এবারের বাজেটেই অন্তর্ভুক্ত করুন

  হাসানুল কাদির ২২ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

এবারের বাজেটেই অন্তর্ভুক্ত করুন

দেশের দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠায়, দারিদ্র্য বিমোচন, আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন, মর্যাদা বৃদ্ধি, সুস্বাস্থ্য গঠন, শিক্ষা, বাসস্থান নিশ্চিতকরণ, নারীর ক্ষমতায়ন, মা ও শিশু মৃত্যুহার হ্রাস করণে মাতৃত্বকালীন ভাতাপ্রাপ্ত সরকারিভাবে চিহ্নিত দরিদ্র মায়েদের নিয়ে ‘দারিদ্র্য বিমোচনে মাতৃত্বকালীন ভাতাপ্রাপ্ত মায়েদের জন্য ‘স্বপ্ন প্যাকেজ’ কর্মসূচি দেশের ১০টি উপজেলায় ইতিমধ্যে পাইলট আকারে বাস্তবায়ন হয়েছে।

সোশ্যাল এসিসট্যান্স প্রোগ্রাম ফর নন এসেটার্স-‘স্বপ্ন’ প্যাকেজ কর্মসূচিটি নারীর ক্ষমতায়নে সরকারের গৃহীত কর্মসূচিসহ বিশেষ দারিদ্র্য বিমোচনের একটি উদ্যোগ।

এটি মাতৃত্বকালীন ভাতাপ্রাপ্ত মা-বাবা-শিশু কেন্দি ক পাঁচ ভিত্তি সংবলিত একটি সমন্বিত সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী কার্যক্রম। মাতৃত্বকালীন ভাতাপ্রাপ্ত প্রতিটি পরিবারের জন্য ‘স্বপ্ন প্যাকেজ’ এর ৫টি ভিত্তি হল : ১. স্বাস্থ্য, পুষ্টি ও জন্মনিয়ন্ত্রণ কার্ড, ২. শিক্ষা ও বিনোদন কার্ড, ৩. স্বাস্থ্যসম্মত ল্যাট্রিনসহ একটি গৃহ, ৪. জীবিকায়ন সরঞ্জাম এবং ৫. কর্মসংস্থান সঞ্চয়, গাছ লাগানসহ প্রয়োজনে উন্নয়ন ঋণ প্রদান করা।

বাংলাদেশের গ্রাম এলাকার দরিদ্র নারী বিশেষ করে গর্ভবতী মায়েদের অবস্থা খুবই করুণ। মাতৃত্বকালীন স্বাস্থ্যের ধারণা শুধু মাতৃস্বাস্থ্যের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেই।

মাতৃস্বাস্থ্য যত্নের বিষয়টি মানবাধিকার ও নৈতিকতার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কীয় বলে এসব বিষয়ে গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। গ্রাম অঞ্চলের দরিদ্র গর্ভবতী মায়েদের অসহায়ত্বের কথা বিবেচনা করে তাদের দুঃখ-দুর্দশা লাঘব করার উদ্দেশ্যে সুস্থ সবল ভবিষ্যৎ প্রজন্মের প্রত্যাশায় সরকার ২০০৭-০৮ অর্থবছর থেকে দেশে ‘মাতৃত্বকালীন ভাতা’ প্রদান কর্মসূচির সূচনা করে।

দরিদ্র মায়েদের মাতৃত্বকালীন অধিকার সংরক্ষণে স্বাস্থ্য শিক্ষাসহ গর্ভকালীন সেবা, প্রসবোত্তর সেবাসহ নিজ ও সন্তানের পুষ্টি খাদ্য খরচ বাবদ একজন মা ৩৬ মাস ভাতা পাচ্ছেন।

প্রথম দিকে প্রতি মাসে তিনশ’ টাকা দিয়ে শুরু করলেও বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার এ ভাতার পরিমাণ ৮০০ টাকায় উন্নীত করেছে এবং এর মেয়াদকাল ২ বছর থেকে বাড়িয়ে ৩ বছর করা হয়েছে।

সন্দেহ নেই, এই ভাতা-দরিদ্র মা ও শিশুমৃত্যু হ্রাস, মাতৃদুগ্ধ পানের হার বৃদ্ধি, গর্ভাবস্থায় উন্নত পুষ্টি উপাদান গ্রহণ বৃদ্ধি, প্রসব ও প্রসবোত্তর সেবা বৃদ্ধি, ইপিআই ও পরিবার পরিকল্পনা গ্রহণের হার বৃদ্ধি, যৌতুক তালাক ও বাল্যবিবাহ প্রবণতা রোধ সর্বোপরি জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে বিশেষ অবদান রাখছে।

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় মাতৃত্বকালীন ভাতা প্রদান কার্যক্রম মহিলাবিষয়ক অধিদফতরের মাধ্যমে সারা দেশে বাস্তবায়ন করছে। ২০১৭-১৮ অর্থবছরে দেশে ‘মাতৃত্বকালীন ভাতা’ ভোগীর সংখ্যা ছিল ৬ লাখ।

স্বপ্ন প্যাকেজের উদ্ভাবক ও র্ড্প প্রধান এএইচএম নোমান আশা রাখেন, ‘স্বপ্ন প্যাকেজ’ কর্মসূচিটি দেশের ধারাবাহিকতা ও পরিচালিত সক্ষমতা অর্জনের লক্ষ্যে অন্তত ১০০টি উপজেলায় বাস্তবায়ন হলে ভালো হয়। তিনি আশা করেন, এ বাজেটেই তা অন্তর্ভুক্ত হবে।

উন্নয়নকর্মী, ঢাকা

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×