এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি

প্রথমপত্র

প্রকাশ : ২০ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  মোস্তাক আহমেদ

সহকারী অধ্যাপক (১৬তম বিসিএস)

সরকারি দেবেন্দ্র কলেজ, মানিকগঞ্জ

বহুনির্বাচনী নীতিমালা মেনেই উদ্দীপকসহ তোমাদের মোট ৩০টি প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। যেসব গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উদ্দীপকসহ জ্ঞানমূলক প্রায়োগিক পরীক্ষায় আসতে পারে তা দিয়েই আমি তোমাদের জন্য প্রশ্নব্যাংক তৈরির সহায়তা করছি। তোমরা শুধু মনে রাখবে, আমাদের এ প্রশ্নব্যাংক থেকেই উদ্দীপকসহ অধিকাংশ প্রশ্ন থাকবে। পূর্বের লেখায় আমরা ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিষয়ের প্রথম পত্রের প্রথম অধ্যায় থেকে আলোচনা করেছি। অনুরূপভাবে আজ আমি তোমাদের দ্বিতীয় অধ্যায় থেকে যেসব প্রশ্ন হতে পারে তা নিয়ে আলোচনা করব।

যদিও এ আলোচনা এইচএসসি পর্যায়ের ছাত্রছাত্রীদের জন্য, তথাপিও আমাদের এ সিলেবাসের সঙ্গে অনার্স ১ম বর্ষের ১ম ও ২য় পত্র এবং ডিগ্রি (পাস) ১ম বর্ষের সিলেবাসের মিল থাকায় এবং বহুনির্বাচনীর মতোই অনার্স ও ডিগ্রি (পাস) কোর্সে অতি সংক্ষিপ্ত ১০টি প্রশ্নের উত্তর লিখতে হয় সেই কারণে অনার্স ১ম বর্ষের ১ম ও ২য় পত্র এবং ডিগ্রি (পাস) কোর্সের ছাত্রছাত্রীদের জন্য আমার এ লেখা অত্যন্ত সহায়ক হবে বলে আমি মনে করি।

দ্বিতীয় অধ্যায় : হজরত মুহাম্মদ (সা.)

* মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর মক্কা জীবন ও নবুয়তপ্রাপ্তি

* হিজরত ও মদিনা সনদ কারণ ও গুরুত্ব

* প্রাথমিক যুদ্ধসমূহ : বদর, ওহুদ ও খন্দক

* হুদায়বিয়ার সন্ধি-এর গুরুত্ব

* মক্কা বিজয় ও শান্তিনীতি

* বিদায় হজ, বিদায় হজের ভাষণ

* মহানবী (সা.)-এর সংস্কারসমূহ

* মহানবী (সা.)-এর চারিত্রিক গুলাবলি ও কৃতিত্ব

১. মুহাম্মদ (সা.) কত সালে জন্মগ্রহণ করেন?

উত্তর : ৫৭০ খ্রি.।

২. মুহাম্মদ (সা.)-এর পিতা ও মাতার নাম কী?

উত্তর : পিতার নাম আবদুল্লাহ ও মাতার নাম আমেনা।

৩. মুহাম্মদ (সা.)-এর দাদা আবদুল মুত্তালিব কত সালে মৃত্যুবরণ করেন? উত্তর : ৫৭৯ খ্রি.।

৪. মুহাম্মদ (সা.)-এর ধাত্রী মাতার নাম কী?

উত্তর : বিবি হালিমা।

৫. কাকে ‘আল আমিন’ বলা হতো?

উত্তর : মুহাম্মদ (সা.)কে।

৬. মহানবী (সা.) কোন পর্বতের গুহায় বসে ধ্যান করতেন?

উত্তর : হেরা পর্বতের গুহায়।

৭. কত সালে মুহাম্মদ (সা.) সিরিয়া গমন করেন?

উত্তর : ৫৮৬ খ্রি.।

৮. কত সালে হিলফ উল ফুজল বা শান্তি সংঘ গঠিত হয়?

উত্তর : ৫৯৫ খ্রি.।

৯. বিবি খাদিজা কে ছিলেন?

উত্তর : মহানবী (সা.)-এর স্ত্রী।

১০. ‘হাজরে আসওয়াদ’ কত সালে প্রতিস্থাপন করা হয়?

উত্তর : ৬০৫ খ্রিস্টাব্দে হাজরে আসওয়াদ বা কৃষ্ণ প্রস্তর কাবাগৃহে প্রতিস্থাপন করা হয়।

১১. কত সালে মহানবী (সা.) নবুয়ত লাভ করেন?

