‘আপত্তিকর’ আচরণ ঠেকাতে টহল দেবে রোবট!
jugantor
‘আপত্তিকর’ আচরণ ঠেকাতে টহল দেবে রোবট!

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৭ অক্টোবর ২০২১, ০৪:৩৪:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

জনগণের ‘আপত্তিকর’ আচরণ ঠেকাতে টহল দেওয়ার কাজে রোটব নামাতে যাচ্ছে সিঙ্গাপুর। জনগণের ব্যক্তিগত জীবনে হস্তক্ষেপের জন্য বরাবরই সমালোচিত হয়ে আসছে সিঙ্গাপুর। এবার টহল রোবট নামিয়ে সেই সমালোচনাকেই যেন আরও উস্কে দিল দেশটি।

একটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জেভিয়ার নামের চাকাযুক্ত এই রোবটে আছে সাতটি ক্যামেরা। এই ক্যামেরার মাধ্যমে জনগণের ‘আপত্তিকর’ আচরণ শনাক্ত করে জনগণকে সর্তক করবে রোবট।

নিষিদ্ধ এলাকায় কাউকে ধূমপান করতে দেখলে, অবৈধ হকার দেখলে, নির্দিষ্ট জায়গায় সাইকেল পার্ক না করলে, করোনার আচরণবিধি লঙ্ঘন করে পাঁচজনের বেশি মানুষ এক জায়গায় জড়ো হলে এবং ফুটপাতে মোটরসাইকেলসহ অন্য যান চালালে রোবট সতর্ক করে দেবে।

সম্প্রতি একটি আবাসিক এলাকায় টহলরত এক রোবট কয়েকজন বৃদ্ধদের এক জায়গায় জড়ো হয়ে দাবা খেলার সময় তাদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার ব্যাপারে সতর্ক করে বলে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

আবাসিক এলাকা ও একটি শপিং সেন্টারে সেপ্টেম্বরে তিন সপ্তাহের জন্য পরীক্ষামূলকভাবে দুটি রোবট টহল দিয়েছিল।

এ ব্যাপারে গবেষণা সহকারী হিসেবে কর্মরত ফ্র্যানি টিও বলেন, ওই রোবট আমাকে রোবকোপের কথা মনে করিয়ে দিচ্ছিল।
এদিকে, এই টহল রোবটের কার্যক্রম মানুষের গোপনীতায় লঙ্ঘন করবে বলে সমালোচনা করেছেন অনেকে।

সিঙ্গাপুরে ৫৫ লাখ মানুষের বসবাস। কিন্তু সেখানে পুলিশ ক্যামেরা আছে ৯০ হাজার। ২০৩০ সালের মধ্যে দেশটিতে পুলিশ ক্যামেরা দ্বিগুণ করার পরিকল্পনা রয়েছে। এছাড়া ভীড়ের মধ্যে থেকে কাঙ্ক্ষিত মুখ খুঁজে পেতে ক্যামেরাগুলো ফেসিয়াল রিগকনিশন আনতে যাচ্ছে সিঙ্গাপুর। ল্যাম্পপোস্টে এই ফেসিয়াল রিগকনিশন প্রযুক্তির ক্যামেরা স্থাপন করা হবে।

‘আপত্তিকর’ আচরণ ঠেকাতে টহল দেবে রোবট!

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৭ অক্টোবর ২০২১, ০৪:৩৪ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জনগণের ‘আপত্তিকর’ আচরণ ঠেকাতে  টহল দেওয়ার কাজে রোটব নামাতে যাচ্ছে সিঙ্গাপুর।  জনগণের ব্যক্তিগত জীবনে হস্তক্ষেপের জন্য বরাবরই সমালোচিত হয়ে আসছে সিঙ্গাপুর। এবার টহল রোবট নামিয়ে সেই সমালোচনাকেই যেন আরও উস্কে দিল দেশটি।  

একটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জেভিয়ার নামের  চাকাযুক্ত এই রোবটে আছে সাতটি ক্যামেরা। এই ক্যামেরার মাধ্যমে জনগণের ‘আপত্তিকর’ আচরণ শনাক্ত করে জনগণকে সর্তক করবে রোবট। 

নিষিদ্ধ এলাকায় কাউকে ধূমপান করতে দেখলে, অবৈধ হকার দেখলে, নির্দিষ্ট জায়গায় সাইকেল পার্ক না করলে, করোনার আচরণবিধি লঙ্ঘন করে পাঁচজনের বেশি মানুষ এক জায়গায় জড়ো হলে এবং ফুটপাতে মোটরসাইকেলসহ অন্য যান চালালে রোবট সতর্ক করে দেবে। 

সম্প্রতি একটি আবাসিক এলাকায় টহলরত এক রোবট কয়েকজন বৃদ্ধদের এক জায়গায় জড়ো হয়ে দাবা খেলার সময় তাদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার ব্যাপারে সতর্ক করে বলে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

আবাসিক এলাকা ও একটি শপিং সেন্টারে সেপ্টেম্বরে তিন সপ্তাহের জন্য পরীক্ষামূলকভাবে দুটি রোবট টহল দিয়েছিল।

এ ব্যাপারে গবেষণা সহকারী হিসেবে কর্মরত ফ্র্যানি টিও বলেন, ওই রোবট আমাকে রোবকোপের কথা মনে করিয়ে দিচ্ছিল।  
এদিকে, এই টহল রোবটের কার্যক্রম মানুষের গোপনীতায় লঙ্ঘন করবে বলে সমালোচনা করেছেন অনেকে। 

সিঙ্গাপুরে ৫৫ লাখ মানুষের বসবাস। কিন্তু সেখানে পুলিশ ক্যামেরা আছে ৯০ হাজার। ২০৩০ সালের মধ্যে দেশটিতে পুলিশ ক্যামেরা দ্বিগুণ করার পরিকল্পনা রয়েছে। এছাড়া ভীড়ের মধ্যে থেকে কাঙ্ক্ষিত মুখ খুঁজে পেতে ক্যামেরাগুলো ফেসিয়াল রিগকনিশন আনতে যাচ্ছে সিঙ্গাপুর। ল্যাম্পপোস্টে এই ফেসিয়াল রিগকনিশন প্রযুক্তির ক্যামেরা স্থাপন করা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন