উপসাগরীয় সংকট সমাধানে সৌদি-কাতার যাচ্ছেন ট্রাম্পের জামাতা
jugantor
উপসাগরীয় সংকট সমাধানে সৌদি-কাতার যাচ্ছেন ট্রাম্পের জামাতা

  যুগান্তর ডেস্ক  

৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৬:১০:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জামাতা এবং হোয়াইট হাউসের জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা জেরার্ড কুশনার এবং তার একটি টিম চলতি সপ্তাহে সৌদি আরব ও কাতার সফর করবেন। উপসাগরীয় দেশগুলোর মধ্যকার দীর্ঘদিনের সংকট সমাধানে ওই দুই দেশের সঙ্গে আলোচনা করতে তারা এই সফরে যাবেন। মার্কিন গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে এ খবর প্রকাশ করেছে কাতারভিত্তিক নির্ভরযোগ্য সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা।

রোববার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প প্রশাসনের শীর্ষ এক কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, সৌদির নিওম শহরে ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন কুশনার। এর পরে তিনি কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানির সঙ্গে সে দেশে গিয়ে দেখা করবেন।

মার্কিন কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে দেশটির অ্যাক্সিওস ওয়েবসাইটের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই সফরের মাধ্যমে সৌদি আরব এবং কাতারের মধ্যে যেসব ইস্যু নিয়ে বিরোধ চলছে সেসব বিষয়ে সমাধান করে একটি চুক্তিতে পৌঁছাতে সৌদি আরব এবং কাতারের নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করবেন কুশনার। দীর্ঘদিন ধরে চলমান এই সংকটের সমাধান চাচ্ছেন তিনি।

সন্ত্রাসবাদে সমর্থন ও ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক বজায় রাখার অভিযোগে ২০১৭ সালে কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্কছেদ করে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও মিসর। কাতারের ওপর নিষেধাজ্ঞাও আরোপ করা হয়। বলা হয়, দোহা সন্ত্রাসবাদের সমর্থক। যদিও এসব অভিযোগ প্রথম থেকেই অস্বীকার করে আসছে দোহা। দেশটির অভিযোগ তাদের সার্বভৌমত্বে আঘাত হানার চেষ্টা করছে এসব দেশ। সেই সময় কাতারের সঙ্গে স্থল, জল ও আকাশসীমা বন্ধ করে দেয়া হয়। নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নিতে দেশটির ওপর ১৩টি শর্ত বেঁধে দেয় চার আরব দেশ।

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা রবার্ট ও'ব্রিয়েন চলতি মাসের শুরুতে বলেছিলেন যে, উপসাগরীয় দেশগুলোর মধ্যে সংকট সমাধানকেই প্রশাসন সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়ে থাকে। জানুয়ারিতে ট্রাম্প ক্ষমতা ছাড়ার আগেই হয়তো এই সমাধান চলে আসতে পারে বলেও আশা প্রকাশ করেছেন তিনি। এসব জল্পনার মধ্যেই মধ্যপ্রাচ্যে কুশনারের সফরকে গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে।

উপসাগরীয় সংকট সমাধানে সৌদি-কাতার যাচ্ছেন ট্রাম্পের জামাতা

 যুগান্তর ডেস্ক 
৩০ নভেম্বর ২০২০, ০৪:১০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জামাতা এবং হোয়াইট হাউসের জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা জেরার্ড কুশনার এবং তার একটি টিম চলতি সপ্তাহে সৌদি আরব ও কাতার সফর করবেন। উপসাগরীয় দেশগুলোর মধ্যকার দীর্ঘদিনের সংকট সমাধানে ওই দুই দেশের সঙ্গে আলোচনা করতে তারা এই সফরে যাবেন। মার্কিন গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে এ খবর প্রকাশ করেছে কাতারভিত্তিক নির্ভরযোগ্য সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা।

রোববার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প প্রশাসনের শীর্ষ এক কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, সৌদির নিওম শহরে ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন কুশনার। এর পরে তিনি কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানির সঙ্গে সে দেশে গিয়ে দেখা করবেন।

মার্কিন কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে দেশটির অ্যাক্সিওস ওয়েবসাইটের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই সফরের মাধ্যমে সৌদি আরব এবং কাতারের মধ্যে যেসব ইস্যু নিয়ে বিরোধ চলছে সেসব বিষয়ে সমাধান করে একটি চুক্তিতে পৌঁছাতে সৌদি আরব এবং কাতারের নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করবেন কুশনার। দীর্ঘদিন ধরে চলমান এই সংকটের সমাধান চাচ্ছেন তিনি।

সন্ত্রাসবাদে সমর্থন ও ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক বজায় রাখার অভিযোগে ২০১৭ সালে কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্কছেদ করে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও মিসর। কাতারের ওপর নিষেধাজ্ঞাও আরোপ করা হয়। বলা হয়, দোহা সন্ত্রাসবাদের সমর্থক। যদিও এসব অভিযোগ প্রথম থেকেই অস্বীকার করে আসছে দোহা।  দেশটির অভিযোগ তাদের সার্বভৌমত্বে আঘাত হানার চেষ্টা করছে এসব দেশ। সেই সময় কাতারের সঙ্গে স্থল, জল ও আকাশসীমা বন্ধ করে দেয়া হয়। নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নিতে দেশটির ওপর ১৩টি শর্ত বেঁধে দেয় চার আরব দেশ।

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা রবার্ট ও'ব্রিয়েন চলতি মাসের শুরুতে বলেছিলেন যে, উপসাগরীয় দেশগুলোর মধ্যে সংকট সমাধানকেই প্রশাসন সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়ে থাকে। জানুয়ারিতে ট্রাম্প ক্ষমতা ছাড়ার আগেই হয়তো এই সমাধান চলে আসতে পারে বলেও আশা প্রকাশ করেছেন তিনি। এসব জল্পনার মধ্যেই মধ্যপ্রাচ্যে কুশনারের সফরকে গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন-২০২০