শ্রীলংকা থেকে শিক্ষা নিয়ে সাবধান হওয়া উচিত
jugantor
শ্রীলংকা থেকে শিক্ষা নিয়ে সাবধান হওয়া উচিত

  মো. ইয়াছিন মজুমদার  

১৮ মে ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

শ্রীলংকা উন্নয়নের জন্য বৈদেশিক ঋণ নিয়ে বড় বড় মেগা প্রকল্প করে আজ ঋণ শোধ করতে পারছে না।

ঋণের ভারে রিজার্ভ শূন্য হয়ে যাওয়ার কারণে বিদেশ থেকে প্রয়োজনীয় দ্রব্য আমদানি করতে না পারায় দেশে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম আকাশছোঁয়া। শুরু হয়েছে জনভোগান্তি।

ঋণ করে এসি লাগানোর চেয়ে নিজের টাকায় ফ্যানের বাতাস অনেক ভালো। পত্র-পত্রিকার তথ্য অনুযায়ী, ২০০৮ সালে বাংলাদেশে মাথাপিছু বৈদেশিক ঋণ ছিল মাত্র ছয় হাজার টাকা। বর্তমানে মাথাপিছু ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে প্রায় ৭০ হাজার টাকা। ঋণ যতগুণ বেড়েছে, উন্নয়ন কি ততগুণ হয়েছে? উন্নয়ন প্রকল্পে দুর্নীতির বিষয়ে সজাগ থাকতে হবে। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যাতায়াত, খাদ্য, জ্বালানি এ জাতীয় অত্যাবশ্যকীয় খাত ছাড়া অন্য বিলাসি খাতে ঋণ করার ক্ষেত্রে এখনই সাবধান হতে হবে।

শ্রীরামপুর, নাঙ্গলকোট, কুমিল্লা

শ্রীলংকা থেকে শিক্ষা নিয়ে সাবধান হওয়া উচিত

 মো. ইয়াছিন মজুমদার 
১৮ মে ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

শ্রীলংকা উন্নয়নের জন্য বৈদেশিক ঋণ নিয়ে বড় বড় মেগা প্রকল্প করে আজ ঋণ শোধ করতে পারছে না।

ঋণের ভারে রিজার্ভ শূন্য হয়ে যাওয়ার কারণে বিদেশ থেকে প্রয়োজনীয় দ্রব্য আমদানি করতে না পারায় দেশে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম আকাশছোঁয়া। শুরু হয়েছে জনভোগান্তি।

ঋণ করে এসি লাগানোর চেয়ে নিজের টাকায় ফ্যানের বাতাস অনেক ভালো। পত্র-পত্রিকার তথ্য অনুযায়ী, ২০০৮ সালে বাংলাদেশে মাথাপিছু বৈদেশিক ঋণ ছিল মাত্র ছয় হাজার টাকা। বর্তমানে মাথাপিছু ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে প্রায় ৭০ হাজার টাকা। ঋণ যতগুণ বেড়েছে, উন্নয়ন কি ততগুণ হয়েছে? উন্নয়ন প্রকল্পে দুর্নীতির বিষয়ে সজাগ থাকতে হবে। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যাতায়াত, খাদ্য, জ্বালানি এ জাতীয় অত্যাবশ্যকীয় খাত ছাড়া অন্য বিলাসি খাতে ঋণ করার ক্ষেত্রে এখনই সাবধান হতে হবে।

শ্রীরামপুর, নাঙ্গলকোট, কুমিল্লা

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন