বাইডেন প্রশাসনের সম্ভাব্য নীতি নিয়ে রাশিয়া-ইরান বৈঠক
jugantor
বাইডেন প্রশাসনের সম্ভাব্য নীতি নিয়ে রাশিয়া-ইরান বৈঠক

  যুগান্তর ডেস্ক  

২২ জানুয়ারি ২০২১, ২০:২৪:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ে বাইডেন প্রশাসনের সম্ভাব্য নীতি নিয়ে আলোচনা করল ইরান এবং রাশিয়া

মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ে জো বাইডেন প্রশাসনের সম্ভাব্য দৃষ্টিভঙ্গি এবং নীতি কী হবে-তা নিয়ে আলোচনা করেছে ইরান এবং রাশিয়া।

মস্কোয় নিযুক্ত ইরানের রাষ্ট্রদূত কাজেম জালালি এবং রাশিয়ার অন্যতম উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ভার্শিনিন এ আলোচনা করেন বলে ইরানের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা জানিয়েছে।

এ সময় মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন ইস্যুসহ আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক নানা ঘটনাবলি নিয়ে আলোচনা করা হয়।

রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে যেসব বিষয় নিয়ে আগামী দিনগুলোতে আলোচনা হতে পারে সেসব ইস্যু নিয়েও কথা বলেছেন।

এর মধ্যে রয়েছে ইয়েমেন, সিরিয়া, লেবানন, লিবিয়া এবং মানবাধিকারের ইস্যু।

খবরে বলা হয়েছে, এসব ইস্যু নিয়ে রাশিয়া ও ইরানের মধ্যে দৃষ্টিভঙ্গিগত অনেক মিল রয়েছে।

এসব ইস্যুতে দুই দেশের মধ্যকার সহযোগিতার ফলে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠা হতে পারে বলেও রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে।

বাইডেন প্রশাসনের সম্ভাব্য নীতি নিয়ে রাশিয়া-ইরান বৈঠক

 যুগান্তর ডেস্ক 
২২ জানুয়ারি ২০২১, ০৮:২৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ে বাইডেন প্রশাসনের সম্ভাব্য নীতি নিয়ে আলোচনা করল ইরান এবং রাশিয়া
ছবি: ইরনা

মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ে জো বাইডেন প্রশাসনের সম্ভাব্য দৃষ্টিভঙ্গি এবং নীতি কী হবে-তা নিয়ে আলোচনা করেছে ইরান এবং রাশিয়া। 

মস্কোয় নিযুক্ত ইরানের রাষ্ট্রদূত কাজেম জালালি এবং রাশিয়ার অন্যতম উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ভার্শিনিন এ আলোচনা করেন বলে ইরানের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা জানিয়েছে। 

এ সময় মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন ইস্যুসহ আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক নানা ঘটনাবলি নিয়ে আলোচনা করা হয়।

রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে যেসব বিষয় নিয়ে আগামী দিনগুলোতে আলোচনা হতে পারে সেসব ইস্যু নিয়েও কথা বলেছেন। 

এর মধ্যে রয়েছে ইয়েমেন, সিরিয়া, লেবানন, লিবিয়া এবং মানবাধিকারের ইস্যু। 

খবরে বলা হয়েছে, এসব ইস্যু নিয়ে রাশিয়া ও ইরানের মধ্যে দৃষ্টিভঙ্গিগত অনেক মিল রয়েছে। 

এসব ইস্যুতে দুই দেশের মধ্যকার সহযোগিতার ফলে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠা হতে পারে বলেও রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন-২০২০