সম্প্রীতি ছড়িয়ে পড়ুক ফুটবল বিশ্বকাপে
jugantor
সম্প্রীতি ছড়িয়ে পড়ুক ফুটবল বিশ্বকাপে

  ফজলে রাব্বি  

২৩ নভেম্বর ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

পৃথিবীতে কম মানুষই আছেন, যারা ফুটবল খেলা পছন্দ করেন না। ফুটবলপ্রেমীদের আবেগ আর ভালোবাসা থাকে ফুটবল বিশ্বকাপ ঘিরে। ফুটবল বিশ্বকাপ মানেই বাংলাদেশের আকাশে বিভিন্ন দেশের রংবেরঙের পতাকা। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে সব প্রান্তে চলে ফুটবলপ্রেমীদের আবেগ মাখানো সমর্থন। নিজের সমর্থিত দলকে ভালোবেসে হয় কত যুক্তিতর্ক। এ তর্কবির্তক ফুটবলকে করে প্রাণবন্ত। সূচনালগ্ন থেকেই ফুটবলের প্রতি ভালোবাসা বাঙালিদের। ফুটবলে মিশে আছে তাদের আবেগ। বাঙালিরা ফুটবলে খুব একটা অগ্রসর না হলেও বিশ্বকাপ এলেই ফুটবলপ্রেমীদের মধ্যে সৃষ্টি হয় দলে দলে বিভক্তি। প্রতিপক্ষকে ছোট করার চেষ্টা করা হয় বিভিন্নভাবে। নিজেদের নৈতিকতাকে বিসর্জন দিতেও ভাবেন না অনেকে। আবার অতি উৎসাহী ফুটবল ভক্তরা লিপ্ত হন সংঘর্ষে। এতে নষ্ট হয় সামাজিক সম্পর্ক। রক্ত ঝরার খবরও শোনা যায় কোথাও কোথাও। এসব ঘটনায় খালি হয় মায়ের কোল, ফুটবলপ্রেমীদের জন্য যেটা মোটেও সুখকর সংবাদ নয়।

বিনোদনের পরিবর্তে আতঙ্ক সৃষ্টি কাম্য নয়। তাই তিক্ততা নয়, ফুটবল বয়ে আনুক সম্প্রীতি; বিভেদ নয়, সৃষ্টি করুক সুসম্পর্ক। ফুটবল সবার মাঝে ছড়িয়ে দিক ভালোবাসা, আনন্দ, উল্লাস। বয়ে আনুক শান্তির সুবাতাস। আমাদের সতর্কতা, আমাদের অদম্য ইচ্ছাই ফুটবলকে নিয়ে যাবে এক অনন্য উচ্চতায়। কদর বাড়বে আমাদের ফুটবল অঙ্গনের। সাফল্যের সিঁড়িতে পা রাখবে দেশীয় ফুটবল। আমাদের সচেতনতা, ভালোবাসা, সম্প্রীতি ফুটবলের জনপ্রিয়তা আরও বৃদ্ধি করবে, এতে কোনো সন্দেহ নেই।

শিক্ষার্থী, ঢাকা কলেজ

সম্প্রীতি ছড়িয়ে পড়ুক ফুটবল বিশ্বকাপে

 ফজলে রাব্বি 
২৩ নভেম্বর ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

পৃথিবীতে কম মানুষই আছেন, যারা ফুটবল খেলা পছন্দ করেন না। ফুটবলপ্রেমীদের আবেগ আর ভালোবাসা থাকে ফুটবল বিশ্বকাপ ঘিরে। ফুটবল বিশ্বকাপ মানেই বাংলাদেশের আকাশে বিভিন্ন দেশের রংবেরঙের পতাকা। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে সব প্রান্তে চলে ফুটবলপ্রেমীদের আবেগ মাখানো সমর্থন। নিজের সমর্থিত দলকে ভালোবেসে হয় কত যুক্তিতর্ক। এ তর্কবির্তক ফুটবলকে করে প্রাণবন্ত। সূচনালগ্ন থেকেই ফুটবলের প্রতি ভালোবাসা বাঙালিদের। ফুটবলে মিশে আছে তাদের আবেগ। বাঙালিরা ফুটবলে খুব একটা অগ্রসর না হলেও বিশ্বকাপ এলেই ফুটবলপ্রেমীদের মধ্যে সৃষ্টি হয় দলে দলে বিভক্তি। প্রতিপক্ষকে ছোট করার চেষ্টা করা হয় বিভিন্নভাবে। নিজেদের নৈতিকতাকে বিসর্জন দিতেও ভাবেন না অনেকে। আবার অতি উৎসাহী ফুটবল ভক্তরা লিপ্ত হন সংঘর্ষে। এতে নষ্ট হয় সামাজিক সম্পর্ক। রক্ত ঝরার খবরও শোনা যায় কোথাও কোথাও। এসব ঘটনায় খালি হয় মায়ের কোল, ফুটবলপ্রেমীদের জন্য যেটা মোটেও সুখকর সংবাদ নয়।

বিনোদনের পরিবর্তে আতঙ্ক সৃষ্টি কাম্য নয়। তাই তিক্ততা নয়, ফুটবল বয়ে আনুক সম্প্রীতি; বিভেদ নয়, সৃষ্টি করুক সুসম্পর্ক। ফুটবল সবার মাঝে ছড়িয়ে দিক ভালোবাসা, আনন্দ, উল্লাস। বয়ে আনুক শান্তির সুবাতাস। আমাদের সতর্কতা, আমাদের অদম্য ইচ্ছাই ফুটবলকে নিয়ে যাবে এক অনন্য উচ্চতায়। কদর বাড়বে আমাদের ফুটবল অঙ্গনের। সাফল্যের সিঁড়িতে পা রাখবে দেশীয় ফুটবল। আমাদের সচেতনতা, ভালোবাসা, সম্প্রীতি ফুটবলের জনপ্রিয়তা আরও বৃদ্ধি করবে, এতে কোনো সন্দেহ নেই।

শিক্ষার্থী, ঢাকা কলেজ

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন