তারা আসলে কোন ধর্মের পূজারি?

  ফুয়াদ খন্দকার ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১৯:৫৪ | অনলাইন সংস্করণ

তারা আসলে কোন ধর্মের পূজারি?
তারা আসলে কোন ধর্মের পূজারি? ছবি: সংগৃহীত

কিছুদিন আগে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে নামাজরত মুসল্লিদের ওপর ভয়াবহ হমলার ঘটনায় পুরো বিশ্ববাসীকে কাঁদিয়েছে। এর রেশ কাটতে না কাটতেই শ্রীলংকায় একের পর এক সিরিজ বোমা হামলায় এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা ৩০০ ছাড়িয়েছে৷

ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলা হয়েছিল আর শ্রীলংকায় গির্জাতে হামলা হলো। দুটো ঘটনাই যে ধর্মীয় বিরোধ থেকে করা হয়েছে এ ব্যাপারটা বেশ স্পষ্ট। প্রার্থনারত ধর্মভিরু সাধারণ মানুষগুলোকে হত্যা করা তারা কোন ধর্ম পালন করছে তা আমার কাছে বোধগম্য নয়। এ ধরনের হামলা যে এটাই প্রথম তাও কিন্তু নয়। পৃথিবীতে এ রকম হাজারো ঘটনা রয়েছে যা শুধুমাত্র ধর্মীয় বিরোধের কারণে সংগঠিত হয়েছে। অথচ পৃথিবীতে যতগুলো ধর্ম আছে তার কোনোটিতেই এ ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড সমর্থন করে না।সব ধর্মই সবসময় মানবতার কথা বলে, শান্তির কথা বলে।

তবে এ ধরনের ন্যক্কারজনক হামলার মাধ্যমে তারা তাদের কোন প্রভুকে খুশি করতে চায় আমার জানা নেই। তবে এতে যে সৃষ্টিকর্তার ভালোবাসা পাওয়া যাবে না তাতে কোনো সন্দেহ নেই।

হামলায় নিহতদের মধ্যে অনেক শিশু ছিল। এ নিষ্পাপ শিশুগুলোকে হত্যার মাধ্যমে তারা কোন পূণ্যের আশা করে? যে শিশুগুলো ধর্ম কি সেটাই বুঝতে শিখেনি। কে বৌদ্ধ, কে খ্রিস্টান, কে হিন্দু, কে মুসলমান এ জ্ঞানই তো তাদের জন্মায়নি। অথচ এ শিশুগুলোকেও ধর্মের নামে কিছু সন্ত্রাসীদের কারণে জীবন দিতে হয়েছে।

পৃথিবীতে এখনো যেসব দেশে যুদ্ধ চলছে তার বেশির ভাগ কারণই ধর্মীয়। একদল আরেক দলকে নিশ্চিহ্ন করে দেয়ার প্রতিযোগিতাতে লিপ্ত। এসব কাজ করে নিজেদের ধর্মকে ছোট করছি, প্রশ্নবিদ্ধ করছি। তারপরেও আমাদের কোনো বোধোদয় নেই। তারা আসলে কোন ধর্মের পূজারি? কোন ধর্মের কারণে তারা এ ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করে? কোন স্রষ্টার ভালোবাসা পাওয়ার জন্য তারা এ হীন কাজ করে?

ফিলিস্তিন থেকে মিয়ানমার, পুরো পৃথিবীতেই তাদের এই বিষ প্রতিনিয়ত আমাদের মানবজাতিকে শেষ করে দিচ্ছে।

অথচ সব ধর্মেই ভালোবাসার কথা বলে, মায়ার কথা বলে, মানুষের কথা বলে। আমি চ্যালেঞ্জ করে বললাম কোনো ধর্মই এভাবে নির্বিচারে মানুষ হত্যার কথা বলে না।

কাজেই যারা এ ধরনের হামলার সঙ্গে জড়িত তাদের কোনো ধর্ম নেই। তারা না বৌদ্ধ, না খ্রিস্টান, না হিন্দু, না মুসলমান। তাদের শুধু একটাই পরিচয়। তারা মস্তিষ্কবিকৃত উন্মাদ একদল সন্ত্রাসী।

(লেখক ও সামাজিক কর্মী)

ঘটনাপ্রবাহ : শ্রীলংকায় গির্জা ও হোটেলে সিরিজ হামলা

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×