শিশুর নিরাপদে বেড়ে ওঠা নিশ্চিত করতে হবে

  মো. আজিনুর রহমান লিমন ০৬ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

শিশুরা আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। আজকের শিশু আগামী দিনে জাতিকে নেতৃত্ব দেবে। দেশ পরিচালনায় নিজেকে নিয়োজিত করবে। দেশের উন্নয়নে বড় ভূমিকা পালন করবে। নিষ্পাপ শিশুদের নিরাপদে বেড়ে ওঠা তার জন্মগত অধিকার।

শিশুর নিরাপদে বেড়ে ওঠার জন্য মা-বাবার কোলই হল একমাত্র নিরাপদ স্থান। এই কোল ব্যতীত আর কোনো কোল নেই, যে কোল শিশুকে নিরাপদে রাখতে পারে। মা-বাবার কোলজুড়ে যখন সন্তান আসে; তখন সেই সন্তান মা-বাবার ঘর উজ্জ্বল করে, বংশকে আলোকিত করে।

স্বাভাবিকভাবেই শিশুটি পরিবারের সবার আদর যত্নে বেড়ে ওঠে। শিশু শরীরে একটু আঘাত পেলে কিংবা অসুস্থ হলে মা-বাবার কলিজায় আঘাত লাগে। সন্তানের হাসিখুশিতে মা-বাবার বুকটা আনন্দে আত্মহারা হয়।

সন্তান ভালো কিছু অর্জন করলে সেই অর্জন মা-বাবাকে সুখী করে, তৃপ্তি দেয়। সন্তানের প্রতি মা-বাবার এই ভালোবাসা আল্লাহতায়ালার অফুরন্ত নেয়ামত। কিন্তু এই নেয়ামত বিনষ্ট করতে সমাজে অমানবিক, নিষ্ঠুর, হৃদয়হীন কিছু নরপশুর আবির্ভাব ঘটেছে; যারা নিজের সামান্য সুখের জন্য অবুঝ সন্তানের জীবন কেড়ে নিচ্ছে। সন্তানকে অন্যের কাছে বিক্রি করছে। মা-বাবার নিঃস্বার্থ ভালোবাসাকে কলঙ্কিত করছে।

প্রায়ই দেখা যাচ্ছে, মা-বাবার নিরাপদ কোল শিশু সন্তানের জন্য এখন অনিরাপদ হয়ে উঠেছে। অন্ধকার যুগের কালিমা লেপন করতে চলেছে কিছু নরপশু। মা-বাবার কোল শতভাগ নিরাপদ রাখতে আমাদের মধ্যে মানবতাবোধ জাগ্রত করতে হবে। নিষ্পাপ শিশুদের নিরাপদে বেড়ে ওঠা নিশ্চিত করতে হবে।

আছানধনী মিয়া পাড়া, চাপানী হাট, ডিমলা, নীলফামারী

[email protected]

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত