প্রাথমিক শিক্ষাসমাপনী পরীক্ষার্থীদের বাংলা মডেল টেস্ট-৩

  সবুজ চৌধুরী ০৯ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সহকারী শিক্ষক, সেন্ট যোসেফ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় মোহাম্মদপুর, ঢাকা

সময়- ২.৩০ মি. পূর্ণমান-১০০

প্রদত্ত অনুচ্ছেদটি পড়ে ১ ও ২নং প্রশ্নগুলোর উত্তর লেখ :

“সার্থক জনম মাগো জন্মেছি এ দেশে।” কবির এ কথার অর্থ- আমাদের সৌভাগ্য ও সার্থকতা যে আমরা এদেশে জন্মেছি। বাংলাদেশে প্রায় সব লোক বাংলায় কথা বলে। আমরা বাঙালি। তবে আমাদের দেশে যেমন রয়েছে প্রকৃতির বৈচিত্র্য, তেমনি রয়েছে মানুষ ও ভাষার বৈচিত্র্য। বাংলাদেশের পার্বত্য জেলাগুলোতে রয়েছে বিভিন্ন ক্ষুদ্র জাতিসত্তার লোকজন। এদের কেউ চাকমা, কেউ মারমা, কেউ মুরং, কেউ তঞ্চঙ্গা ইত্যাদি। এছাড়াও রাজশাহী ও জামালপুরে রয়েছে সাঁওতাল ও রাজবংশীদের বসবাস। তাদের রয়েছে নিজ নিজ ভাষা। একই দেশ, একই মানুষ অথচ কত বৈচিত্র্য। এটাই বাংলাদেশের গৌরব। সবাই সবার বন্ধু, আপনজন। এদেশের রয়েছে নানা ধর্মের লোক। হিন্দু, মুসলমান, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান। সবাই মিলেমিশে আছে যুগ যুগ ধরে। এরকম খুব কম দেশেই আছে। আমাদের বাংলাদেশের বাইরেও অনেক বাঙালি আছে।

১। শব্দার্থ লেখ- (৫টি) ০৫

সার্থকতা, বৈচিত্র্য, প্রকৃতি, যুগ, ক্ষুদ্র, জেলা, পার্বত্য।

২। নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও-

ক) বাংলাদেশের পাঁচটি উপজাতির নাম লেখ। রাজবংশীরা কোথায় বাস করে? ২

খ) এদেশে জন্মগ্রহণ করে আমাদের জীবন সার্থক হয়েছে কেন? ৪

গ) ‘একই মানুষ অথচ কত বৈচিত্র্য।’- লাইনটি ব্যাখ্যা কর। ৪

প্রদত্ত অনুচ্ছেদটি পড়ে ৩ ও ৪ ক্রমিক প্রশ্নের উত্তর লেখ-

কম্পিউটার আধুনিক বিজ্ঞানের একটি বিস্ময়কর অবদান। আমাদের বর্তমান জীবনে এর নানামুখী ভূমিকা রয়েছে। একসময় কম্পিউটার ছিল হিসাব গণনার যন্ত্র। এখন তা হাজার কাজে পটু। কম্পিউটার দিয়ে দ্রুত ও নির্ভুলভাবে বড় বড় অঙ্ক করা যায়। বড় বড় গাণিতিক হিসাব যা মানুষের বছরের পর বছর লেগে যেত তা এখন কম্পিউটার কয়েক সেকেন্ডে করে দিতে পারে। আধুনিককালে ছাপার কাজে কম্পিউটার বিরাট ও অভাবনীয় পরিবর্তন এনেছে। ছবি আঁকা এবং কার্টুন ও চলচ্চিত্র তৈরিতেও কম্পিউটার অসাধারণ অবদান রেখেছে। আজকাল লেখাপড়া শেখার কাজে সহায়তা করছে কম্পিউটার। ইতিহাস, ভূগোল, বিজ্ঞান যে কোনো বিষয়ে পাঠ শেখা সম্ভব হচ্ছে এর সাহায্যে। এছাড়া ঘরের তাপমাত্রা ঠিক রাখা, কলকারখানার উৎপাদন, ট্রাফিক সংকেত ব্যবস্থাপনা কিংবা মহাকাশযানের গতিবিধি নিয়ন্ত্রণে কম্পিউটার অভাবনীয় ভূমিকা পালন করেছে।

৩। নিচে কয়েকটি শব্দ এবং শব্দার্থ দেয়া হল। উপযুক্ত শব্দটি দিয়ে নিচের বাক্যগুলোর শূন্যস্থান পূরণ কর। ০৫

বিস্ময়কর - অবাক করা ব্যাপার

অভাবনীয় - যা ভাবা যায় না

নিয়ন্ত্রণ - আয়ত্বে রাখা

পটু - দক্ষ

ব্যবস্থাপনা - সুষ্ঠভাবে কাজ সম্পাদন করা

আধুনিক - বর্তমান সময়ের

ক) - হারিয়ে গাড়িটি দুর্ঘটনায় পড়ল।

খ) বর্তমানে আমাদের দেশে নানা ক্ষেত্রে - উন্নতি সাধিত হয়েছে।

গ) পৃথিবীতে অনেক - জায়গা আছে।

ঘ) আমাদের দেশের ট্রাফিক - অত্যন্ত দুর্বল।

ঙ) তথ্য-প্রযুক্তির অবাধ ব্যবহার মানুষের জীবনকে - করেছে।

৪। নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও- ১৫

ক) কম্পিউটার কীভাবে আমাদের জীবনকে সহজ করেছে? তিনটি কারণ লেখ।

খ) কম্পিউটারের পাঁচটি ব্যবহার লেখ।

গ) আধুনিককালে কম্পিউটার কোন কোন ক্ষেত্রে অবদান রেখেছে বলে তুমি মনে কর?

৫। নিচের বাক্যগুলোর ক্রিয়াপদের ভবিষ্যৎ রূপ লেখ। (৫টি) ০৫

ক) দেখতে দেখতে বৃষ্টি থেমে গেল।

খ) এদেশকে আমরা ভালোবাসি।

গ) লোকটি পথে হেঁটে চলেছে।

ঘ) সে একজন ভালো মানুষ।

ঙ) মাঠে খেলা হচ্ছে।

চ) আমরা যাই।

ছ) তোমরা এখানে থাক।

৬। নিচের অনুচ্ছেদটি পড়ে কে, কী, কোথায়, কীভাবে, কেন- নির্দেশনা অনুসারে প্রশ্ন তৈরি কর- ০৫

বীরশ্রেষ্ঠ মুন্সী আবদুর রউফ ১৯৪৩ সালের ৮ মে ফরিদপুরের বোয়ালমারি থানার সালামতপুরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ইপিআর বাহিনীর সৈনিক ছিলেন। ১৯৭১ সালের ৮ এপ্রিল মুক্তিযোদ্ধারা পাকিস্তানি নৌসেনাদের উপর আক্রমণ করার জন্য বুড়িঘাট এলাকায় চিংড়ি খালের দু’পাশে অবস্থান নেন। পাকিস্তানিরা সাতটি স্পিডবোট ও দুটি মোটর লঞ্চ নিয়ে আক্রমণ করতে এগিয়ে এলে সল্পসংখ্যক মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু ছিল অবধারিত। মুন্সী আবদুর রউফ নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সহযোদ্ধাদের জীবন বাঁচালেন। একাই পাকিস্তানিদের সাতটি স্পিডবোট ডুবিয়ে দেন। কিন্তু পরক্ষণেই একটা গোলা এসে লাগে তার ওপর। তিনি শহিদ হন। তাঁর এই বীরত্বের জন্য তিনি বাঙালির হৃদয়ে অমর হয়ে রয়েছেন।

৭। নিচের যুক্তবর্ণগুলো ভেঙে লেখ এবং বাক্যে প্রয়োগ দেখাও: (৫টি) ১০

ক্ষ, শ্রু, ন্ড, ন্ধ, ঞ্চ, চ্ছ, ন্দ।

৮। বিরামচিহ্ন বসিয়ে অনুচ্ছেদটি পুনরায় লেখ : ০৫

তো যেই না হাতিটার ঐ বনে ঢোকা অমনি শুরু হয়ে গেল তোলপাড় নতুন অতিথি এসেছে সবাই স্বাগত জানাবার জন্য প্রস্তুত হচ্ছে কিন্তু ঐ দুষ্টু হাতিটার সে কী তুলকালাম কাণ্ড খুব জোরে গলা ফাটিয়ে দিল প্রচণ্ড একটা হুঙ্কার

