অর্থের জন্য নৈতিকতা বিসর্জন নয়
jugantor
অর্থের জন্য নৈতিকতা বিসর্জন নয়

  কাজী সুলতানুল আরেফিন  

১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

অর্থ উপার্জনের জন্য দেশে এক ধরনের অসুস্থ প্রতিযোগিতা চলছে। এটি করতে গিয়ে মানুষ নৈতিকতা ও মানবিকতা বিসর্জন দিতেও কুণ্ঠাবোধ করছে না। বিশেষ করে সরকারি দপ্তরগুলোয় নয়ছয় করে অর্থ লুটপাটের ঘটনা ঘটছে বেশি।

সম্প্রতি দেখা যাচ্ছে, রুপালি জগৎও এ প্রতিযোগিতা থেকে দূরে নেই! টাকার জন্য তারা কী করছে, তা ভেবে দেখারও প্রয়োজন মনে করছে না। টাকা হলেই হলো; বাকি সব চুলায় যাক-ভাবটা যেন এমন।

লোক ঠকিয়ে টাকা লুটে নেওয়ার প্রতিযোগিতা দ্রব্যমূল্যের বাজার থেকে শুরু করে চিকিৎসাসেবায় হরদম চলছে। দেশসেবা বা মানবসেবায় নিয়োজিত অনেকেই মানুষকে জিম্মি করে টাকা বানানোর ধান্ধায় আছে। এ টাকা বানানোর নেশা থেকেই দেশে মাদক ভয়াল থাবা বসাচ্ছে। নৈতিকতার এমন অবক্ষয়ের পেছনে আমাদের সমাজব্যবস্থাও দায়ী। প্রচলিত সমাজ ব্যবস্থায় টাকাওয়ালার প্রতি যে ধরনের আচরণ প্রদর্শন করা হয়, অন্যরা যত জ্ঞানী-গুণীই হন না কেন, তাদের ক্ষেত্রে তেমনটি করা হয় না। টাকার জন্য এ পৃথিবীতে অনেকের অনেক কিছু হয় না।

টাকার জন্য অনেক মানুষ ভালো খাবার খেতে পারে না। টাকার জন্য অনেকে ভালো পোশাক পরতে পারে না। টাকার জন্য অনেকে যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও মূল্যায়ন পায় না। টাকার জন্য অনেক মানুষের সম্পর্ক নষ্ট হয়ে যায়। টাকার জন্য অনেক মানুষ চিকিৎসা পায় না। টাকার জন্য ভালোবাসা চলে যায়। টাকার জন্য অনেকেই নীরবে অনেক স্বপ্ন হারায়।

এ টাকার জন্য অনেক নারী-পুরুষ বিপথে নামে। টাকার গরমে অনেকে অহংকারী হয়ে উঠে। টাকার কারণে অনেকে আপনজন চেনে না। টাকার কারণেই নীতি-নৈতিকতা হারায় অনেক মানুষ। তবে এ সমাজে অনেক সৎমানুষ আছেন, যারা পরিশ্রম করেই উপার্জন করেন। তাদের স্যালুট জানাই।

পূর্ব শিলুয়া, ছাগলনাইয়া, ফেনী

Arefin.feni99@gmail.com

অর্থের জন্য নৈতিকতা বিসর্জন নয়

 কাজী সুলতানুল আরেফিন 
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

অর্থ উপার্জনের জন্য দেশে এক ধরনের অসুস্থ প্রতিযোগিতা চলছে। এটি করতে গিয়ে মানুষ নৈতিকতা ও মানবিকতা বিসর্জন দিতেও কুণ্ঠাবোধ করছে না। বিশেষ করে সরকারি দপ্তরগুলোয় নয়ছয় করে অর্থ লুটপাটের ঘটনা ঘটছে বেশি।

সম্প্রতি দেখা যাচ্ছে, রুপালি জগৎও এ প্রতিযোগিতা থেকে দূরে নেই! টাকার জন্য তারা কী করছে, তা ভেবে দেখারও প্রয়োজন মনে করছে না। টাকা হলেই হলো; বাকি সব চুলায় যাক-ভাবটা যেন এমন।

লোক ঠকিয়ে টাকা লুটে নেওয়ার প্রতিযোগিতা দ্রব্যমূল্যের বাজার থেকে শুরু করে চিকিৎসাসেবায় হরদম চলছে। দেশসেবা বা মানবসেবায় নিয়োজিত অনেকেই মানুষকে জিম্মি করে টাকা বানানোর ধান্ধায় আছে। এ টাকা বানানোর নেশা থেকেই দেশে মাদক ভয়াল থাবা বসাচ্ছে। নৈতিকতার এমন অবক্ষয়ের পেছনে আমাদের সমাজব্যবস্থাও দায়ী। প্রচলিত সমাজ ব্যবস্থায় টাকাওয়ালার প্রতি যে ধরনের আচরণ প্রদর্শন করা হয়, অন্যরা যত জ্ঞানী-গুণীই হন না কেন, তাদের ক্ষেত্রে তেমনটি করা হয় না। টাকার জন্য এ পৃথিবীতে অনেকের অনেক কিছু হয় না।

টাকার জন্য অনেক মানুষ ভালো খাবার খেতে পারে না। টাকার জন্য অনেকে ভালো পোশাক পরতে পারে না। টাকার জন্য অনেকে যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও মূল্যায়ন পায় না। টাকার জন্য অনেক মানুষের সম্পর্ক নষ্ট হয়ে যায়। টাকার জন্য অনেক মানুষ চিকিৎসা পায় না। টাকার জন্য ভালোবাসা চলে যায়। টাকার জন্য অনেকেই নীরবে অনেক স্বপ্ন হারায়।

এ টাকার জন্য অনেক নারী-পুরুষ বিপথে নামে। টাকার গরমে অনেকে অহংকারী হয়ে উঠে। টাকার কারণে অনেকে আপনজন চেনে না। টাকার কারণেই নীতি-নৈতিকতা হারায় অনেক মানুষ। তবে এ সমাজে অনেক সৎমানুষ আছেন, যারা পরিশ্রম করেই উপার্জন করেন। তাদের স্যালুট জানাই।

পূর্ব শিলুয়া, ছাগলনাইয়া, ফেনী

Arefin.feni99@gmail.com

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন