লাইভে নাতির বন্ধুকে বিয়ে করলেন বৃদ্ধা (ভিডিও)
jugantor
লাইভে নাতির বন্ধুকে বিয়ে করলেন বৃদ্ধা (ভিডিও)

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৫:১৩:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

বিয়ে

প্রেমের ক্ষেত্রে বয়স কোনো বাধা নয়, সেই বহুল চর্চিত প্রবাদকেই ফের প্রমাণ করলেন ৬১ বছর বয়সী এই বৃদ্ধা। তাই তো রীতিমতো প্রেম করে নাতির ২৪ বছর বয়সী বন্ধুর সঙ্গে প্রণয়ে বাঁধা পড়লেন তিনি।

জর্জিয়ার রোম শহরে শেরিল ম্যাকগ্রেগর তার নাতির বন্ধু কোরান ম্যাককেইনকে বিয়ে করেন বলে ব্রিটিশ গণমাধ্যম ডেইলি মেইল এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

চলতি বছরের ৩ সেপ্টেম্বর তারা বিয়ের করেন। সেই বিয়ের অনুষ্ঠান তাদের হাজার হাজার টিকটক অনুসারী লাইভে দেখেন বলেও জানা গেছে। তবে আফসোস করে নববধূ বলছেন, রাস্তায় বেশির ভাগ মানুষ আমার স্বামীকে আমার নাতি বলে মনে করে। এটা ভাল লাগে না।

জানা গেছে, শেরিলের নাতির একটি খাবারের দোকান আছে। সেই দোকানেই কাজ করতেন কোরান। ২০১২ সালে কোরানের বয়স যখন মাত্র ১৫ বছর তখন শেরিলের সঙ্গে ওই দোকানেই পরিচয় হয় তার। সেই যোগাযোগ প্রাথমিক ভাবে গড়ে উঠলেও এক সময় তা বন্ধ হয়ে যায়। ফের ২০২০ সালে অনলাইনে তাদের মধ্যে গড়ে ওঠে যোগাযোগ। তখন থেকে নিয়মিত যোগাযোগ হয় তাদের। শেষে এক দিন একটি ক্যাফেতে হঠাৎই আংটি নিয়ে শেরিলকে বিয়ের প্রস্তাব দেন কোরান।

কোরান বলেন, শেরিল খুবই নরম মনের মানুষ। তিনি সুন্দরী, সৎ ও ইমোশনাল। সেই কারণেই উনাকে আমার ভালো লাগে। আমি যখন উনাকে বিয়ের প্রস্তাব দিই, তখন উনি অবাক হয়েছিলেন।

একলা মায়ের দায়িত্ব পালন করেছেন শেরিল। তার সাত সন্তান রয়েছে। সন্তানরা সবাই মায়ের এই সম্পর্ককে মেনে নিয়েছেন।

লাইভে নাতির বন্ধুকে বিয়ে করলেন বৃদ্ধা (ভিডিও)

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৫:১৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বিয়ে
ছবি : প্রতীকী

প্রেমের ক্ষেত্রে বয়স কোনো বাধা নয়, সেই বহুল চর্চিত প্রবাদকেই ফের প্রমাণ করলেন ৬১ বছর বয়সী এই বৃদ্ধা। তাই তো রীতিমতো প্রেম করে নাতির ২৪ বছর বয়সী বন্ধুর সঙ্গে প্রণয়ে বাঁধা পড়লেন তিনি।

জর্জিয়ার রোম শহরে শেরিল ম্যাকগ্রেগর তার নাতির বন্ধু কোরান ম্যাককেইনকে বিয়ে করেন বলে ব্রিটিশ গণমাধ্যম ডেইলি মেইল এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

চলতি বছরের ৩ সেপ্টেম্বর তারা বিয়ের করেন। সেই বিয়ের অনুষ্ঠান তাদের হাজার হাজার টিকটক অনুসারী লাইভে দেখেন বলেও জানা গেছে। তবে আফসোস করে নববধূ বলছেন, রাস্তায় বেশির ভাগ মানুষ আমার স্বামীকে আমার নাতি বলে মনে করে। এটা ভাল লাগে না।

জানা গেছে, শেরিলের নাতির একটি খাবারের দোকান আছে। সেই দোকানেই কাজ করতেন কোরান। ২০১২ সালে কোরানের বয়স যখন মাত্র ১৫ বছর তখন শেরিলের সঙ্গে ওই দোকানেই পরিচয় হয় তার। সেই যোগাযোগ প্রাথমিক ভাবে গড়ে উঠলেও এক সময় তা বন্ধ হয়ে যায়। ফের ২০২০ সালে অনলাইনে তাদের মধ্যে গড়ে ওঠে যোগাযোগ। তখন থেকে নিয়মিত যোগাযোগ হয় তাদের। শেষে এক দিন একটি ক্যাফেতে হঠাৎই আংটি নিয়ে শেরিলকে বিয়ের প্রস্তাব দেন কোরান।

কোরান বলেন, শেরিল খুবই নরম মনের মানুষ। তিনি সুন্দরী, সৎ ও ইমোশনাল। সেই কারণেই উনাকে আমার ভালো লাগে। আমি যখন উনাকে বিয়ের প্রস্তাব দিই, তখন উনি অবাক হয়েছিলেন। 

একলা মায়ের দায়িত্ব পালন করেছেন শেরিল। তার সাত সন্তান রয়েছে। সন্তানরা সবাই মায়ের এই সম্পর্ককে মেনে নিয়েছেন। 
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন