এবার ট্রাম্পের সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্ক ছিন্ন করল নিউইয়র্ক সিটি
jugantor
এবার ট্রাম্পের সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্ক ছিন্ন করল নিউইয়র্ক সিটি

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৪ জানুয়ারি ২০২১, ১৫:৪৯:৫৫  |  অনলাইন সংস্করণ

এবার ট্রাম্পের সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্ক ছিন্ন করল নিউইয়র্ক সিটি

মার্কিন কংগ্রেস ভবন ক্যাপিটল হিলে নজিরবিহীন তাণ্ডবের ঘটনায় ডোনাল্ড ট্রাম্প মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্ক ছিন্ন করেছে নিউইয়র্ক সিটি কর্তৃপক্ষ।

বুধবার নিউইয়র্ক সিটির মেয়র বিল দে ব্লাসিও নিজেই এ ঘোষণা দিয়েছেন বলে রয়টার্স জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়, দুটি আইস-স্কেটিংসহ রিংকস একটি পার্ক এবং একটি গলফ কোর্স চালানোর জন্য ট্রাম্প অর্গানাইজেশনের সঙ্গে ১৭ মিলিয়ন ডলারের চুক্তি করেছিল নিউইয়র্ক সিটি কর্তৃপক্ষ।

ক্যাপিটল হিলে তাণ্ডবের ঘটনায় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে দায়ী করে মেয়র ব্লাসিও বলেন, মার্কিন সরকারের বিরুদ্ধে বিদ্রোহের উসকানি দেওয়া স্পষ্টই অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড।

ট্রাম্প অর্গানাইজেশনের সঙ্গে নিউইয়র্ক সিটি কোনো সম্পর্ক রাখবে না বলে এ সময় জানান তিনি।

গত সপ্তাহে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের বিজয়কে কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনে স্বীকৃতি দেওয়ার সময় ক্যাপিটল ভবনে হামলা চালান ট্রাম্প সমর্থকরা।

ওই দাঙ্গায় উসকানি দেওয়ার অভিযোগে বুধবার তাকে অভিশংসনের পক্ষে ভোট দিয়েছেন প্রতিনিধি পরিষদের সদস্যরা। যাতে তার নিজ দল রিপাবলিকান পার্টির সদস্যদেরও সায় ছিল।

আগামী ২০ জানুয়ারি প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেবেন ডেমোক্র্যাটদলীয় জো বাইডেন। এর আগে সিনেটে ট্রাম্পের বিচার হওয়া সম্ভব হবে না। অর্থাৎ মেয়াদ শেষ না করে অপমানজনকভাবে ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়াতে হচ্ছে না এই আবাসন ব্যবসায়ী ধনকুবেরকে।

তবে পরবর্তী সময় সিনেটে বিচারের মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন তিনি। যদি তাতে তিনি দোষী সাব্যস্ত হন, তবে ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া থেকে তাকে বিরত থাকতে হবে।

সপ্তাহখানেক পর সিনেটের সংখ্যাগরিষ্ঠ নেতা হতে যাওয়া ডেমোক্র্যাটিকদলীয় চাক শুমার বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম প্রেসিডেন্ট হিসেবে দ্বিতীয়বার অভিশংসিত হওয়ার লজ্জা বহন করছেন ট্রাম্প।

এবার ট্রাম্পের সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্ক ছিন্ন করল নিউইয়র্ক সিটি

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৪ জানুয়ারি ২০২১, ০৩:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
এবার ট্রাম্পের সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্ক ছিন্ন করল নিউইয়র্ক সিটি
ছবি: সংগৃহীত

মার্কিন কংগ্রেস ভবন ক্যাপিটল হিলে নজিরবিহীন তাণ্ডবের ঘটনায় ডোনাল্ড ট্রাম্প মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্ক ছিন্ন করেছে নিউইয়র্ক সিটি কর্তৃপক্ষ। 

বুধবার নিউইয়র্ক সিটির মেয়র বিল দে ব্লাসিও নিজেই এ ঘোষণা দিয়েছেন বলে রয়টার্স জানিয়েছে।  

খবরে বলা হয়, দুটি আইস-স্কেটিংসহ রিংকস একটি পার্ক এবং একটি গলফ কোর্স চালানোর জন্য ট্রাম্প অর্গানাইজেশনের সঙ্গে ১৭ মিলিয়ন ডলারের চুক্তি করেছিল নিউইয়র্ক সিটি কর্তৃপক্ষ।

ক্যাপিটল হিলে তাণ্ডবের ঘটনায় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে দায়ী করে মেয়র ব্লাসিও বলেন, মার্কিন সরকারের বিরুদ্ধে বিদ্রোহের উসকানি দেওয়া স্পষ্টই অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড।

ট্রাম্প অর্গানাইজেশনের সঙ্গে নিউইয়র্ক সিটি কোনো সম্পর্ক রাখবে না বলে এ সময় জানান তিনি।

গত সপ্তাহে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের বিজয়কে কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনে স্বীকৃতি দেওয়ার সময় ক্যাপিটল ভবনে হামলা চালান ট্রাম্প সমর্থকরা।

ওই দাঙ্গায় উসকানি দেওয়ার অভিযোগে বুধবার তাকে অভিশংসনের পক্ষে ভোট দিয়েছেন প্রতিনিধি পরিষদের সদস্যরা। যাতে তার নিজ দল রিপাবলিকান পার্টির সদস্যদেরও সায় ছিল।

আগামী ২০ জানুয়ারি প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেবেন ডেমোক্র্যাটদলীয় জো বাইডেন। এর আগে সিনেটে ট্রাম্পের বিচার হওয়া সম্ভব হবে না। অর্থাৎ মেয়াদ শেষ না করে অপমানজনকভাবে ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়াতে হচ্ছে না এই আবাসন ব্যবসায়ী ধনকুবেরকে।

তবে পরবর্তী সময় সিনেটে বিচারের মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন তিনি। যদি তাতে তিনি দোষী সাব্যস্ত হন, তবে ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া থেকে তাকে বিরত থাকতে হবে।

সপ্তাহখানেক পর সিনেটের সংখ্যাগরিষ্ঠ নেতা হতে যাওয়া ডেমোক্র্যাটিকদলীয় চাক শুমার বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম প্রেসিডেন্ট হিসেবে দ্বিতীয়বার অভিশংসিত হওয়ার লজ্জা বহন করছেন ট্রাম্প।

 

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন-২০২০