মেয়াদোত্তীর্ণ খেজুর ধ্বংস করুন

  লিয়াকত হোসেন খোকন ১৬ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মতামত

রমজানে ইফতারিতে সবাই খেজুর খেতে পছন্দ করেন। কিন্তু ঢাকাসহ দেশের সর্বত্র বাজারে-দোকানে, ফুটপাতে প্যাকেটজাত ও খোলা অবস্থায় যেসব খেজুর পাওয়া যাচ্ছে, অধিকাংশই পচা ও মেয়াদোত্তীর্ণ বলে মনে হয়। একটু খেয়াল করে দেখলেই এ বিষয়টি পরিষ্কার হবে বলে আমি মনে করি।

ভ্রাম্যমাণ আদালত ঢাকার বাদামতলী পাইকারি ফলের মার্কেটে অভিযান চালিয়ে ইতিমধ্যে মেয়াদোত্তীর্ণ খেজুর আর কেমিক্যাল দিয়ে পাকানো আম জব্দ ও ধ্বংস করেছেন। এদিকে ঢাকার মিরপুর, পল্লবীসহ আশেপাশের এলাকার দোকানে-দোকানে, ফুটপাতে খেজুর ও আমসহ অন্যান্য ফল বিক্রি করা হচ্ছে।

এগুলের মধ্যে খেজুরগুলো পচা ও মেয়াদোত্তীর্ণ কিনা, আমসহ অন্যান্য ফলে কেমিক্যাল কিংবা ক্ষতিকর মেডিসিন দেয়া হয়েছে কিনা, তা যাচাই করতে অবিলম্বে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অভিযান পরিচালিত হবে আশা রাখি।

বিষাক্ত কেমিক্যাল মেশানো ফল খেলে পেটের পীড়া, ডায়রিয়া, জন্ডিস, কিডনি ও লিভারের অসুখ ছাড়াও অন্যান্য রোগ হয়- এ কথা সবারই কমবেশি জানা। পচা-মেয়াদোত্তীর্ণ খেজুর এবং কেমিক্যাল মেশানো আম ও অন্যান্য ফল বিক্রি নিষিদ্ধ করার ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কঠোর হবেন, এটাই প্রত্যাশা করি। দেশের মানুষ বিষাক্ত ফল খেয়ে অকালে প্রাণ হারাবেন, এটা কাম্য হতে পারে না। পচা, কেমিক্যাল মেশানো ও মেয়াদোত্তীর্ণ ফল ও অন্যান্য খাদ্যপণ্য যারা বিক্রি করছে, শুধু জরিমানা বা জব্দ নয়, বরং অপরাধী চক্রকে যাবজ্জীবন জেল দেয়া হোক। কারণ তারা আমাদের জীবন নিয়ে দিনের পর দিন ছিনিমিনি খেলছে।

ঢাকা f

আরও পড়ুন
pran
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
bestelectronics

mans-world

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.