৩২০টি গ) ৩৫০টি ঘ) ৩৬০টি

৪১। ১৯৭০ সালের নির্বাচন বাঙালি জাতীয়তাবাদের রাজনৈতিক অগ্রযাত্রা কিসের চরিত্রদানে বিশাল ভূমিকা রাখে?

ক) বিজয়ের খ) প্রতিবাদের √গ) মুক্তিযুদ্ধের ঘ) স্বাধীনতার

৪২। ১৯৭০ সালের জাতীয় প্রাদেশিক নির্বাচন আওয়ামী লীগের নিরঙ্কুশ বিজয়ের কারণ

i) ৬ দফার প্রতি জনসমর্থন ii) বাঙালি জাতীয়তাবাদের উন্মেষ iii) পাকিস্তানের সামরিক শাসন ব্যবস্থা

নিচের কোনটি সঠিক?

√ক) i ও ii খ) i ও iii গ) ii ও iii ঘ) i, ii ও iii

৪৩। পাকিস্তানে গণতান্ত্রিক শাসনব্যবস্থাকে দুর্বল করার জন্য ভূমিকা রেখেছিল-

i) পশ্চিম পাকিস্তানের শাসকগোষ্ঠী

ii) রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ iii) সামরিক বাহিনী

নিচের কোনটি সঠিক?

ক) i ও ii খ) i ও iii √গ) ii ও iii ঘ) i, ii ও iii

৪৪। পাকিস্তানের কেন্দ্র ও প্রদেশে ঘনঘন সরকার পতনের পেছনে যৌক্তিক কারণ হল-

i) নৌবাহিনীর চক্রান্ত ii) শাসকগোষ্ঠীর চক্রান্ত iii) সামরিক বাহিনীর চক্রান্ত

নিচের কোনটি সঠিক?

ক) i ও ii √খ) ii ও iii

গ) i ও iii ঘ) i, ii ও iii

৪৫। ক্ষমতা দখল করে আইয়ুব খান নিজে যেসব পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন তা হল-

i) প্রেসিডেন্ট ii) প্রধান সামরিক শাসক

iii) সেনাপ্রধান

নিচের কোনটি সঠিক?

ক) i ও ii খ) ii ও iii গ) i ও iii √ঘ) i, ii ও iii

৪৬। পূর্ব পাকিস্তানে সামরিক শাসন জারির পর-

i) ১৯৫৬ সালে গৃহীত সংবিধান বাতিল করা হয় ii) কেন্দ্রীয় ও প্রাদেশিক পরিষদ ভেঙে দেয়া হয়

iii) মৌলিক অধিকারের নিশ্চয়তা দেয়া হয়

নিচের কোনটি সঠিক?

√ক) i ও ii খ) ii ও iii গ) i ও iii ঘ) i, ii ও iii

৪৭। প্রেসিডেন্ট পদে অধিষ্ঠিত হয়ে আইয়ুব খান ঘোষণা দেন-

i) নিজেকে প্রধান সামরিক আইন প্রশাসক হিসেবে

ii) রাজনৈকি দলের কার্যক্রমের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নেন

iii) ১৯৫৯ সালে অনুষ্ঠিতব্য সাধারণ নির্বাচন স্থগিত করেন

নিচের কোনটি সঠিক?

ক) i ও ii খ) ii ও iii √গ) i ও iii ঘ) i, ii ও iii

৪৮। ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানে যুক্ত হয়-

i) সব গণতান্ত্রিক দল ii) পেশাজীবী সংগঠন iii) সব স্তরের মানুষ

নিচের কোনটি সঠিক?

ক) i ও ii খ) ii ও iii গ) i ও iii √ঘ) i, ii ও iii

৪৯। ১৯৬৯-এর গণঅভ্যুত্থানের ব্যাপক প্রভাব পড়ে-

i) আগরতলা মামলা প্রত্যাহারে ii) ১৯৭০ সালের নির্বাচনে iii) ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে

নিচের কোনটি সঠিক?

ক) i ও ii খ) ii ও iii গ) i ও iii √ঘ) i, ii ও iii

৫০। রাখি টিভিতে দেখছে ন্যাটোর সাধারণ বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার সময় রাস্তায় ছাত্ররা এর প্রতিবাদ করছে। বাংলার রাজনৈতিক ইতিহাসে ছাত্রদের এগারো দফায় এমন অবস্থান ছিল-

i) সিয়াটোর বিরুদ্ধে ii) সেন্টোর বিরুদ্ধে

iii) আসিয়ানের বিরুদ্ধে

নিচের কোনটি সঠিক?

√ক) i ও ii খ) ii ও iii গ) i ও iii ঘ) i, ii ও iii

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×