উত্তর : ৬১০ খ্রি.।

১২. মদিনার পূর্ব নাম কী? উত্তর : ইয়াসরিব।

১৩. মক্কার পূর্ব নাম কী? উত্তর : মাগরেব।

১৪. প্রকাশ্যে ইসলাম প্রচার শুরু হয় কত সালে?

উত্তর : ৬১৩ খ্রি.।

১৫. ৬১৫ সাল কিসের জন্য বিখ্যাত?

উত্তর : আবিসিনিয়ায় মুসলমানদের আশ্রয় গ্রহণের জন্য।

১৬. ৬১৬ সালে কী ঘটেছিল?

উত্তর : কুরাইশদের প্রকাশ্যে ইসলামের বিরোধিতা।

১৭. বিবি খাদিজা ও চাচা আবু তালেবের মৃত্যু কত সালে?

উত্তর : ৬১৯ খ্রি.।

১৮. পবিত্র মেরাজ শরিফ ও আকাবার ১ম শপথ কবে সংঘটিত হয়?

উত্তর : ৬২০ খ্রি.।

১৯. মেরাজ শব্দের অর্থ কী? উত্তর : ঊর্ধ্ব গমন।

২০. আকাবার ২য় শপথ কবে সংঘটিত হয়?

উত্তর : ৬২১ খ্রি.।

২১. হিজরত শব্দের অর্থ কী? উত্তর : প্রস্থান বা স্থানান্তর।

২২. কত সালে হিজরত সংগঠিত হয়? উত্তর : ৬২২ খ্রি.।

২৩. মদিনা সনদ কবে প্রবর্তীত হয়? উত্তর : ৬২৪ খ্রি.।

২৪. মদিনা সনদে কয়টি শর্ত ছিল? উত্তর : ৪৭টি।

২৫. বদরের যুদ্ধ কবে সংঘটিত হয়? উত্তর : ৬২৪ খ্রি.।

২৬. ওহুদের যুদ্ধ কবে সংঘটিত হয়? উত্তর : ৬২৫ খ্রি.।

২৭. খন্দকের যুদ্ধ কবে সংঘটিত হয়? উত্তর : ৬২৭ খ্রি.।

২৮. হুদায়বিয়ার সন্ধি কত সালে স্বাক্ষরিত হয়? উত্তর : ৬২৮ খ্রি.।

২৯. মুলতবি হজ ও মুতার যুদ্ধ কবে সম্পন্ন হয়?

উত্তর : ৬২৯ খ্রি.।

৩০. ৬৩০ খ্রি. কেন বিখ্যাত? উত্তর : মুসলমানদের মক্কা বিজয়; হুনায়েনের যুদ্ধ ও তায়েফ বিজয়।

৩১. ৬৩১ খ্রি. কেন বিখ্যাত?

উত্তর : প্রতিনিধি প্রেরণের বছর ও তবুক অভিযানের জন্য।

৩২. ৬৩২ খ্রি. কেন বিখ্যাত? উত্তর : বিদায় হজ ও মুহাম্মদ (সা.)-এর ওফাত এবং হজরত আবুবকর (রা.)-এর খলিফা নির্বাচন।

৩৩. ‘বাইয়াত উর রিজুমান’ কী? উত্তর : বজ্রকঠোর শপথ।

৩৪. ‘বাইয়াত উস সাজারা’ কী? উত্তর : গাছের নিচে শপথ।

৩৫. ‘ফাতহুম মুবিন’ কোন ঘটনাকে বলা হয়েছে?

উত্তর : হুদায়বিয়ার সন্ধিকে।

৩৬. ‘ফাতহুম মুবিন’ অর্থ কী?

উত্তর : শ্রেষ্ঠ বিজয় বা মহাবিজয়।

৩৭. শ্রেষ্ঠ সংস্কারক কাকে বলে? উত্তর : মুহাম্মদ (সা.)কে।

৩৮. কোন যুদ্ধে মহানবী (সা.)-এর দন্ত মোবারক শহীদ হয়?

উত্তর : ওহুদের যুদ্ধে।

৩৯. কোন কাফেরের প্রস্তারাঘাতে মহানবীর দাঁত শহীদ হয়?

উত্তর : ইবনে কামিয়া নামে একজন কাফের।

৪০. বদর, ওহুদ ও খন্দকের যুদ্ধে মুসলিম সর্বাধিনায়ক কে ছিলেন?

উত্তর : হজরত মুহাম্মদ (সা.)।