পাত্রী চেয়ে আজব বিজ্ঞাপন দিয়ে তোপের মুখে যুবক
jugantor
পাত্রী চেয়ে আজব বিজ্ঞাপন দিয়ে তোপের মুখে যুবক

  অনলাইন ডেস্ক  

২২ নভেম্বর ২০২১, ০৬:২১:২৬  |  অনলাইন সংস্করণ

বিয়ের জন্য পাত্রপাত্রী চেয়ে বিজ্ঞাপন দেওয়ার চল রয়েছে। পছন্দের পাত্রপাত্রী বেছে নিতে বিজ্ঞাপনে পাত্রপাত্রীর পেশা থেকে শুরু করে বয়স, গায়ের রং, এমনকি উচ্চতাও নির্দিষ্ট করে দেন অনেকে।

তবে শুধু বয়স কিংবা গায়ের রং নয় পাত্রীর কিছু শারীরিক বৈশিষ্ট্যবিজ্ঞাপনে নির্দিষ্ট করে দিয়ে নেটমাধ্যমে তোপের মুখে পড়েছেন এক তরুণ। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতে।

নেটমাধ্যমে ভাইরাল এক বিজ্ঞাপনে দেখা গেছে, এক যুবক তার হবু স্ত্রীর বয়স, উচ্চতা কেমন হতে হবে তা উল্লেখ করে দিয়েছেন।

তিনি জানিয়েছেন, পাত্রীর বয়স ১৮ থেকে ২৬ বছর বয়স হতে হবে, উচ্চতা ৫ ফুট ২ ইঞ্চি থেকে ৫ ফুট ৬ ইঞ্চির মধ্যে থাকতে হবে। কুকুর পছন্দ করতে হবে। পাত্রীকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকতে হবে। এপর্যন্ত অবশ্য সব ঠিকঠাকই ছিল।

কিন্তু গোল বাঁধে যখন বিজ্ঞাপনে ওই যুবক পাত্রীর অন্তর্বাসের মাপ এবং কোমরের মাপ পর্যন্ত নির্দিষ্ট করে দেন।শুধু তাই পাত্রীর জুতার মাপ কেমন হবে সেটাও বিজ্ঞাপনে উল্লেখ করে দেন তিনি।

এমন আজব বিজ্ঞাপন ভাইরাল হতে সময় লাগেনি। বিজ্ঞাপনের ব্যাপারে বিভিন্ন নেতিবাচক মন্তব্য করেছেন নেটিজেনরা।

অনেকেই ওই যুবককে বিকৃত মানসিকতার বলে উল্লেখ করেছেন। কেউ কেউ তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ারও দাবি জানিয়েছেন।

এদিকে বিয়ে বিষয়ক বিজ্ঞাপনী সংস্থারও নজরে এসেছে বিজ্ঞাপনটি। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে বলেই ওই বিজ্ঞাপনী সংস্থা জানিয়েছে।

পাত্রী চেয়ে আজব বিজ্ঞাপন দিয়ে তোপের মুখে যুবক

 অনলাইন ডেস্ক 
২২ নভেম্বর ২০২১, ০৬:২১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিয়ের জন্য পাত্রপাত্রী চেয়ে বিজ্ঞাপন দেওয়ার চল রয়েছে। পছন্দের পাত্রপাত্রী বেছে নিতে বিজ্ঞাপনে পাত্রপাত্রীর পেশা থেকে শুরু করে বয়স, গায়ের রং, এমনকি উচ্চতাও নির্দিষ্ট করে দেন অনেকে।

তবে শুধু বয়স কিংবা গায়ের রং নয় পাত্রীর কিছু শারীরিক বৈশিষ্ট্য বিজ্ঞাপনে নির্দিষ্ট করে দিয়ে নেটমাধ্যমে তোপের মুখে পড়েছেন এক তরুণ। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতে। 

 নেটমাধ্যমে ভাইরাল এক বিজ্ঞাপনে দেখা গেছে, এক যুবক তার হবু স্ত্রীর বয়স, উচ্চতা কেমন হতে হবে তা উল্লেখ করে দিয়েছেন।

তিনি জানিয়েছেন, পাত্রীর বয়স ১৮ থেকে ২৬ বছর বয়স হতে হবে, উচ্চতা ৫ ফুট ২ ইঞ্চি থেকে ৫ ফুট ৬ ইঞ্চির মধ্যে থাকতে হবে। কুকুর পছন্দ করতে হবে। পাত্রীকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকতে হবে। এ পর্যন্ত অবশ্য সব ঠিকঠাকই ছিল।

কিন্তু গোল বাঁধে যখন বিজ্ঞাপনে ওই যুবক পাত্রীর অন্তর্বাসের মাপ এবং কোমরের মাপ পর্যন্ত নির্দিষ্ট করে দেন। শুধু তাই পাত্রীর জুতার মাপ কেমন হবে সেটাও বিজ্ঞাপনে উল্লেখ করে দেন তিনি। 

এমন আজব বিজ্ঞাপন ভাইরাল হতে সময় লাগেনি। বিজ্ঞাপনের ব্যাপারে বিভিন্ন নেতিবাচক মন্তব্য করেছেন নেটিজেনরা।

অনেকেই ওই যুবককে বিকৃত মানসিকতার বলে উল্লেখ করেছেন। কেউ কেউ তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ারও দাবি জানিয়েছেন। 

এদিকে বিয়ে বিষয়ক বিজ্ঞাপনী সংস্থারও নজরে এসেছে বিজ্ঞাপনটি। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে বলেই ওই বিজ্ঞাপনী সংস্থা জানিয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন