হিংসা পরিহার করুন

  আবদুর রফিক ২৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আমরা মুখে উচ্চারণ করি এবং অন্তর দ্বারা বিশ্বাস করি, হিংসা করা মহাপাপ। প্রকৃতপক্ষে হিংসা কাকে বলে, তা আমরা অনুধাবন করতে পারি না। ভাষা দ্বারা প্রকাশ করতে ব্যর্থ হই বিধায় হিংসা করা থেকে আমরা পুরোপুরিভাবে বেঁচে থাকতে পারছি না। মূলত হিংসা আত্মার একটি ব্যধি। অপরের ভালো বা উন্নতি দেখে মনে মনে তার ধ্বংস কামনা করার নাম হিংসা। ব্যাখ্যা করে এভাবে বলা যায়- কারও জ্ঞানবুদ্ধি, অর্থসম্পদ, মান-ইজ্জত, সুখ-স্বাচ্ছন্দ্য ইত্যাদি ভালো কিছু দেখে মনে কষ্ট লাগা এবং আকাক্সক্ষা করা- সেটা তার না থাকুক বা ধ্বংস হয়ে যাক এবং বাস্তবে সত্যি সত্যি তেমনটি ঘটলে মনে আনন্দ অনুভূত হওয়ার মনোবৃত্তিকেই হিংসা বলা হয়। সাধারণত নিজের বড়ত্ববোধ বা শত্র“তা থেকে হিংসার মনোভাব সৃষ্টি হয়। কিংবা কারও মন যদি ‘খবিশ’ প্রকৃতির হয়, তাহলেও মানুষের মধ্যে এ ধরনের প্রবৃত্তি জাগরুক থাকে, যা ইসলামের দৃষ্টিতে অতি নিকৃষ্ট কাজ হিসেবে গণ্য হয়। মূলত কারও উচ্চাশা যখন পূরণ না হয়, জীবনসংগ্রামে যখন সে অন্যের তুলনায় পেছনে পড়ে যায় অথবা উন্নতি-সমৃদ্ধি বা পদমর্যাদা লাভ করতে পারে না অথচ অন্য কেউ তার স্থান দখল করে একের পর এক সাফল্যের সিঁড়ি অতিক্রম করতে থাকে, তখন তার হৃদয়ে হিংসার আগুন জ্বলে ওঠে। এ অবস্থায় পিছিয়ে পড়া ব্যক্তি হিংসার আগুনে জ্বলতে জ্বলতে অসৎ চিন্তাভাবনায় নিমজ্জিত হয়। ঘুম ওই ব্যক্তির চোখ থেকে অনেক দূরে চলে যায়। সারা রাত পার হয় সাফল্য লাভকারীর ধ্বংস কামনায়। এমন হিংসুক ব্যক্তি চিরকাল অতিশয় মনোকষ্টে দিনযাপন করতে থাকে ও সফল ব্যক্তির ক্ষতি সাধনে লিপ্ত হয়।

মূল বিষয় হল, যার মধ্যে ধৈর্য, ক্ষমা ও সহানুভূতির অভাব বেশি, তার হৃদয়ে ততবেশি হিংসা নামক মনোরোগটির প্রকোপও বেশি। সত্য-মিথ্যার বিভাজন ও ভালো-মন্দের পার্থক্য করার জ্ঞান আল্লাহপাক সব সুস্থমস্তিষ্ক মানুষকে দান করেছেন। অতএব নিজেকে হিংসুটে পরিচয় দেয়া থেকে বিরত থাকাই উত্তম। নিশ্চয়ই আল্লাহ ধৈর্যশীলদের জন্য উত্তম ও রহমতের ফয়সালা নির্ধারণ করবেন। আমিন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মার্কেট, কাঁটাবন, ঢাকা

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×