আরও ৪ বছর ক্ষমতায় থাকার ঘোষণা ট্রাম্পের!
jugantor
আরও ৪ বছর ক্ষমতায় থাকার ঘোষণা ট্রাম্পের!

  যুগান্তর ডেস্ক  

০২ ডিসেম্বর ২০২০, ২১:১৭:৩৪  |  অনলাইন সংস্করণ

আরও ৪ বছর ক্ষমতায় থাকার ঘোষণা ট্রাম্পের!

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, আমরা আরও চার বছর ক্ষমতায় থাকছি। এই চার বছরের মেয়াদ ২০২১ এর জানুয়ারিতে শুরু হতে পারে।

মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসের ক্রিসমাস রিসেপশনে ঘনিষ্ঠদের কাছে এ কথা বলেন তিনি। সেখানে উপস্থিত এক ব্যক্তি বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। খবর সিএনএনের।

ওই অনুষ্ঠানে ট্রাম্পের শতাধিক ঘনিষ্ঠ ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন। ট্রাম্প বলেন, আমরা অসাধারণ ৪টি বছর কাটালাম। আমরা আরও ৪ বছর থাকছি।

আমরা আরও চারবার এ ধরনের অনুষ্ঠান করব। কিন্তু তাদের এটি পছন্দ হচ্ছে না। সৎভাবে যদি বলি, এটি খুবই লজ্জার ব্যাপার।

করোনাভাইরাস মহামারী পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা মাস্ক পরার জন্য নির্দেশিকা জারি করলেও হোয়াইট হাউজে বড়দিনের অনুষ্ঠানে অনেকেই তা পরেননি। অনুষ্ঠান কক্ষে অনেককেই জোরে কাশতে শোনা গেছে।

এদিকে রোববার ফক্স টিভিকে দেয়া প্রথম সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প বলেছেন, তিনি কিছুতেই নির্বাচনে পরাজয় মানবেন না। ছয় মাসেও তার এই মনোভাবের পরিবর্তন হবে না।

৪৫ মিনিটের ওই সাক্ষাৎকার নির্বাচনে কারচুপির অসংখ্য অভিযোগ করলেও কোনো অকাট্য প্রমাণ বা যুক্তি দাঁড় করাতে ব্যর্থ হন এই রিপাবলিকান নেতা। সাক্ষাৎকার গ্রহণ করেন ফক্স টিভির ম্যারিয়া বর্টিরোমো।

ভোট কারচুপির সপক্ষে কোনো প্রমাণ না দিয়েই তিনি আবারও বলেন, ‘এটি পাতানো নির্বাচন ছিল। এ নির্বাচন একেবারে জালিয়াতিপূর্ণ ছিল। আমরা খুব সহজে এ নির্বাচনে জয়লাভ করেছি।’

ট্রাম্প বিজয়ী প্রার্থীকে অভিনন্দন জানাবেন না উল্লেখ করে বলেন, তিনি জো বাইডেনের কাছে কখনো পরাজয় মেনে নেবেন না এবং ব্যাপক ভোট জালিয়াতির ব্যাপারে তার অভিযোগ প্রত্যাহার করবেন না।

‘ভোট জালিয়াতির দাবির বিষয়ে আমার মনোভাব পরিবর্তন করা একেবারে অসম্ভব। এ ব্যাপারে ছয় মাসের মধ্যেও আমার মনোভাব বদলাবে না।’


আরও ৪ বছর ক্ষমতায় থাকার ঘোষণা ট্রাম্পের!

 যুগান্তর ডেস্ক 
০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০৯:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
আরও ৪ বছর ক্ষমতায় থাকার ঘোষণা ট্রাম্পের!
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ছবি: সংগৃহীত

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, আমরা আরও চার বছর ক্ষমতায় থাকছি। এই চার বছরের মেয়াদ ২০২১ এর জানুয়ারিতে শুরু হতে পারে। 

মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসের ক্রিসমাস রিসেপশনে ঘনিষ্ঠদের কাছে এ কথা বলেন তিনি। সেখানে উপস্থিত এক ব্যক্তি বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।  খবর সিএনএনের। 

ওই অনুষ্ঠানে ট্রাম্পের শতাধিক ঘনিষ্ঠ ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন। ট্রাম্প বলেন, আমরা অসাধারণ ৪টি বছর কাটালাম। আমরা আরও ৪ বছর থাকছি। 

আমরা আরও চারবার এ ধরনের অনুষ্ঠান করব। কিন্তু তাদের এটি পছন্দ হচ্ছে না। সৎভাবে যদি বলি, এটি খুবই লজ্জার ব্যাপার।

করোনাভাইরাস মহামারী পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা মাস্ক পরার জন্য নির্দেশিকা জারি করলেও হোয়াইট হাউজে বড়দিনের অনুষ্ঠানে অনেকেই তা পরেননি। অনুষ্ঠান কক্ষে অনেককেই জোরে কাশতে শোনা গেছে।

এদিকে রোববার ফক্স টিভিকে দেয়া প্রথম সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প বলেছেন, তিনি কিছুতেই নির্বাচনে পরাজয় মানবেন না। ছয় মাসেও তার এই মনোভাবের পরিবর্তন হবে না। 

৪৫ মিনিটের ওই সাক্ষাৎকার নির্বাচনে কারচুপির অসংখ্য অভিযোগ করলেও কোনো অকাট্য প্রমাণ বা যুক্তি দাঁড় করাতে ব্যর্থ হন এই রিপাবলিকান নেতা।  সাক্ষাৎকার গ্রহণ করেন ফক্স টিভির ম্যারিয়া বর্টিরোমো।

ভোট কারচুপির সপক্ষে কোনো প্রমাণ না দিয়েই তিনি আবারও বলেন, ‘এটি পাতানো নির্বাচন ছিল। এ নির্বাচন একেবারে জালিয়াতিপূর্ণ ছিল। আমরা খুব সহজে এ নির্বাচনে জয়লাভ করেছি।’

ট্রাম্প বিজয়ী প্রার্থীকে অভিনন্দন জানাবেন না উল্লেখ করে বলেন, তিনি জো বাইডেনের কাছে কখনো পরাজয় মেনে নেবেন না এবং ব্যাপক ভোট জালিয়াতির ব্যাপারে তার অভিযোগ প্রত্যাহার করবেন না। 

 ‘ভোট জালিয়াতির দাবির বিষয়ে আমার মনোভাব পরিবর্তন করা একেবারে অসম্ভব। এ ব্যাপারে ছয় মাসের মধ্যেও আমার মনোভাব বদলাবে না।’


 

 

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন-২০২০