সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের নামে বাণিজ্য চলছে
jugantor
সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের নামে বাণিজ্য চলছে

  লুৎফর রহমান লাভলু  

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

পৃথিবী আজ এক অশুভ শক্তির হাতে বন্দি। মহামারি করোনার ফলে থমকে গেছে সারা বিশ্ব। সবক্ষেত্রে বিরাজ করছে স্থবির অবস্থা; যার প্রত্যক্ষ প্রভাব পড়েছে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থায়। বর্তমান শিক্ষাব্যবস্থার প্রতিটি স্তর স্কুল, কলেজ, ইউনির্ভাসিটি দিকে লক্ষ করলেই বোঝা যায় এখানকার নাজুক অবস্থা। নেই প্রত্যক্ষ ক্লাস করার সুযোগ। সবকিছু নির্ভর প্রাইভেট ও কোচিংয়ের ওপর। সর্বশেষ শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক ফেব্র“য়ারির ৪ তারিখে সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশিত হয়। তবে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের নামে চলছে বাণিজ্য; যার প্রভাব ইতোমধ্যে দেশের বিভাগীয় শহর থেকে প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে।

অনেক অসাধু শিক্ষক, কোচিং সেন্টার, বিভিন্ন প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের নামে বই, সাজেশন, হ্যান্ডনোটের জন্য হাতিয়ে নিচ্ছে প্রচুর টাকা। এর বিরূপ প্রভাব যেমন পড়েছে শিক্ষা ব্যবস্থার ওপর; তেমনি পড়েছে দরিদ্র শিক্ষার্থীদের ওপর। করোনার ফলে যেখানে ভেঙে পড়েছে দেশের আর্থিক ব্যবস্থা, অধিকাংশ মানুষের নেই কাজের পর্যাপ্ত সুযোগ; সেখানে মানুষকে সন্তানের শিক্ষার জন্য অতিরিক্ত টাকা গুনতে হচ্ছে, যা দুঃখজনক। প্রশাসনের উচিত, এ বিষয়ে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা। শিক্ষার নামে প্রহসন, সর্বোপরি সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের নামে বাণিজ্য বন্ধ করা সময়ের দাবি।

শিক্ষার্থী, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ, ঢাকা কলেজ

সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের নামে বাণিজ্য চলছে

 লুৎফর রহমান লাভলু 
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

পৃথিবী আজ এক অশুভ শক্তির হাতে বন্দি। মহামারি করোনার ফলে থমকে গেছে সারা বিশ্ব। সবক্ষেত্রে বিরাজ করছে স্থবির অবস্থা; যার প্রত্যক্ষ প্রভাব পড়েছে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থায়। বর্তমান শিক্ষাব্যবস্থার প্রতিটি স্তর স্কুল, কলেজ, ইউনির্ভাসিটি দিকে লক্ষ করলেই বোঝা যায় এখানকার নাজুক অবস্থা। নেই প্রত্যক্ষ ক্লাস করার সুযোগ। সবকিছু নির্ভর প্রাইভেট ও কোচিংয়ের ওপর। সর্বশেষ শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক ফেব্র“য়ারির ৪ তারিখে সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশিত হয়। তবে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের নামে চলছে বাণিজ্য; যার প্রভাব ইতোমধ্যে দেশের বিভাগীয় শহর থেকে প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে।

অনেক অসাধু শিক্ষক, কোচিং সেন্টার, বিভিন্ন প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের নামে বই, সাজেশন, হ্যান্ডনোটের জন্য হাতিয়ে নিচ্ছে প্রচুর টাকা। এর বিরূপ প্রভাব যেমন পড়েছে শিক্ষা ব্যবস্থার ওপর; তেমনি পড়েছে দরিদ্র শিক্ষার্থীদের ওপর। করোনার ফলে যেখানে ভেঙে পড়েছে দেশের আর্থিক ব্যবস্থা, অধিকাংশ মানুষের নেই কাজের পর্যাপ্ত সুযোগ; সেখানে মানুষকে সন্তানের শিক্ষার জন্য অতিরিক্ত টাকা গুনতে হচ্ছে, যা দুঃখজনক। প্রশাসনের উচিত, এ বিষয়ে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা। শিক্ষার নামে প্রহসন, সর্বোপরি সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের নামে বাণিজ্য বন্ধ করা সময়ের দাবি।

শিক্ষার্থী, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ, ঢাকা কলেজ