৯। এক কথায় প্রকাশ কর : (৫টি) ০৫

ক) ব্যাপক আকার প্রাকৃতিক বা মনুষসূদ্দ ধ্বংস-

খ) অত্যন্ত নিকটবর্তী যা-

গ) কোনো কিছুর প্রতি বিশেষ আকর্ষণ-

ঘ) নদী বা সাগরের ঢেউ-

ঙ) জনমানবহীন উন্মুক্ত জায়গা বা মাঠ-

চ) নদী বা সাগরের তীরের বালুময় স্থান-

চ) প্রচণ্ড শব্দে আকাশে বিদ্যুতের প্রকাশ-

১০। নিচের বাক্যগুলোতে দাগ দেয়া শব্দগুলোর বিপরীত শব্দ লেখ। (৫টি) ০৫

ক) সকল মানুষই শৈশবকালে পবিত্র থাকে।

খ) কারও সঙ্গে ঝগড়া করা ঠিক নয়।

গ) তারা সবাই আমার প্রস্তাবে রাজি হল।

ঘ) তাকে আমি আজ রাতে স্বপ্নে দেখেছি।

ঙ) তোমার কথা কি ভোলা যায়?

চ) সে একজন বিশেষজ্ঞ।

ছ) আমরা সভ্য সমাজে বাস করি।

১১। কবিতাংশটি পড়ে নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও-

ফুল পাখি নই, নইকো পাহাড়

ঝরনা সাগর নই

মায়ের মুখের মধুর ভাষায়

মনের কথা কই।

বাংলা আমার মায়ের ভাষা

শহিদ ছেলের দান

আমার ভাইয়ের রক্তে লেখা

ফেব্রুয়ারির গান।

ক) মায়ের মুখের ভাষাকে মধুর বলা হয়েছে কেন? ২

খ) কবিতাংশে কবি কী বলতে চেয়েছেন? ৫

গ) ‘শহিদ ছেলের দান’ বলতে কী বোঝানো হয়েছে? ৩

১২। মনে কর তোমার নাম আষাঢ়। তোমার বিদ্যালয়ের নাম আনন্দ মুকুল প্রাথমিক বিদ্যালয়। একটি বেতার চ্যানেল আয়োজিত বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য নিচের ফরমটি পূরণ কর : ০৫

বিতর্ক প্রতিযোগিতা-২০১৯

রেডিও সবুজ, ঢাকা

১. নাম

২. পিতার নাম

৩. মাতার নাম

৪. বিদ্যালয়ের নাম

৫. শ্রেণি শাখা

৬. জন্ম তারিখ

৭. ঠিকানা

৮. ফোন নম্বর

১৩। মনে কর তোমার নাম রাজু। তোমার বিদ্যালয়ের নাম আনন্দকলি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এখন জেলা শিক্ষা অফিস আয়োজিত সুন্দর হস্তাক্ষর প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের অনুমতি চেয়ে প্রধান শিক্ষকের নিকট একখানা আবেদনপত্র লেখ। ০৫

১৪। নিচের যে কোনো একটি বিষয় নিয়ে ২০০ শব্দের মধ্যে রচনা লেখ : ১০

ক) তোমার মা।

(ভূমিকা, প্রিয় মানুষ মা, শৈশবে মা, গৃহিণী মা, দুঃখের দিনে মা, আনন্দের দিনে মা, শিক্ষক হিসেবে মা, মায়ের সঙ্গে অকৃত্তিম বন্ধন, উপসংহার)

খ) ছাত্রজীবনে সময়ের মূল্য।

(ভূমিকা, সময়ের মূল্য কী, সময়ের সদ্ব্যবহার, ছাত্রদের সময়ের মূল্যজ্ঞান, সময়ের অপব্যবহারের কুফল, উপসংহার)

গ) আমাদের প্রধান খাদ্যশস্য : ধান

(ভূমিকা, পরিচয়, প্রকারভেদ, উৎপাদনক্ষেত্র, চাষাবাদ প্রণালি, ফসল উত্তোলন ও সংরক্ষণ, ধানের গুরুত্ব, উপসংহার)

ঘ) বিজ্ঞানের বিস্ময় : কম্পিউটার

(ভূমিকা, কম্পিউটার কী, আবিষ্কার, প্রকারভেদ, বিভিন্ন অংশ, ব্যবহার, আধুনিক সভ্যতায় অবদান, উপসংহার)

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×