সোনারগাঁয়ের পুকুরগুলো হারিয়ে যাচ্ছে

  হাজী মোহাম্মদ মহসীন ২৯ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সোনারগাঁ পরগনার পুরো অংশই এক সময় হিন্দু জমিদারের দখলে ছিল। ছোটবেলায় দেখেছি, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সাঁতার প্রতিযোগিতা হতো এখানকার পুকুরগুলোয়। ব্রিটিশ শাসনামলের স্মৃতিবিজড়িত অনেক বছরের পরিচিত পুকুরগুলো ভরাট করার কারণে সোনারগাঁয়ের অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্য হারিয়ে যাচ্ছে। অপরিকল্পিত নগরায়ণের ফলে বেশির ভাগ পুকুরই ভরাট হয়ে গেছে। আধুনিক ভবনে শাওয়ার থাকলেও পুরনো দিনের মানুষ ও দরিদ্র লোকজন গোসল, থালাবাসন ও কাপড়চোপড় ধোয়ার জন্য এখনও পুকুরকেই বেছে নেন। তৎকালে যে বাড়িতে পুকুর থাকত, সেটিকে আর্দশ বাড়ি বলা হতো। এমনকি ছেলেমেয়ের বিয়ের ক্ষেত্রে বাড়িতে পুকুর আছে কিনা, তা নিশ্চিত হয়ে তবেই বিয়েতে সম্মতি প্রদান করা হতো।

টিকে থাকা পুকুরগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশনের চত্বরে অবস্থিত পুকুর, বড় সরদার বাড়ির উভয় পাশে দুটি পুকুর, প্রাচীন জনপথ পানাম নগরীর পুরাতন ভবন ঘেঁষে থাকা একাধিক পুকুর ও বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের বিষ্ণুপদ ব্যানার্জির (মধু ঠাকুরের বাড়ি) বাড়ির পুকুর এবং দীঘি চাঁনপুর দীঘি উল্লেখযোগ্য। ক্রমান্বয়ে সোনারগাঁয়ের আনাচে-কানাচে থাকা পুকুরগুলো ভরাট হয়ে যাচ্ছে। এগুলোর মধ্যে ব্যক্তিমালিকানার পাশাপাশি সরকারি পুকুরও রয়েছে।

সোনারগাঁ উপজেলার পরিসংখ্যান অফিসের দেয়া তথ্যমতে, ২০১৭ সালের জরিপ অনুযায়ী এ অঞ্চলে পুকুরের সংখ্যা ১ হাজার ৯৯৫টি। অন্যদিকে মৎস্য অফিসের জরিপে পুকুরের সংখ্যা ২ হাজার ৯৫৭টি। দুটি সরকারি প্রতিষ্ঠানের একই সময়ে করা জরিপে পুকুরের সংখ্যার এ ভিন্নতা কেন? তাহলে আমরা কোনটিকে সঠিক বলে ধরে নিব? যাই হোক, অপরিকল্পিত নগরায়ণের কবলে পড়ে এসব পুকুর কতদিন টিকে থাকবে, তা নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন। প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষার পাশাপাশি প্রাচীন ঐহিত্য হিসেবে এসব পুকুরের টিকে থাকা জরুরি।

প্রকৃতিবিষয়ক লেখক, গবেষক, সোনারগাঁ, নারায়ণগঞ্জ

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.