অযোগ্যরাই দেশের রাজনীতি কলুষিত করছে

প্রকাশ : ২৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  আহমেদ সজীব

জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মধ্য দিয়ে ক্ষমতার পালাবদল ঘটে থাকে। যদিও নির্বাচনে কে জয়ী হবে, তা ভোটাররা নির্ধারণ করে (?), তবুও প্রচার-প্রচারণা, শোডাউন, মিছিল, সমাবেশ ও আলোচনা সভার কমতি থাকে না।

প্রার্থীরা নির্বাচনের আগে জনসংযোগ বাড়াতে অস্থির হয়ে ওঠে। এ অস্থিরতা ও চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে দেশের প্রতিটি জনপদে। নির্বাচনে কাক্সিক্ষত জয় পেতে প্রার্থীদের সবচেয়ে বড় হাতিয়ার হচ্ছে প্রতিশ্রুতি।

আর্থ-সামাজিকসহ বিভিন্ন অবকাঠামোগত উন্নয়নের কথা বলে তারা ভোটারদের মন জয়ের চেষ্টা করছেন। কিন্তু নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পর প্রতিশ্র“তির বাস্তবায়ন হয় না বললেই চলে।

এমনও প্রার্থী খুঁজে পাওয়া যাবে- যাকে তার নির্বাচনী এলাকার অধিকাংশ মানুষ ভালোভাবে চিনেই না। দেশে ব্যবসায়ী রাজনীতিকের সংখ্যা বাড়ছে। প্রচারণায় তারাই বেশি এগিয়ে রয়েছেন।

দেশের রাজনীতির অবস্থা এমন হওয়ার পেছনে অন্যতম কারণ হল, শিক্ষিত ও সচেতন মানুষের রাজনীতিতে আগ্রহ কম থাকা। এজন্যই অযোগ্যরা দেশের রাজনীতি কলুষিত করছে।

শিক্ষিত ও সচেতন নাগরিকদের অংশগ্রহণই কেবল পারে অবস্থার উন্নতি করতে। স্বচ্ছ রাজনীতিতে জনসম্পৃক্ততা ও জনসমর্থনই বড় নিয়ামক। যাহোক, দেশের ১৭ কোটি মানুষকে সম্পদে পরিণত করতে হবে।

এ সুবিশাল কাজটি যারা দক্ষতার সঙ্গে সম্পন্ন করতে পারবে, তাদেরই উচিত সরকার পরিচালনার দায়িত্ব নেয়া।

শিক্ষার্থী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়